ঢাকা, শনিবার, ৭ বৈশাখ ১৪২৬, ২০ এপ্রিল ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

নীলের মেলা যদি আজও রাঙাত

স্মৃতিরও (সম্ভবত) নির্বাচন করার সুযোগ থাকে। সেই সুযোগে হিসেব করে নেয়, কতটুকু মনে রাখবে আর কোনটুকু বাতিল করে দেবে।

যূথচারী আঁধারের গাঢ় নিরুদ্দেশে || অভিজিৎ মুখার্জি

আপিস কাছারিতে ভারতের সর্বত্র পশ্চিমী গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডারই ব্যবহার হয়। যথেষ্ট প্রত্যক্ষ অভিজ্ঞতা না থাকলেও, অনুমান করছি বাংলাদেশেও সেটাই হয়, নইলে ভাষাদিবস ‘একুশে ফেব্রুয়ারি’ বলে চিহ্নিত হতো না।

আমাদের আর্ট কলেজ, আমাদের মঙ্গল শোভাযাত্রা

১৯৭৬ সালে আমি ঢাকা আর্ট কলেজে (বর্তমানে চারুকলা অনুষদ) ভর্তি হই; বঙ্গবন্ধু হত্যার এক বছর পর।

বোশেখ এলো

তিনি এসে গেছেন রাঙা চক্ষু নিয়ে। তিনি এসে গেছেন রাগী মুখখানি নিয়ে। বৈশাখ মাস। কবির জন্ম মাস। কবিই তাকে ডেকে এনেছেন- এসো হে বৈশাখ, এসো এসো।

ব্যক্তিগত বৈশাখ

এক
বাংলা নববর্ষ বা পহেলা বৈশাখের কোনো স্পষ্ট চেহারা আমার ভাবনায় দীর্ঘকাল ছিল না। বৈশাখ মাসের প্রথম দিন, নতুন বছরের আরম্ভ, একটি বিশেষ দিন এবং এই দিন উদযাপনের তাৎপর্য- ইত্যাকার তত্ত্ব আমার চিন্তায় কখন আশ্রয় নিয়েছে ঠিক জানি না।

গোয়েন্দা গল্প || প্রাক-বৈশাখে গোয়েন্দা অলোকেশ

|| অরুণ কুমার বিশ্বাস ||

সাত সকালে প্রাইভেট ডিটেকটিভ অলোকেশের ডেরায় সুকেশা সুবেশা একজন এসে হাজির। না না, ইনি কোনো মামুলি মক্কেল নন, ইনি তার বিশেষ সহযোগী, বন্ধুও বটে।

ছোটগল্প || ছায়াসঙ্গী

|| হাসান মোস্তাফিজুর রহমান ||

ঘুম ভেঙে গেলেও চোখ বুজে পড়ে আছি। উঠতে ইচ্ছে করছে না। শরীরজুড়ে আরাম আরাম একটা অনুভূতি। ওষুধগুলো দারুণ কাজ করছে! একঘুমে রাত পার। খুটখাট শব্দ ভেসে আসছে রান্নাঘর থেকে।

যে বই দূর করবে ‘মৃত্যুভয়’

অঞ্জন আচার্য : আমাদের জীবন এবং পার্থিব অস্তিত্বের প্রারম্ভ জন্ম দিয়ে এবং এর অনিবার্য সমাপ্তি মৃত্যুতে।

ফ্রানৎস কাফকার চারটি অণুগল্প

অনুবাদ: ফজল হাসান
[বিশ্ব সাহিত্যে যেসব কথাসাহিত্যিক অণুগল্প বা ফ্লাশ ফিকশন লিখে কিংবদন্তি হয়েছেন, তাদের মধ্যে ফ্রানৎস  কাফকা অন্যতম ।

জন্মদাগ ।। মোজাফ্‌ফর হোসেন

পুঙার কাপুড় তোল তো, দেখি। নানি বলে। ক্যাথরিন বিস্ময় নিয়ে তাকিয়ে থাকে।

পুঙার কাপুড় তোল তো, দেখি। নানি ফের বলে। আমরা যতক্ষণ সামনে থাকব বলেই যাব।  

   

নাদিয়া মুরাদের নোবেল বক্তৃতা

নাদিয়া মুরাদ ইরাকের ইয়াজিদি মানবাধিকারকর্মী এবং নোবেলজয়ী নারী, যিনি মাত্র ২১ বছর বয়সেই প্রত্যক্ষ করেছেন জীবনের কুৎসিত বীভৎস রূপ

শহীদুল জহিরের সঙ্গে

আমি কখনো আখতারুজ্জামান ইলিয়াসের দেখা পাইনি। তবু সাহিত্যজ্ঞান হওয়ার পর থেকে তাকে শিক্ষক গণ্য করতাম।

জীবন ও রাজনৈতিক বাস্তবতা এবং অস্তিত্ববাদ

 

দস্তয়ভস্কির ছোট্ট উপন্যাস ‘নোটস ফ্রম আন্ডারগ্রাউন্ড’(১৮৬৪)-এ দেখতে পাই এক অজ্ঞাতনামা লোক সমাজে নিজেকে মানাতে পারছে না। অস্তিত্ব নিয়ে সংকটে ভুগছে সে।

মধ্যবিত্তের প্রপাগান্ডা অথবা ঘোড়ার ডিমের গল্প


শ্রী রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ১৩১৪ বাংলায় কথকরাজা দক্ষিণারঞ্জন মিত্র মজুমদারের ‘ঠাকুর মা’র ঝুলি’ বহির ভূমিকায়

বাস্তবতার বিবিধ বয়ান : শহীদুল জহির


যাদু-বাস্তবতার শক্তিমান কারিগর শহীদুল জহির। একটি পরিস্থিতি উপস্থাপন করতে গিয়ে যৌক্তিক ও পরিণত শব্দ প্রয়োগে তিনি বিন্দুমাত্র ছাড় দেয়ার প্রবণতা দেখান না।