ঢাকা, শনিবার, ৪ ফাল্গুন ১৪২৫, ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

৪ মামলার চার্জশিট অনুমোদন দিয়েছে দুদক

এম এ রহমান : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৯-০১-০১ ৮:২৬:৪৭ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০২-০৪ ৬:২৬:৫৫ পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক : দুর্নীতির আশ্রয় নিয়ে ওরিয়েন্টাল ব্যাংক  ও  মার্কেন্টাইল ব্যাংক  থেকে প্রায় ৪৮ কোটি টাকা, শিক্ষা  প্রকৌশল অধিদপ্তর থেকে প্রায় ৭৫ লাখ টাকা  আত্মসাত এবং মন্দিরের সম্পত্তি হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে দায়েরকৃত পৃথক তিন মামলায় চার্জশিট অনুমোদন দিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

মঙ্গলবার দুদকের প্রধান কার্যালয়ে কমিশন থেকে ওই চার্জশিট অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রনব কুমার ভট্টাচার্য্য রাইজিংবিডিকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। 

দুদক জানায়, ওরিয়েন্টাল ব্যাংক লিমিটেডের (বর্তমানে আইসিবি ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড) মিরপুর রোড শাখা  থেকে ২ কোটি ৮০ লাখ  টাকা জালিয়াতির মাধ্যমে আত্মসাতের অভিযোগে ব্যাংকটির মিরপুর রোড শাখার প্রাক্তন ব্যবস্থাপক এ জেড এম সালেহ, একই ব্যাংকের প্রাক্তন এভিপি (অ্যাসিস্ট্যান্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট) শেখ শাহরুক আহমেদ, ব্যাংকটির প্রাক্তন ডিএমডি মো. ইমামুল হক, প্রাক্তন এভিপি মাহমুদ হোসেন এবং আরব বাংলাদেশ ব্যাংক লিমিটেডের কাকরাইল শাখার প্রাক্তন উপ-ব্যবস্থাপক মোক্তাদির বিল্লাহর বিরুদ্ধে ২০১৬ সালের ১৫ জুন রাজধানী নিউমার্কেট (ডিএমপি) থানায় দায়েরকৃত মামলার চার্জশিট অনুমোদন দিয়েছে কমিশন। মামলাটির তদন্ত কর্মকর্তা দুদকের সহকারী পরিচালক মো. সালাউদ্দিন।

অন্যদিকে, ৪৪ কোটি ৯৯ লাখ ৯৮ হাজার ৫০০ টাকার উৎস গোপনের লক্ষ্যে জ্ঞাতসারে লেনদেন করে স্থানান্তর ও লেয়ারিং করে মানিলন্ডারিং তথা আত্মসাতের অভিযোগে মোহাম্মদ ইলিয়াস ব্রাদার্স (প্রাইভেট) লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ সামশুল আলম, মেরিন ভেজিটেবল অয়েলস লিমিটেডের চেয়ারম্যান টিপু সুলতান,  মেরিন ভেজিটেবল অয়েলস লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জহির আহমেদ, মার্কেন্টাইল ব্যাংক লিমিটেডের প্রাক্তন এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট  নন্দ দুলাল ভট্টাচার্য, চট্টগ্রাম আগ্রাবাদ শাখার ব্যবস্থাপক মেজবাহ উদ্দিন আহমেদ, প্রাক্তন ফার্স্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট এবং ব্যবস্থাপক (অপারেশন) মঈনুল কাদের চৌধুরী, শেখ মুজিব রোড শাখার ব্যবস্থাপক আনোয়ার হোসেন, প্রাক্তন শাখা ব্যবস্থাপক সরদার মোহাম্মদ জোবায়ের এবং মোহাম্মদ ইলিয়াস ব্রাদার্সের চেয়ারম্যান মো. নুরুল আবছারের রিরুদ্ধে  ২০১৮ সালের  ১১ এপ্রিল  ডবলমুরিং (চট্টগ্রাম) থানায় দায়েরকৃত মামলার চার্জশিট অনুমোদন করে দুদক। মামলাটির তদন্ত কর্মকর্তা দুদকের সহকারী পরিচালক মমিনুর রশীদ চৌধুরী।

শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের গোডাউন থেকে গায়েবকৃত ৩৬৭টি মোটরসাইকেল, যার বাজার মূল্য প্রায় ৭৫ লাখ ২৩ হাজার ৫০০ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে প্রাক্তন সহকারী প্রকৌশলী আক্তারুল  ইসলাম কায়েসের বিরুদ্ধে ২০১৬ সালের গত ২৯ জুন শাহবাগ (ডিএমপি) থানায়  দায়েরকৃত  মামলার চার্জশিট অনুমোদন দিয়েছে কমিশন। মামলাটির তদন্ত কর্মকর্তা দুদক প্রধান কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো.  আব্দুস সালাম আলী মোল্লা।

মন্দিরের দেবোত্তর সম্পত্তি আত্মসাতের অভিযোগে সাভারের কাতলাপুর গ্রামের জগন্নাথ বৈরাগীর বিরুদ্ধে সাভার থানায় দায়েরকৃত একটি মামলার চার্জশিট দাখিলের অনুমোদন দিয়েছে কমিশন। এই মামলাটির তদন্ত কর্মকর্তা দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয় ঢাকা-১ এর সহকারী পরিচালক নূর-ই-আলম।

 

 

 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/১ জানুয়ারি ২০১৯/এম এ রহমান/রফিক

Walton Laptop