ঢাকা, শনিবার, ৫ কার্তিক ১৪২৫, ২০ অক্টোবর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

গৃহবধূকে গলাকেটে হত্যা, স্বামী ও দেবর আটক

সেলিম আব্বাস : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০৫-০৭ ৩:০৭:২৮ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৫-০৭ ৩:০৭:২৮ পিএম

জামালপুর সংবাদদাতা : জামালপুরের বকশীগঞ্জে জরিনা বেগম (৩০) নামের এক গৃহবধূকে গলা কেটে হত্যা করেছে পাষণ্ড স্বামী। নৃশংস হত্যাকাণ্ডটি ঘটেছে সোমবার সকালে পৌর এলাকার মালিরচর ব্যাপারীপাড়া গ্রামে।

এ ঘটনায় নিহতের স্বামী লুৎফর রহমান (৪০) ও দেবর লিয়াকত আলীকে (৩৫) গ্রেপ্তার করেছে বকশীগঞ্জ থানা পুলিশ। নিহত জরিনা বেগম দিনাজপুরের মাইনুল হকের মেয়ে।

স্থানীয়রা জানায়, পৌর শহরের মালিরচর ব্যাপারীপাড়া এলাকার মৃত শাহ আলমের ছেলে লুৎফর রহমানের সাথে আট বছর আগে বিয়ে হয় দিনাজপুর জেলার মইনুল হকের মেয়ে জরিনা বেগমের। তাদের দুটি সন্তান রয়েছে। বিয়ের পর থেকেই নানা কারণে জরিনা বেগমকে নির্যাতন করে আসছিল তার স্বামী লুৎফর রহমান। সোমবার সকালে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া শুরু হয়। এক পর্যায়ে উত্তেজিত লুৎফর তার স্ত্রী জরিনা বেগমকে কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। পরে ধারালো অস্ত্র দিয়ে গলা কেটে মৃত্যু নিশ্চিত হওয়ার পর পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে স্থানীয়রা আটক করে পুলিশে খবর দেয়।

ঘাতক লুৎফরকে আটক ও গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। লুৎফরের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী, তার সৎ ভাই লিয়াকত আলীকে আটক করা হয়।

বকশীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আসলাম হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে স্বামী লূৎফর রহমান ও দেবর লিয়াকত আলীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধারের পর মর্গে পাঠানো হয়েছে।’

 

 

 

রাইজিংবিডি/জামালপুর/৭ মে ২০১৮/সেলিম আব্বাস/সাইফুল

Walton Laptop
 
     
Walton