ঢাকা, শনিবার, ১২ ফাল্গুন ১৪২৪, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮
Risingbd
অমর একুশে
সর্বশেষ:

বৃথা গেল জহুরুলের সেঞ্চুরি, খেলাঘরের প্রথম জয়

আমিনুল ইসলাম : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৮-০২-১৩ ৬:১২:০২ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০২-১৩ ৬:৩৭:০৫ পিএম
মাহিদুল ইসলাম আকনের হাতে ম্যাচসেরার পুরস্কার তুলে দিচ্ছেন ওয়ালটন গ্রুপের এজিএম অগাস্টিন সুজন বারৈ (ছবি : জনি সোম)

ক্রীড়া প্রতিবেদক : গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সের হয়ে জহুরুল ইসলাম লিস্ট ‘এ’ ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন আজ মঙ্গলবার। ওয়ালটন ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে খেলাঘর সমাজ কল্যাণ সমিতির বিপক্ষে বিকেএসপিতে ১০২ রানের অনবদ্য ইনিংস খেলেন তিনি। তার সেঞ্চুরিতে ভর করে ৫০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ২৪৭ রান সংগ্রহ করে গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স। কিন্তু দিনশেষে বৃথা যায় তার সেঞ্চুরি। ৫ উইকেট হারিয়ে ৪৮.৩ ওভারে জয় ছিনিয়ে নেয় খেলাঘর। লিগে যা তাদের প্রথম জয়। 

সংক্ষিপ্ত স্কোর :
গাজী গ্রুপ : ২৪৭/৫ (৫০ ওভারে)
খেলাঘর : ২৪৯/৫ (৪৮.৩ ওভারে)
ফল : খেলাঘর ৫ উইকেটে জয়ী
ম্যাচসেরা : খেলাঘরের ‘মাহিদুল ইসলাম আকন’ (৮৫ রান)।

 

গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স ও খেলাঘর সমাজ কল্যাণ সমিতির ম্যাচের একটি দৃশ্য (ছবি : জনি সোম)

খেলাঘরের জয়ে ব্যাট হাতে অবদান রেখেছেন উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান মাহিদুল ইসলাম আকন ও অশোক মেনারিয়া। মাহিদুল ইসলাম ৮৫ রান করেন। আর মেনারিয়া করেন ৫১ রান।

বিকেএসপিতে ২৪৮ রান তাড়া করতে নেমে ৬৩ রানেই উদ্বোধনী জুটি হারিয়ে বসে খেলাঘর। সেখান থেকে দলের হাল ধরেন মাহিদুল ইসলাম আকন। অমিত মজুমদারের সঙ্গে ৩৯, ও মেনারিয়ার সঙ্গে ১০৩ রানের জুটি গড়েন। দলীয় ২০৫ রানের মাথায় তিনি যখন আউট হন তখন তার নামের পাশে শোভা পাচ্ছিল ৮৫টি রান। যা তিনি ১০৯ বল খেলে ৭টি চার ও ৪টি ছক্কায় করেছেন। মাহিদুল আউট হওয়ার পর মেনারিয়া ফিফটি তুলে নিয়ে দলকে জয়ের বন্দরের একেবারে কাছে নিয়ে যান। তিনি যখন ব্যক্তিগত ৫১ রানে আউট হন তখন খেলাঘরের জয়ের জন্য প্রয়োজন ছিল মাত্র ৫ রান। এরপর নাজিমুদ্দিন (১৪) ও মঈনুল ইসলাম (৬) অবিচ্ছিন্ন থেকে দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন। খেলাঘরের এটা লিগে প্রথম জয়।

বল হাতে গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সের নাঈম হাসান ২টি উইকেট নেন। অনবদ্য ৮৫ রানের ইনিংস খেলে ম্যাচসেরা নির্বাচিত হন মাহিদুল ইসলাম আকন।

 


গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স ও খেলাঘর সমাজ কল্যাণ সমিতির ম্যাচের একটি দৃশ্য (ছবি : জনি সোম)

তার আগে গাজী গ্রুপের ২৪৭ রানের ইনিংসে জহুরুল ইসলামের ১০২ ছাড়া রজত ভাটিয়া ৬০ বলে ৬১ ও মুমিনুল হক ৪৭ বলে ৪৬ রান করেন। বল হাতে খেলাঘরের মোহাম্মদ সাদ্দাম, হাসান মাহমুদ, রাফসান আল মাহমুদ ও তানভীর ইসলাম ১টি করে উইকেট নেন। অপর উইকেটটি আসে রান-আউটের খাত থেকে।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮/আমিনুল

Walton
 
   
Marcel