ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ২৩ নভেম্বর ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

প্রান্তিকে সুফল বার্তা পৌঁছাতে উন্নয়ন মেলায় বিমা

আশরাফ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-০১-১১ ১২:১৫:০২ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০১-১২ ৮:৫৪:০১ পিএম

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক : দেশের সকল জেলা ও উপজেলা এবং প্রান্তিক পর্যায়ে সুফল বার্তা পৌঁছাতে সরকারের উন্নয়ন মেলায় অংশ নিচ্ছে বিমা শিল্পের সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ।

‘উন্নয়নের জন্য গণতন্ত্র- শেখ হাসিনার মূলমন্ত্র’ স্লোগানে সারা দেশে চলছে তিন দিনব্যাপী উন্নয়ন মেলা। ২০২১ সালের মধ্যে ‘ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশ’ এবং ২০৪১ সালের মধ্যে ‘উন্নত বাংলাদেশ’ গঠনে সরকারের উন্নয়ন কার্যক্রম জনসাধারণের সামনে তুলে ধরা হচ্ছে এ মেলায়। এর অংশ হিসেবে বিমাখাতের অগ্রগতি ও উন্নয়নের সার্বিক চিত্র তুলে ধরতে সারা দেশে উন্নয়ন মেলায় অংশ নিয়েছে প্রতিষ্ঠানগুলো।

বিমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (আইডিআরএ) সূত্রে জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের নির্দেশনায় দেশের সকল জেলা এবং উপজেলা পর্যায়ে অনুষ্ঠিত উন্নয়ন মেলায় বিমার সুফল বার্তা সকলের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নেতৃত্বে বিমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের উদ্যোগে সকল লাইফ ও ননলাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি উন্নয়ন মেলায় অংশ নিচ্ছে। উন্নয়ন মেলায় সারা দেশে অংশ নিচ্ছে দুটি বিমা করপোরেশন ও ৭৬টি বেসরকারি বিমা কোম্পানি।

এর ফলে বিমার সুফল বার্তা সাধারণ জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেওয়া সম্ভব হচ্ছে এবং সাধারণ জনগণের ব্যাপক সাড়া পাওয়া যাচ্ছে বলে জানিয়েছে বিমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের সেন্ট্রাল মনিটরিং বিভাগ।

জানা গেছে, বিমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ কর্তৃক গঠিত ‘কেন্দ্রীয় উন্নয়ন মেলা বাস্তবায়ন ও মনিটরিং কমিটি’র সিদ্ধান্তের প্রেক্ষিতে নিম্নোক্ত সেবাসমূহ উন্নয়ন মেলায় দেওয়া হচ্ছে। সেবাগুলো হলো- বিমা দাবি নিষ্পত্তি, বিভিন্ন পলিসি বিক্রি, বিবিধ বিমা প্রডাক্ট সম্পর্কে প্রচার, বিমা শিল্পের কর্মক্ষেত্র এবং চাকরি সংক্রান্ত তথ্য, বিমার উপকারিতা সম্পর্কে প্রভৃতি তথ্য।

বিমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ কর্তৃক উন্নয়ন মেলাতে সর্বসাধারণের মাঝে বার্ষিক ক্যালেন্ডার এবং এতে গ্রাহকদের পলিসি খোলার ক্ষেত্রে জ্ঞাতব্য বিষয়ে সচেতনতামূলক বার্তা বিনামূল্যে বিতরণ, বিমার উপকারিতা সম্পর্কে বিমার ইতিবাচক তথ্য প্রচার, বিমা শিল্পের সার্বিক চিত্রের ওপর ডকুমেন্টারি প্রচারসহ বিমার উপকারিতা এবং উন্নয়ন সম্পর্কে বিভিন্ন তথ্য প্রচার করা হচ্ছে।

বিমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের উদ্যোগে দেশের ৬৪ জেলা এবং প্রায় ২২০টি উপজেলায় অনুষ্ঠিত উন্নয়ন মেলায় বিভিন্ন বেসরকারি বিমা কোম্পানি অংশ নিচ্ছে।

এ ছাড়া সাধারণ বিমা করপোরেশন তাদের প্রায় ৬৪ জেলা ও উপজেলায় প্রায় ৮৪টি ব্রাঞ্চ এবং সাব-ব্রাঞ্চের মাধ্যমে উন্নয়ন মেলায় অংশ নিচ্ছে এবং বিমা দাবি নিষ্পত্তি, বিমার সুফল সম্পর্কে সচেতনতার তথ্য প্রদানসহ বিভিন্ন বিমা পলিসি খোলার জন্য জনগণকে অনুপ্রাণিত করছে। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে- পার্সোনাল এক্সিডেন্ট বিমা পলিসিটি মাত্র ৬৯ টাকা প্রিমিয়াম দিয়ে ১ লাখ টাকা পর্যন্ত বিমা কাভারেজ পাচ্ছে উন্নয়ন মেলায়।

এদিকে জীবন বীমা করপোরেশন জানিয়েছে, তারা দেশের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলায় ৩৯টি স্টল নিয়ে উন্নয়ন মেলায় অংশগ্রহণ করেছে। মেলায় তারা ডিজিটাল বিবিধ সেবা প্রদান করছে। পাশাপাশি নতুন পলিসি খোলা, মেলা প্রাঙ্গনে ডিজিটাল সুবিধার মাধ্যমে বিমা পলিসির বিবিধ তথ্য গ্রাহকরা জানতে পারছেন। এ উন্নয়ন মেলায় অংশগ্রহণের ফলে দেশের চলমান উন্নয়ন সাফল্যকে জনগণের সামনে তুলে ধরা সম্ভব হবে। রূপকল্প ২০২১ ও ২০৪১ উন্নত বাংলাদেশের প্রস্তাবনা সম্পর্কে জানতে পারছে এবং বাস্তবায়নে সঙ্গে জনগণ সম্পৃক্ত হচ্ছে।

আজ বিকেল ৩টায় মেলার সমাপনী হবে।

 

 

 

 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/১১ জানুয়ারি ২০১৭/আশরাফ/হাসান/সাইফুল

Walton
 
   
Marcel