ঢাকা, বুধবার, ৫ আশ্বিন ১৪২৪, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

‘শিশুদের বিচার শিশুআদালতে হতে হবে’

হাসমত আলী : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-০৪-১৮ ৫:৪১:২৫ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৪-২২ ৩:৩৮:১৯ পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক, গাজীপুর : শিশুদের বিচার শিশুআদালতে হতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান কাজী রিয়াজুল হক।

তিনি বলেছেন, ‘শিশুদের অপরাধ অনুযায়ী ও বয়সভিত্তিক শ্রেণি বিন্যাস করে আলাদা আলাদা করে রাখতে হবে। ১৯৭৪ সালের এবং ২০১৩ সালের আইন অনুযায়ী শিশুদের বিচার শিশুআদালতে হতে হবে। শিশুদের জন্য আলাদা চার্জশিটের ব্যবস্থা নিতে হবে। সেই চার্জশিট বড়দের থেকে আলাদা হবে।’

গাজীপুরের টঙ্গীতে অবস্থিত কিশোর উন্নয়ন কেন্দ্রের কার্যক্রম পরিদর্শন শেষে তিনি মঙ্গলবার দুপুরে সাংবাদিকদের এ সব কথা বলেন। বিভিন্ন অপরাধে অভিযুক্ত যে সব শিশুকে কিশোর আদালত উন্নয়ন কেন্দ্রে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে, সেই সব শিশুকে এ কেন্দ্রে রাখা হয়।

কাজী রিয়াজুল হক বলেন, ‘আমরা চাই, বাচ্চাদের যাতে অপরাধ জগতের সঙ্গে পরিচয় না ঘটে। বাচ্চারা যাতে তার বাবা-মায়ের সঙ্গে থাকে। বাচ্চারা কোনো অপরাধ করলে তাদের জেলে না নিয়ে, শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে বা কিশোর সংশোধন কেন্দ্রে না পাঠিয়ে, তাদের তার পরিবারের কাছে সোপর্দ করে দেওয়া, পরিবার যদি না পাওয়া যায় তবে সোসাইটির কারো কাছে সোপর্দ করা অথবা সরকারের যে সব সদন আছে, সেই সমস্ত জায়গায় তাদের নিতে হবে। অপরাধীদের সঙ্গে বাচ্চাদের যোগাযোগ থাকা ঠিক না।’

টঙ্গীর কিশোর উন্নয়ন কেন্দ্রে অবস্থান করা শিশুদের সম্পর্কে মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান বলেন, ‘এখন এখানে ৫ম শ্রেণি পর্যন্ত লেখাপড়া করানো হয়। আমরা মনে করি এই লেখাপড়া এইচএসসি পর্যন্ত যাওয়া উচিত। কারণ ১৮ বছর পর্যন্ত সবাই শিশু। এ বয়সে মানুষ এইচএসসি পাস করে।’

তিনি বলেন, ‘এদের বিভিন্ন ট্রেডে সময়োপযোগী প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করতে হবে। যখন এদের মামলা নিষ্পতি হয়ে যাবে, সাজা শেষ হয়ে যাবে, সে যেন একটা মানুষ হয়ে বাইরে যেতে পারে। দেশের সে সম্পদ হয়ে যাবে। সে বিদেশেও কাজ করতে পারবে।’

এ সময় অন্যদের মধ্যে সুপ্রিম কোটের আপিল বিভাগের বিচারপতি এম ইমান আলী, জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের পরিচালক (অভিযোগ) মো. শরিফ উদ্দিন, সহকারী পরিচালক মো. রবিউল ইসলাম, গাজীপুর জেলা প্রশাসক এস এম আলম, গাজীপুর সমাজসেবা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক শংকর শরণ সাহা, গাজীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. সাখাওয়াত হোসেন, কিশোর উন্নয়ন কেন্দ্রের তত্বাবধায়ক মো. শাহ জাহান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।



রাইজিংবিডি/গাজীপুর/১৮ এপ্রিল ২০১৭/হাসমত আলী/বকুল

Walton Laptop