ঢাকা, শুক্রবার, ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

১০ টাকা কেজির চাউল ওজনে কম দেওয়ার অভিযোগ

মো. মনিরুল ইসলাম টিটো : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-০৩-১৪ ৮:৪৪:৪৪ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৩-১৪ ৮:৪৪:৪৪ পিএম

ফরিদপুর প্রতিনিধি : ফরিদপুরের সালথা উপজেলায় দুস্থদের দেওয়া সরকারের ১০ টাকা কেজির চাউল মাপে কম দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। 

উপজেলার যদুনন্দী ইউনিয়নের কুমারকান্দা বাজারে ১০ টাকা কেজি দরের চাউল বিতরণে মাপে কম দেওয়া হয়।

চাউল বিতরণকালে ইউপি চেয়ারম্যান ও ট্যাগ অফিসারসহ অন্যদের অবহিত করার কথা থাকলেও তা জানানো হয়নি। এ নিয়ে যদুনন্দী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল খায়ের মুন্সীর সঙ্গে ডিলারের বাকবিতণ্ডা হয়েছে।

অনিয়মের খবর পাওয়ার পর সালথা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিষয়টি ইউপি চেয়ারম্যানকে তদারকির জন্য বলেছেন।

মঙ্গলবার সকালে চাউল বিতরণকারী ডিলার আবু বক্কর কাজী কুমারকান্দা বাজারে ১০ টাকা কেজি দরের চাউল জনপ্রতি ৩০ কেজি করে বিতরণ শুরু করেন। মেগা ডিজিটাল স্কেলে মাপ দেওয়ার কথা থাকলেও চাউল বালতিতে ভরে কাটা-পাল্লায় মাপ দিয়ে বিতরণ শুরু করেন। এতে মাপে কয়েক কেজি কম হয় বলে অভিযোগ ওঠে। এ নিয়ে চাল গ্রহণকারীদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হলে তাৎক্ষণিকভাবে ইউপি চেয়ারম্যানকে বিষয়টি অবহিত করেন তারা। খবর পেয়ে চেয়ারম্যান আবুল খায়ের মুন্সী কুমারকান্দা বাজারে উপস্থিত হয়ে চাউল মাপে কম দেওয়ার সত্যতা খুঁজে পান। এ নিয়ে ডিলারের সঙ্গে তার বাকবিতণ্ডা হয়। ঘটনাটি তিনি সালথা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোবাশ্বের হাসানকে অবহিত করেন।

এ সময় গোপিনাথপুরের মোশারেফ হোসেনের চাউলের বস্তা ওজন করা হলে ২৮ কেজি পাওয়া যায়। চাউল নিতে আসা গোপীনাথপুরের রেবেকা বেগম জানান, এ পর্যন্ত চারবার চাউল উত্তোলন করেছেন তিনি। কোনো বারই ২৫ কেজির বেশি পাননি।

এ বিষয়ে সালথা উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক মাজহারুল ইসলাম বলেন, ‘আমি সকালে আমি উপস্থিত থেকে ১৫-১৬ জনকে ৩০ কেজি পরিমাপে চাউল বিতরণ করে চলে এসেছি। এর পরে অনিয়ম হয়ে থাকতে পারে।’ 

ট্যাগ অফিসার মোস্তফা আহসান কামাল জানান, চাউল বিতরণের বিষয়টি তাকে জানানো হয়নি। তাই তিনি কিছু জানেন না।

সালথা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মোবাশ্বের হাসান চাউল বিতরণে অনিয়মের অভিযোগ স্বীকার করে বলেন, চাউল বিতরণে অনিয়মকারী ডিলারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তিনি জানান, চাউল বিতরণের পূর্বে ট্যাগ অফিসার, ইউপি চেয়ারম্যানসহ সংশ্লিষ্টদের জানানোর নিয়ম থাকলেও ওই ডিলার তাদের অবহিত করেননি। সুতরাং সব অনিয়ম-অভিযোগের দায় ডিলারকে বহন করতে হবে।



রাইজিংবিডি/ফরিদপুর/১৪ মার্চ ২০১৭/মো. মনিরুল ইসলাম টিটো/বকুল

Walton
 
   
Marcel