ঢাকা, শুক্রবার, ১০ ফাল্গুন ১৪২৫, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

স্বাস্থ্যপ্রতিমন্ত্রীর সামনে নির্মাণ কাজে অনিয়মের অভিযোগ

সেলিম আব্বাস : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৯-০২-০২ ৮:২৫:২২ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০২-০২ ৮:২৫:২২ পিএম

জামালপুর সংবাদদাতা : জামালপুরে শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল নির্মাণ কাজে ঠিকাদারের অনিয়ম-দুর্নীতি নিয়ে স্বাস্থ্যপ্রতিমন্ত্রীর ডা. মুরাদ হাসানের সামনে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য মির্জা আজম।

শহরের মনিরাজপুর এলাকায় শনিবার দুপুরে শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজের নবনির্মিত ছাত্রাবাস উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যের সময় এই অভিযোগ করেন মির্জা আজম।

তিনি বলেন, ‘‘নির্মাণাধীন মেডিকেল কলেজ পরিদর্শনে গিয়ে নিম্নমানের কাজ হাতেনাতে ধরেছি, কিন্তু সেই কাজ চলমান রয়েছে। ঢালাইয়ে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান সিমেন্টের পরিমাণের তুলনায় বালু বেশি ব্যবহার করেছে। নিম্নমানের কাজ নিয়ে গণপূর্তের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ বরাবরে লিখিত অভিযোগ দিলেও পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি।’’

প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্বাস্থ্যপ্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, ‘‘আমি নতুন, অত কিছু জানি না। সবই জানেন আমার বড় ভাই মির্জা আজম। যথাযথ ব্যবস্থার মাধ্যমে টেকসই কাজ ও দ্রুততম সময়ে সম্পন্ন না হলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’’

জামালপুর শহরের নতুন বাইপাস সড়কের পাশে মনিরাজপুর এলাকায় ৩০ একর জমিতে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অধীনে ৪৫৬ কোটি ৭২ লাখ টাকা ব্যয়ে শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ ও ৫০০ আসন বিশিষ্ট হাসপাতাল নির্মাণ করা হচ্ছে।

পাঁচটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ২০১৭ সালের আগস্ট থেকে বিভিন্ন অবকাঠামো নির্মাণ কাজ শুরু করেছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০১৫ সালের ১০ জানুয়ারি এর উদ্বোধন করেন এবং ২০১৭ সালের ১০ নভেম্বর তৎকালীন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মো. নাসিম এই প্রকল্পের আনুষ্ঠানিক ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।

প্রকল্পের শর্ত অনুযায়ী, ২০১৯ সালের জুন মাসের মধ্যে এর সবগুলো অবকাঠামো নির্মাণ কাজ শেষ হওয়ার কথা রয়েছে।



রাইজিংবিডি/জামালপুর/২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯/সেলিম আব্বাস/বকুল

Walton Laptop
 
     
Marcel
Walton AC