ঢাকা, রবিবার, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ২৭ মে ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

শেখ জামালের জয়

আমিনুল ইসলাম : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৮-০২-১১ ৬:৩৫:৫১ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০২-১১ ৬:৪০:৪৫ পিএম
তানবির হায়দারের হাতে ম্যাচসেরার পুরস্কার তুলে দিচ্ছেন ওয়ালটন গ্রুপের সিনিয়র অপারেটিভ ডিরেক্টর উদয় হাকিম (ছবি : জনি সোম)

ক্রীড়া ডেস্ক : ওয়ালটন ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগের দ্বিতীয় রাউন্ডে জয় পেয়েছে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। আজ রোববার তারা ২৮ রানে হারিয়েছে অগ্রণী ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাবকে। বিকেএসপির ৪ নম্বর মাঠে শেখ জামাল প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ৯ উইকেট হারিয়ে ২৯৪ রান সংগ্রহ করে। জবাবে ৪৯.১ ওভারে সবকটি উইকেট হারিয়ে অগ্রণী ব্যাংক থামে ২৬৬ রানে।

২৯৫ রানের জয়ের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ৩৭ রানেই প্রথম উইকেট হারায় অগ্রণী ব্যাংক। উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান সৌম্য সরকার ২২ রান করে ফিরে যান। ৪৫ রানের মাথায় সাজঘরে ফেরেন আরেক উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান আজমীর আহমেদ। যাওয়ার আগে ১৫টি রান করেন তিনি। দলীয় ৮৩ রানে ব্যক্তিগত ২১ রানে শাহরিয়ার নাফীস আউট হওয়ার পর জুটি বাঁধেন রাফাতুল্লাহ মোহমান্দ ও ধীমান ঘোষ। চতুর্থ উইকেটে তারা দুজন ৬২ রানের জুটি গড়ে জয়ের সম্ভাবনা জাগিয়ে তোলেন। কিন্তু ১৪৫ রানে চতুর্থ, ১৬৭ রানের পঞ্চম ও ১৭৮ রানে ষষ্ঠ উইকেট হারিয়ে বিপাকে পরে যায় নবাগত অগ্রণী ব্যাংক। রাফাতুল্লাহ ৪৩, ধীমান ঘোষ ৪৮ ও সালমান হোসেন ৮ রান করে আউট হন।

 



সপ্তম উইকেটে ৩৪ রানের জুটি গড়ে জাহিদ জাভেদ ও আব্দুর রাজ্জাক কিছুটা প্রতিরোধ গড়েন। কিন্তু ২১২ রানে রাজ্জাক (২৪) ও ২১৬ রানে অষ্টম ব্যাটসম্যান হিসেবে জাভেদ (১৯) আউট হয়ে ব্যাকফুটে ঠেলে দেন দলকে। ২৩৭ রানের মাথায় নবম উইকেট হারায় অগ্রণী ব্যাংক। এ সময় আউট হন শাহাবাজ চৌহান। শেষ উইকেটে আল-আমিন হোসেনকে সঙ্গে নিয়ে অসাধ্য সাধনের চেষ্টা করেন সোহরাওয়ার্দী শুভ। ওয়ান ম্যান আর্মি হয়ে তিনি ৩১ বলে ১ চার ও ৩ ছক্কায় ৪৪ রানের ইনিংস খেলেন। কিন্তু দলীয় ২৬৬ রানের মাথায় শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে নাজমুল ইসলামের তৃতীয় শিকারে পরিণত হয়ে সাজঘরে ফেরেন শুভ। এর মধ্য দিয়ে ২৬৬ রানে অলআউট হয়ে যায় অগ্রণী ব্যাংক।

বল হাতে শেখ জামালের নাজমুল ইসলাম ও ইলিয়াস সানী ৩টি করে উইকেট নেন। ২টি উইকেট নেন সোহাগ গাজী। ১টি করে উইকেট নেন আবু জায়েদ ও জিয়াউর রহমান।

তার আগে তানবির হায়দারের ৭১, দ্বিগবিজয় রাঙ্গির ৫৮, সৈকত আলীর ৪৩, ইলিয়াস সানীর ৪০ ও নুরুল হাসান সোহানের ৩৬ রানে ভর করে ৫০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ২৯৪ রানের বড় সংগ্রহ পায় শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব।

 



বল হাতে অগ্রণী ব্যাংকের শফিউল ইসলাম ৪টি, আব্দুর রাজ্জাক ও সৌম্য সরকার ২টি করে উইকেট নেন। ১টি উইকেট নেন আল-আমিন হোসেন।

বল হাতে উইকেট না পেলেও ব্যাট হাতে ৭১ রানের অনবদ্য ইনিংস খেলে ম্যাচসেরা হন শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবের তানবির হায়দার। তার হাতে ম্যাচসেরার পুরস্কার তুলে দেন ওয়ালটন গ্রুপের সিনিয়র অপারেটিভ ডিরেক্টর (ক্রিয়েটিভ এন্ড পাবলিকেশন) উদয় হাকিম।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮/আমিনুল

Walton Laptop
 
   
Walton AC