ঢাকা, শুক্রবার, ১০ ফাল্গুন ১৪২৫, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

‘লেখকের টাকায় বই প্রকাশ বন্ধ হওয়া উচিত’

প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান ভাষাচিত্রের স্বত্বাধিকারী খন্দকার মনিরুল ইসলাম। জ্ঞান ও সৃজনশীল প্রকাশক সমিতির অতিরিক্ত নির্বাহী পরিচালক পদে দায়িত্ব পালন করছেন।

বইমেলা নিয়ে আবারও পুরোনো কথা

ফেব্রুয়ারিই যেন একমাত্র মাস যখন বইয়ের মেলা আর বই নিয়ে কথা বলা যায়। বাকি এগারোটি মাস এ নিয়ে শীতঘুমে একবছর!

জীবনানন্দের জন্ম ও মৃত্যুভিটেয়

পিয়াস মজিদ : ২০০৮-এর শীতবেলা। জীবনানন্দ-পরবর্তী কবি সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়ের পিতৃভিটে মাদারীপুরের মাইজপাড়ায় গিয়েছিলাম বন্ধু সাব্বির আহমেদ সুবীর এবং আমি।

আল মাহমুদের প্রেমময় জীবন

|| সাখাওয়াত টিপু ||
ত্রিশের কবিদের হাতে বাংলা কবিতার আধুনিকতার উন্মেষ। কবি আল মাহমুদ (১৯৩৬-২০১৯) সেই সাফল্য মৌলিক শৈলীতে ধরে রেখেছিলেন আপন কাব্যসুষমায়।

কবির জন্যে অন্তরের ভালোবাসা চিরকাল

|| টোকন ঠাকুর ||
কবির বাসায় গেছি আগেও, পরেও, কিন্তু সেইদিন আর যাওয়া হলো না, আদতে গেলাম না। কিন্তু কেন?

শুধু মেলাকেন্দ্রিক প্রকাশনা কাম্য নয়

বাংলাদেশে গ্রন্থপ্রকাশনা অনেক বছর থেকেই মেলাকেন্দ্রিক বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। দুই একটি ব্যতিক্রম বাদ দিলে প্রায় সব প্রতিষ্ঠানই বছরের অন্য সময় কোনো বই প্রকাশ করে না।

বই-বইমেলা-বঙ্গদেশ

ভেবে গোপন আনন্দ অনুভব করি যে, একুশে বইমেলা আর আমার বয়স প্রায় সমান। দেখতে দেখতে আমাদের বয়স বেশ বেড়ে চলেছে।

বিদীর্ণ, রক্তাক্ত হয়ে কলম হাতে নিয়েছি

আমার প্রথম উপন্যাস ‘জলপুত্র’ ২০০৮ সালে অমর একুশে গ্রন্থমেলায় প্রকাশিত হয়; মাওলা ব্রাদার্স থেকে।

অপেক্ষা করছিলাম রিজিয়া রহমানের জন্য

স্বরলিপি: সন্ধ্যা নামার মুহূর্তে হাজির হলাম উত্তরা তিন নম্বর সেক্টরের এক বাড়িতে। গার্ড জানতে চাইলো কার কাছে যেতে চাই?

উজান স্রোতের সান্তিয়াগো

আঁখি সিদ্দিকা : মা’য়ের আলগোছ আদরে একটু একটু করে বেড়ে ওঠা আমি’র নতুন বইয়ের ভাঁজে তখনও কল্পনার ডানা।

বই ও বইমেলা নিয়ে কিছু বৈষয়িক কথাবার্তা

একসময় সারাবছর অপেক্ষা করে থাকতাম ফেব্রুয়ারির বইমেলার জন্য। প্রথম দিন থেকে শেষ দিন পর্যন্ত প্রতিদিন মেলায় যেতাম কোনো কারণ ছাড়াই।

“আমি বলি, ‘রয়ালিটি দাও পাণ্ডুলিপি নাও’’

একুশে গ্রন্থমেলা আমার কাছে সব সময় মৌসুমী ব্যাপার মনে হয়। এই ভাবনা আমাকে আনন্দ দেয় না।

‘আন্তর্জাতিক রাইট এজেন্টদের জন্য প্যাভেলিয়ন দরকার’

কামরুল হাসান শায়ক দেশের আধুনিক প্রকাশনা শিল্পের অন্যতম ব্যক্তিত্ব। প্রকাশনা শিল্প এগিয়ে নিতে, বাংলা বই বিশ্ববাসীর কাছে পৌঁছে দিতে তিনি ভূমিকা রেখে চলেছেন।

ক্রমশ ধূসরতা


বইমেলা এমন এক স্মৃতির অংশ যা প্রতিবছর ফিরে এসে স্মৃতিতন্তুতে যোগ করে নতুন সিকোয়েন্স।

ও বাসন্তী! তোমারই অপেক্ষায়

|| হামিম কামাল ||

ক’দিন পরেই একুশে গ্রন্থমেলা শুরু হতে যাচ্ছে। আমি জানি, এই ভেবে আমার মতো আরো অনেকেরই বুকের ভেতর বসন্ত ঋতু হাওয়া দিতে শুরু করেছে।