ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৮ চৈত্র ১৪২৩, ২৩ মার্চ ২০১৭
Risingbd
মার্চ
সর্বশেষ:

একাধিক মোবাইল ব্যাংকিং হিসাব নয়

আশরাফ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-০১-১১ ৮:৫৭:১৩ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০১-১২ ৮:৫৫:৩৪ পিএম

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক : মোবাইল ব্যাংকিং ব্যবস্থার অপব্যবহার ঠেকাতে বেশকিছু নতুন নির্দেশনা জারি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এতে একজন ব্যক্তি যেকোনো মোবাইল ব্যাংকিং সেবায় একটি মাত্র হিসাব রাখতে পারবেন।

যাদের একাধিক মোবাইল ব্যাংকিং হিসাব চলমান আছে, তার একটি রেখে অন্যগুলো দ্রুত বন্ধ করতে হবে। একই সঙ্গে মোবাইল ব্যাংকিং ব্যবস্থায় দৈনিক ও মাসিক লেনদেনের সীমা কমানো হয়েছে।

সন্ত্রাসে অর্থায়ন ও ব্যাংকিং চ্যানেলে রেমিট্যান্স প্রবাহ কমায় বুধবার কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পেমেন্ট সিস্টেমস ডিপার্টমেন্ট এ সংক্রান্ত একটি পরিপত্র জারি করেছে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পেমেন্ট সিস্টেমস ডিপার্টমেন্টের মহাব্যবস্থাপক লীলা রশিদ স্বাক্ষরিত সার্কুলারে বলা হয়েছে, 'কতিপয় অসাধু ব্যক্তি এ সেবাটির অপব্যবহার করছে, মর্মে অভিযোগ পাওয়া গেছে, যা দেশ ও জাতির জন্য ক্ষতিকর। এর পরিপ্রেক্ষিতে মোবাইল ফিনান্সিয়াল সার্ভিসের অপব্যবহার রোধে এবং এর সুশৃঙ্খল ও যথাযথ ব্যবহার নিশ্চিত করতে নির্দেশনাসমূহ প্রস্তুত করা হয়েছে, যা যথার্থভাবে পরিপালনের জন্য আপনাদেরকে পরামর্শ দেওয়া হলো।'

সার্কুলারে আরো বলা হয়েছে, একজন ব্যক্তি কোনো এমএফএস প্রোভাইডারের সঙ্গে একাধিক মোবাইল হিসাব চলমান রাখতে পারবেন না। কোনো গ্রাহকের একই জাতীয় পরিচয়পত্র/স্মার্ট কার্ড বা অন্য কোনো পরিচয়পত্রের বিপরীতে কোনো এমএফএসে একাধিক হিসাব থাকলে আলোচনার মাধ্যমে যেকোনো একটি মোবাইল হিসাব চালু রেখে অন্যগুলো বন্ধ করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

কোনো ক্ষেত্রে গ্রাহকের সঙ্গে আলোচনা করে ব্যবস্থা গ্রহণ কঠিন হলে যে হিসাবটিতে সর্বশেষ লেনদেন হয়েছে তা চালু রেখে অন্য হিসাবগুলো বন্ধ করতে হবে। এ পদক্ষেপ গ্রহণকালে যেসব মোবাইল হিসাব বন্ধ করা হবে তার সমুদয় স্থিতি সংশ্লিষ্ট গ্রাহককে পরিশোধ/প্রদান বা হস্তান্তরের যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

নতুন নির্দেশনা অনুযায়ী, ক্যাশ-ইনের ক্ষেত্রে একজন গ্রাহকের দৈনিক সর্বোচ্চ লেনদেনের পরিমাণ ২০ হাজার টাকা থেকে কমিয়ে ১৫ হাজার টাকা করা হয়েছে। এক্ষেত্রে দিনে তিনবারের বদলে এখন তা দুইবার করা যাবে। আর মাসে লেনদেনের সীমা দেড় লাখ থেকে কমিয়ে ১ লাখ টাকা করা হয়েছে; এখন থেকে তা অনধিক ২০ বার করা যাবে।

আর ক্যাশ-আউটের ক্ষেত্রে গ্রাহক দিনে দুইবারে সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা লেনদেন করতে পারবেন। এক্ষেত্রে মাসিক লেনদেন সীমা সর্বোচ্চ ১ লাখ থেকে কমিয়ে ৫০ হাজার টাকা করা হয়েছে; আর এ সুযোগ অনধিক ১০ বার নেওয়া যাবে।

 



সার্কুলারে দেওয়া নির্দেশনা অনুযায়ী, এখন থেকে কোনো একটি মোবাইল হিসাবে ক্যাশ-ইন হওয়ার পর ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ওই হিসাব থেকে সর্বোচ্চ ৫ হাজার টাকার বেশি নগদ উত্তোলন (ক্যাশ-আউট) করা যাবে না। এ ছাড়া কোনো হিসাবে ৫ হাজার টাকা কিংবা তারচেয়ে বেশি নগদ অর্থ জমা (ক্যাশ-ইন) বা উত্তোলন (ক্যাশ-আউট) করার ক্ষেত্রে গ্রাহককে তার পরিচয়পত্র/স্মার্ট কার্ড বা তার ফটোকপি এজেন্টকে প্রদর্শন করতে হবে এবং এজেন্ট গ্রাহকের জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর রেজিস্টা খাতায় লিপিবদ্ধ রাখবেন।

এসব নির্দেশনা সার্কুলার জারির দিন থেকে কার্যকর হবে বলেও জানানো হয়েছে।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১১ জানুয়ারি ২০১৭/আশরাফ/হাসান/রফিক

Walton Laptop