ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২৩ মে ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

রামু হামলার ৬ বছর

সুজাউদ্দিন রুবেল : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৮-০৯-২৯ ৩:৩২:৩২ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-১০-১৯ ৪:১৮:৫৩ পিএম
Walton AC

কক্সবাজার প্রতিনিধি: রামুতে বৌদ্ধ বিহারে হামলার ৬ বছর পূর্ণ হলো আজ। রামুতে অতীতের মত সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ফিরেছে বলে জানালেন স্থানীয় বৌদ্ধ ধর্মীয় নেতা ও অনুসারীরা।

২০১২ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর উত্তম বড়ুয়া নামের এক যুবকের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ধর্মীয় অবমাননাকর একটি ছবি দেওয়াকে কেন্দ্র করে রামুর বৌদ্ধ বিহারগুলোতে অগ্নিসংযোগ এবং বসতিতে হামলা করা হয়। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির তীর্থ হিসেবে পরিচিত রামুতে এ সহিংস ঘটনা দেশে-বিদেশে ব্যাপক সমালোচনার জন্ম দেয়।

সহিংসতা পরবর্তী সরকারের যথাযথ উদ্যোগের ফলে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত বিহারগুলো নতুন করে নির্মাণ করা হয়। নির্মিত এসব বিহারগুলোতে এখন বৌদ্ধ সম্প্রদায় নির্বিঘ্নে উপাসনা ও ধর্মীয় সকল কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। আবার দৃষ্টিনন্দন হওয়ায় রামুর বিহারগুলো দেখতে প্রতিদিন শত শত পর্যটক ভিড় জমাচ্ছেন।

রামু সহিংসতার ৬ষ্ঠ বার্ষিকী উপলক্ষ্যে রামুতে বৌদ্ধ যুব পরিষদ এর উদ্যোগে দিনব্যাপী কর্মসূচি পালন করা হবে । কর্মসূচির মধ্যে বিকালে শ্রীকুল গ্রামের লাল চিং-সাদা চিং মৈত্রী বিহার কমপ্লেক্সে অনুষ্ঠিত হবে স্মৃতিচারণ, হাজার প্রদীপ প্রজ্জ্বলন। এছাড়া বিভিন্ন বিহারে পালন করা হবে ধর্মীয় কর্মসূচি।

রামু কেন্দ্রীয় সীমা মহাবিহারের সহকারি পরিচালক প্রজ্ঞানন্দ ভিক্ষু বলেন, ‘সেদিনের ভয়াবহতা বৌদ্ধ জনগোষ্ঠিকে এখনো তাড়িয়ে বেড়ায়। তবে বর্তমানে রামুতে সব ধর্মের মানুষ অতীতের মত শান্তি ও সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশে বসবাস করছে।’

কক্সবাজার পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন জানিয়েছেন, সহিংস ঘটনায় দায়ের করা মামলাগুলো বর্তমানে বিচারাধীন রয়েছে। তবে বিজ্ঞ আদালতে স্বাক্ষীরা না আসায় কয়েকটি মামলার কার্যক্রম তেমন এগুচ্ছে না। এ ব্যাপারে পুলিশের পক্ষ থেকে সকল প্রকার সহযোগিতা দেওয়া হবে। এছাড়া বৌদ্ধ বিহারগুলোতে পুলিশের পক্ষ থেকে নিরাপত্তামুলক ব্যবস্থা কার্যকর রয়েছে।

 

 

 

 

রাইজিংবিডি/কক্সবাজার/২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮/সুজাউদ্দিন রুবেল/টিপু

Walton Laptop
     
Walton AC
Marcel Fridge