ঢাকা, রবিবার, ৯ আশ্বিন ১৪২৪, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

দ্বিতীয় সাবমেরিন ক্যাবলের উদ্বোধন

বিলাস দাস : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-০৯-১০ ৬:০১:১৭ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৯-১০ ৭:২৯:২৩ পিএম

পটুয়াখালী প্রতিনিধি : পটুয়াখালীর সাগর কন্যা কুয়াকাটায় নবর্নিমিত ও বহুল প্রতীক্ষিত দেশের দ্বিতীয় সাবমেরিন ক্যাবল ল্যান্ডিং স্টেশনসহ পাঁচ প্রকল্প উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রোববার বেলা পৌনে ১১টার দিকে ভিডিও কসফারেন্সেরের মাধ্যমে গণভবন থেকে সরাসরি এ প্রকল্পের শুভ উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী।  

বাকি প্রকল্পগুলো হলো- পটুয়াখালীর নবসৃষ্ট রাঙ্গাবালী উপজেলা পরিষদ কমপ্লেক্স ভবন, পটুয়াখালী-কুয়াকাটার সড়কের কলাপাড়া উপজেলার টিয়াখালী নদীর ওপর নির্মিত ১৭৫ মিটার পিসি গার্ডার ব্রিজ, কলাপাড়া উপজেলার প্রশাসনিক সম্প্রসারণ ও হল রুম র্নিমাণ এবং বাংলাদেশ সিইএ-এমই-ডব্লিউ-৫ সাবমেরিন ক্যাবেল সিস্টেম।

আঞ্চলিক সাবমেরিন টেলি কমিউনিকেশন প্রজেক্ট’র প্রকল্প পরিচালক পারভেজ মনন আশরাফ জানান, বর্তমান সরকার দেশের ক্রমবর্ধমান গ্রাহকদের ইন্টারনেট সুবিধা এবং উচ্চগতি সম্পন্ন ব্যান্ডউইথ সেবা দিতে কুয়াকাটার মাইটভাঙ্গা গ্রামে ২০১৩ সালে ১০ একর জমির উপর ৬৬০ কোটি টাকা ব্যয়ে দ্বিতীয় সাবমেরিন কেবল ল্যান্ডিং স্টেশন র্নিমাণ কাজ শুরু করে। তথ্য-প্রযুক্তির মহাসড়কে যুক্ত হতে ২০১৪ সালের মার্চ মাসে মালয়েশিয়া কেন্দ্রিক সি-মি-ইউ-৫ কনসোর্টিয়ামে যুক্ত হয় বাংলাদেশ। সমুদ্র তলদেশের ২৫ হাজার কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে ২০১৬ সালের ২৫ অক্টোবর কুয়াকাটায় দেশের দ্বিতীয় সাবমেরিন কেবল ল্যান্ডিং স্টেশনে সংযোগ স্থাপিত হয়। প্রথম সাবমেরিন কেবলের চেয়ে প্রায় আট গুণ ক্ষমতাসম্পন্ন দ্বিতীয় সাবমেরিন কেবলটির পরীক্ষামূলকভাবে সংযোগ চালু হয় চলতি বছর ২১ ফেব্রুয়ারি।

উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে এ সাবমেরিন ক্যাবল দেশের টেলিযোগাযোগ খাতে বিপ্লব ঘটাবে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। দেশের চাহিদা মিটিয়ে উদ্বৃত্ত ব্যান্ডউইডথ বিদেশেও রপ্তানি করা সম্ভব হবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

বাংলাদেশ সাবমেরিন ক্যাবল কোম্পানি লিমিটেডের (বিএসসিসিএল) ব্যবস্থাপনা পরিচালক মনোয়ার হোসেন বলেন, ‘উদ্বোধনের দিন থেকে ২০০ জিবিপিএস (গিগাবাইট পার সেকেন্ড) ব্যান্ডউইথ এবং পর্যায়ক্রমে তা ১ হাজার ৫০০ জিবিপিএসে উন্নীত হবে। ‘সি-মি-উই-৫ কনসোর্টিয়াম আমাদের ১ হাজার ৫০০ জিবিপিএস ব্যান্ডউইথ দিয়ে দিচ্ছে। কিন্তু আমাদের বাজার কতটা তৈরি, কতটুকু প্রয়োজন- এসব আগে জানতে হবে। বাজারে যদি ব্যান্ডউইথের চাহিদা না থাকে তাহলে বেশি নিয়ে আমরা কী করব?’

বাংলাদেশ সাবমেরিন কেবল কোম্পানি লিমিটেডের (বিএসসিসিএল) জেনারেল ম্যানেজার মশিউর রহমান বলেন, প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে এ স্টেশনটি আইটি সেক্টরে বিশাল উন্নয়ন সাধন হবে। বিশেষ করে বরিশাল ও খুলনা বিভাগের জনগণ তুলনামূলক কম খরচে ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারবে। আগামীতে দেশ ফোরজি, ফাইভজির দিকে ধাবিত হবে।

এ সময় কুয়াকাটায় ভিডিও কনফারেন্সে উপস্থিত ছিলেন সংসদ সদস্য আলহাজ মাহবুবুর রহমান তালুকদার, সাবেক প্রতিমন্ত্রী শাহজাহান মিয়া, ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের সচিব শ্যাম সুন্দর সিকদার, বিভাগীয় কমিশনার শহিদ উজ্জামান, বরিশাল রেঞ্জ পুলিশের ডিআইজি মো. সফিকুল ইসলাম প্রমুখ।

‘সি-মি-উই-৫’ হলো দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া-মিডল ইস্ট-ওয়েস্টার্ন ইউরোপ-৫-এর সংক্ষিপ্ত রূপ। এ কনসোর্টিয়ামে রয়েছে মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া, থাইল্যান্ড, মিয়ানমার, বাংলাদেশ, ভারত, শ্রীলঙ্কা, পাকিস্তান, সংযুক্ত আরব আমিরাত, ওমান, জিবুতি, ইয়েমেন, সৌদি আরব, মিশর, ইতালি ও ফ্রান্স।  ২১ ফ্রেব্রুয়ারি তুরস্কের ইস্তাম্বুলে কনসোর্টিয়ামের উদ্বোধন হয়। গত ১৬ জানুয়ারি হাওয়াইয়ের হনুলুলুতে ২০ হাজার কিলোমিটার দীর্ঘ এবং ২৪ টেরাবাইট পার সেকেন্ড (টিবি/এস) গতির এই সি-মি-উই-৫ প্রকল্পের উদ্বোধন করা হয়। এ কনসোর্টিয়ামে যুক্ত রয়েছে বাংলাদেশসহ ১৭টি দেশ এবং এই ক্যাবলের ল্যান্ডিং পয়েন্ট ১৮টি।

 

 

 

 

রাইজিংবিডি/পটুয়াখালী/১০ সেপ্টেম্বর ২০১৭/বিলাস দাস/বকুল

Walton Laptop