ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

দর্শনাথীদের নজর কাড়ছে ওয়ালটনের মেগা প্যাভিলিয়ন

শারমিনা আজিজ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-০১-০৩ ৬:৩৫:২১ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৩-০৮ ১০:১৪:৫৯ এএম

শারমিনা আজিজ : দর্শনার্থীদের সহজেই নজর কাড়তে প্রতিবারের মতো এবারও ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় বড় প্যাভিলিয়ন নির্মাণ করেছে দেশের শীর্ষ ব্র্যান্ড ওয়ালটন।

 

মঙ্গলবার মেলায় গিয়ে দেখা গেছে, রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের পাশে মাসব্যাপী ২২তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার প্রধান গেট দিয়ে ঢোকার পরই চোখে পড়বে ওয়ালটনের মেগা প্যাভিলিয়ন (২৬ ও ২৭ নম্বর প্যাভিলিয়ন)। ১৫ হাজার বর্গফুটের তিন তলাবিশিষ্ট এ মেগা প্যাভিলিয়নের চারপাশে রয়েছে বিভিন্ন ধরনের ফুলের বাগান। বাগানের পাশে দাঁড়িয়ে তরুণ-তরুণীরা তুলছেন ছবি। মাঝে রয়েছে প্যাভেলিয়নে ঢোকার বড় গেট। তিন তলাবিশিষ্ট এ মেগা প্যাভিলিয়নে   ক্রেতা-দর্শনার্থীদের সুবিধার্থে রয়েছে অত্যাধুনিক সুপরিসর লিফটের ব্যবস্থা।

 

দর্শনার্থীদের সাদর আমন্ত্রণ জানিয়ে প্যাভিলিয়নে প্রবেশের সুযোগ করে দিচ্ছেন ওয়ালটনের নিরাপত্তা কর্মীরা। এ প্যাভেলিয়নে ঢুকতেই সাক্ষাৎ হবে লাল রঙের শাড়ি পরা ওয়ালটনের একদল বিক্রয়কর্মীর। প্যাভেলিয়নের নিচতলায় প্রদর্শন করা ওয়ালটন ব্র্যান্ডের রেফ্রিজারেটর, ফ্রিজার, এলইডি টেলিভিশন, ওয়াশিং মেশিন, ইলেকট্রিক ও মাইক্রোওয়েব ওভেন, ইন্ডাকশন কুকার, ব্লেন্ডার, এলইডি বাল্ব, সুইচ, সকেট, রিচার্জেবল ব্যাটারি, জেনারেটরসহ চার শতাধিক মডেলের বিশ্বমানসম্পন্ন ইলেক্ট্রনিক্স হোম অ্যাপ্লায়েন্সেস পণ্যের সামনে দাঁড়িয়ে তারা পণ্যের গুণাগুণের তথ্য দিচ্ছেন। একই ধরনের কোর্ট পরা পুরুষ কর্মীরাও একই কাজ করে চলেছেন।

 

এ ছাড়া ঢুকতেই চোখে পড়বে ৭৫ ও ৯৮ ইঞ্চির স্মার্ট টেলিভিশন। ক্রেতা-দর্শনার্থীরা এ টেলিভিশনটি দেখতে ও তথ্য নিতে মিস করছেন না।

 

প্যাভেলিয়নের দ্বিতীয় তলায় উঠতেই পাশে রয়েছে সেলফি কর্নার। সেখানে সেলফি তুলছেন তরুণ-তরুণীরা। দ্বিতীয় তলায় রয়েছে ওয়ালটন ব্র্যান্ডের আকর্ষণীয় ডিজাইনের ল্যাপটপ, এসি, এন্ড্রয়েড স্মার্টফোন ও জেনারেটর। এছাড়া রয়েছে হেল্প ডেস্ক, করপোরেট সেল, ই-প্লাজা ও এক্সপোর্ট ডেস্ক। ক্রেতা-দর্শনাথীরা এখানেও বিক্রয় কর্মীদের কাছ থেকে সব ধরনের তথ্য পাচ্ছেন।

 

 

জুবায়ের নামে ওয়ালটনের এক কর্মকর্তা জানান, প্যাভেলিয়নে ক্রেতা-দর্শনাথীদের ভিড় যেন মিলন মেলা। মেলা শুরু হয়েছে মাত্র তিন দিন হলো। কিন্তু ক্রেতা-দর্শনার্থীর এমন ভিড় সব সময় লেগেই আছে। দর্শনার্থীরা কেউ পণ্য দেখছেন, কেউবা সেলফি তুলতে ব্যস্ত।

 

তিনি আরো বলেন, এবারের মেলায় অত্যাধুনিক প্রযুক্তিতে তৈরি আকর্ষণীয় ডিজাইন ও মডেলের সর্বোচ্চ সংখ্যক ইলেকট্রনিক্স ও ইলেকট্রিক্যাল পণ্য প্রদর্শন করছে ওয়ালটন। মেলায় আসা প্রায় সব শ্রেণির মানুষ অন্তত একবার হলেও ওয়ালটন প্যাভিলিয়নে আসছেন। ফলে এখানে ভিড় সবচেয়ে বেশি। ক্রেতারা যাতে এক জায়গাতেই তাদের দরকারি সব ইলেকট্রনিক্স ও ইলেকট্রিক্যাল পণ্য পান সেজন্যই সর্বোচ্চ সংখ্যক পণ্য নিয়ে এসেছে ওয়ালটন।

 

জুঁই নামে এক কর্মী জানান, বড় প্যাভিলনের কারণে ক্রেতা-দর্শনাথীরা প্রথমেই আমাদের এখানে ভিড় করছেন। আমরা মেলা উপলক্ষে সর্বোচ্চ ২০ শতাংশ ছাড় দিচ্ছি। অনলাইনের মাধ্যমে আরো ২ শতাংশ বেশি ছাড় দেওয়া হচ্ছে।

 

মায়ের সঙ্গে মেলায় ঘুরতে এসেছে নাহিদ (১২)। নাহিদ এ প্রতিবেদককে বলে, ‘আমি মেলা দেখতে এসেছি। রাস্তা থেকে মেলায় তাকিয়ে দেখি বড় একটি স্টল। উপরে লেখা ওয়ালটন। তাই গেট দিয়ে ঢুকেই এ প্যাভিলিয়নে এসেছি।’

 

কেমন লেগেছে জানতে চাইলে নাহিদ জানায়, খুব ভাল লেগেছে। অনেক বড় স্পেস তাই পুরোটা ঘুরতে পেরেছি। এখানে নতুন ধরনের একটা টেলিভিশন রয়েছে। এতে হাত দিয়ে আমার নাম লিখেছি। টাচ করে সব কিছু করা যায়। টেলিভিশনের সঙ্গে একটি সেলফিও তুলেছি।

 

আক্তারুজ্জামান নামে ওয়ালটনের এক কর্মকর্তা জানান, নতুন এ টেলিভিশন সবার দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে। টেলিভিশনটি যেমন বড় তেমনি এটি টাচ স্ক্রিন। স্কুল-কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় বা কোনো প্রতিষ্ঠানে প্রজেক্টর হিসেবে ব্যবহার করা যাবে এ টেলিভিশন ।

 

 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/৩ জানুয়ারি ২০১৭/শারমিনা/মুশফিক

Walton