ঢাকা, মঙ্গলবার, ১ শ্রাবণ ১৪২৫, ১৭ জুলাই ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন চান এরশাদ

নজরুল মৃধা : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০৪-১৫ ৫:১১:০৬ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৪-১৫ ৫:১১:০৬ পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক, রংপুর : আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু দেখতে চান  জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ।

তিনি বলেছেন, ‘‘আমরা সীল মারা নির্বাচন চাই না। অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচন চাই। সুষ্ঠু অবাধ নির্বাচন হলে বর্তমান সরকার ক্ষমতায় যেতে পারবে না। এ সরকারের জনপ্রিয়তা এখন শূন্যের কোঠায়।’’

রোববার রংপুর জেলা জাতীয় পার্টির দ্বি-বার্ষিক কাউন্সিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ সব কথা বলেন। পাবলিক লাইব্রেরি মাঠে আয়োজিত সম্মেলনে দলের  প্রেসিডিয়াম সদস্য মশিউর রহমান রাঙ্গাকে সভাপতি ও কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান এস এম ফখর-উজ-জামান জাহাঙ্গীরকে সাধারণ সম্পাদক করে জেলা কমিটি ঘোষণা করা হয়। এই দুইজন পরবর্তীতে পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করবেন।

এরশাদ বলেন, ‘‘আমরা প্রাদেশিক সরকার ব্যবস্থা চাই। এক দলীয় শাসন চাই না। জনগণের শাসন চাই। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কথা ছাড়া গাছের পাতা এবং প্রশাসন নড়ে না।’’

তিনি আরো বলেন, ‘‘দেশের ১৩৭টি বিশ্ববিদ্যালয়ে থেকে প্রতিবছর অসংখ্য উচ্চশিক্ষিত যুবক বের হচ্ছে। কিন্তু তারা চাকরি না পেয়ে মাদকাসক্ত হয়ে পড়ছেন। ব্যাংক ও শেয়ার বাজার লুটপাট করা হচ্ছে। কিন্তু দেখার কেউ নেই।’’

আওয়ামী লীগের উদ্দেশ্যে এরশাদ বলেন, ‘‘জাপাকে সম্মান করবেন। অবহেলা করবেন না। কারণ জাপা ছাড়া কেউ ক্ষমতায় যেতে পারবে না। দেশে নারী নির্যাতন, ধর্ষণ, খুন অনেক বেড়ে গেছে। বাল্য বিয়েতে দেশ এখন এক নম্বরে। সেই দিকে সরকারের নজর নেই।’’

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান বলেন, ‘‘আগামী নির্বাচন বাচা-মরার নির্বাচন। ভুল করলে চলবে না। প্রত্যেক প্রার্থীকে বিজয়ী করতে হবে। আমাকে রংপুরের ২২টি আসন উপহার দিন। আমরা রাষ্ট্র ক্ষমতায় যাব। রংপুর এখন আর জাতীয় পার্টির দুর্গ নেই। এই দুর্গ মেরামত করতে হবে।’’

তিনি বলেন, ‘‘বর্তমানে ৬০ টাকা কেজিতে চাল খেয়ে গ্রামের মানুষের নাভিশ্বাস উঠেছে। সেই দিকে সরকারের খেয়াল নেই। আমারা ক্ষমতায় গেলে জনগণকে ১০ টাকা সের চাল খাওয়াব।’’

এরশাদ আরো বলেন, ‘‘আমি যমুনা সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছিলাম। কিন্তু সেখানে আমার নাম পর্যন্ত রাখা হয়নি।’’ 

তিনি বলেন, জাতীয় পার্টি ক্ষমতায় গেলে রংপুরে গ্যাস সরবরাহ করা হবে। শিল্প কলকারখানা গড়ে তোলা হবে। বেকার সমস্যা সমাধান করা হবে।

জাতীয় পার্টির প্রেসিডিযাম সদস্য, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান রাঙ্গার সভাপতিত্বে সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জাপার কো-চেয়ারম্যান জি এম কাদের, মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদার, সালাউদ্দিন মুফতি এমপি, শওকত চৌধুরী এমপি, কাজী ফিরোজ রশিদ চৌধুরী এমপি, মেজর (অব.) খালেদ আক্তার, রসিক মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা প্রমুখ।




রাইজিংবিডি/রংপুর/১৫ এপ্রিল ২০১৮/নজরুল মৃধা/বকুল

Walton Laptop
 
     
Walton