ঢাকা, শুক্রবার, ৭ মাঘ ১৪২৩, ২০ জানুয়ারি ২০১৭
Risingbd
 
সর্বশেষ:

সরকারকে রিজভীর হুঁশিয়ারি

রেজা পারভেজ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-০১-১১ ২:০২:২৪ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০১-১১ ২:৪২:৪২ পিএম

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক : রাজধানীতে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল সমাবেশ করলেও এক্ষেত্রে বিএনপিকে অনুমতি না দেওয়ায় সরকারকে কড়া হুঁশিয়ারি দিয়েছেন দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

তিনি বলেন, ভবিষ্যতে সমাবেশ করার জন্য অনুমতির জন্য অপেক্ষা করবে না তার দল। সমাবেশের জন্য সোহরাওয়ার্দী উদ্যান কেড়ে নেওয়া হবে।

বুধবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এক মানববন্ধন কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে তিনি এই হুঁশিয়ারি দেন।

‘গণতন্ত্র হত্যা দিবস’ উপলক্ষে কর্মসূচি পালনকালে বরিশাল মহানগর বিএনপির কার্যালয়ে জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের নেতা-কর্মীদের ওপর হামলার প্রতিবাদে এই মানববন্ধনের আয়োজন করে সংগঠনটি।

দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন বর্জন করা বিএনপি দিনটিকে ‘গণতন্ত্র হত্যা দিবস’ পালনের ডাক দিয়ে এর দুদিন পর ৭ জানুয়ারি রাজধানীর সোহরাওয়ার্দীতে সমাবেশের কর্মসূচি দেয়। তবে শেষ পর্যন্ত সমাবেশের অনুমতি পায়নি দলটি। যদিও সেখানে জাতীয় পার্টি এবং আওয়ামী লীগ সমাবেশ করেছে।

সমাবেশ করার অনুমতি না দিয়ে সরকার একটি রাজনৈতিক দল হিসেবে বিএনপিকে সাংবিধানিক অধিকার থেকে বঞ্চিত করেছে বলে মন্তব্য করছেন বিএনপি নেতারা।

মানবন্ধনে রিজভী বলেন, ‘আমরা সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশ করার জন্য পুলিশের কাছে বার বার আবেদন করেছি, কিন্তু আমাদের দেওয়া হয়নি। অন্যদিকে সমাবেশের অনুমতি দেওয়া হয়েছে এরশাদের মতো স্বৈরাচারকে। তাই ভবিষ্যতে সমাবেশ করার জন্য বিএনপি পুলিশের অনুমতির অপেক্ষা করবে না। সোহরাওয়ার্দী উদ্যান কেড়ে নেওয়া হবে।’

বর্তমান সরকারের শামনকালে প্রকৃত অপরাধীরা সব সময় প্রশ্রয় পেয়ে যাচ্ছে অভিযোগ করে বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘এ কারণে তনু, মিতু, সাগর-রুনীসহ কোনো হত্যাকাণ্ডের বিচার হচ্ছে না।’

আয়োজক সংগঠনের সিনিয়র সহ-সভাপতি নূরজাহান ইয়াসমিনের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে আরো বক্তব্য রাখেন জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক সুলতানা আহমেদ, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক হেলেন জেরিন খান প্রমুখ।

 

 

 

 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/১১ জানুয়ারি ২০১৭/রেজা/ইভা