ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৮ চৈত্র ১৪২৩, ২৩ মার্চ ২০১৭
Risingbd
মার্চ
সর্বশেষ:

খুলনায় ১১৫৯ ভিক্ষুককে পুনর্বাসন

মুহাম্মদ নূরুজ্জামান : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-০১-০৭ ৪:৪৬:২৪ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০১-০৭ ৪:৪৬:২৪ পিএম
খুলনায় ভিক্ষুকদের মধ্যে পণ্য সমাগ্রী বিতরণ করা হয়

নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনা : ‘ভিক্ষাবৃত্তিকে না বলুন, ভিক্ষুকমুক্ত খুলনা গড়ুন’, এ স্লোগান বাস্তবায়নে খুলনায় ভিক্ষুকদের পুনর্বাসনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

 

এরই অংশ হিসেবে খুলনা মহানগরীর তালিকাভুক্ত ১ হাজার ১৫৯ জন ভিক্ষুককে নগদ অর্থসহ বিভিন্ন পণ্য সামগ্রী প্রদান করা হয়েছে।

 

শনিবার দুপুরে দ্বিতীয় দফা পুনর্বাসন কার্যক্রম পরিচালিত হয়। এসব পণ্য সামগ্রী পেয়ে ভিক্ষুকরা আবেগ-আপ্লুত হয়ে পড়েন। তবে তারা পণ্য সমগ্রীর পাশাপাশি তাদের বসবাসের জন্য জমি এবং ঘর দেওয়ার দাবি জানান।

 

জেলা প্রশাসনের সূত্র জানায়, খুলনা জেলাকে ভিক্ষুকমুক্ত করার লক্ষ্যে জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের সহায়তায় জেলা প্রশাসন কাজ করছে। ইতিমধ্যে জেলার ৯টি উপজেলায় ভিক্ষুকমুক্তকরণের কাজ চলমান রয়েছে। এর মধ্যে খুলনা মহানগরীতে ভিক্ষুক জরিপ সম্পন্নের পর গত বছরের ২৫ নভেম্বর প্রথম দফায় স্থানীয় সার্কিট হাউজ চত্বরে ৫৪৪ জন ভিক্ষুককে পুনর্বাসনের লক্ষ্যে তাদেরকে বিভিন্ন পণ্য সামগ্রী ও রেশন প্রদান করা হয়।

 

শনিবার সার্কিট হাউজ চত্বরে দ্বিতীয় দফায় ৬১৫ জন ভিক্ষুককে বিভিন্ন পণ্য সামগ্রী ও রেশন প্রদান করা হয়েছে। এর মধ্যে ছিল সেলাই মেশিন, ফ্লাক্স, পানের দোকানসহ বিভিন্ন সামগ্রী। জেলা প্রশাসক নাজমুল আহসান আনুষ্ঠানিকভাবে ভিক্ষুকদের হাতে এসব সামগ্রী তুলে দেন।

 

ভিক্ষুক অন্ধ আক্কাস মোল্লা, জয়তুন বেগম, রোকেয়া বেগম, মায়া বেগম ও হাজেরা বেগমসহ একাধিক ভিক্ষুক জানান, তাদের ভিক্ষা করতে ভালো লাগে না, খুবই খারাপ লাগে। তারপরও পেটের তাগিদে শুধুমাত্র বেঁচে থাকার জন্যই তারা ভিক্ষা করেন।

 

বর্তমান সরকার তাদের পুনর্বাসনের মাধ্যমে ভিক্ষুকমুক্তকরণের যে উদ্যোগ নিয়েছে তাতে তারা খুশি। কিন্তু তারা পণ্য সমাগ্রীর পাশাপাশি তাদের বসবাসের জন্য জমি এবং ঘর দেওয়ার দাবিও জানান।

 

 

রাইজিংবিডি/খুলনা/৭ জানুয়ারি ২০১৭/মুহাম্মদ নূরুজ্জামান/রিশিত

Walton Laptop