ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ আশ্বিন ১৪২৪, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

উত্তরা গণভবন থেকে মোনায়েম খানের নামফলক অপসারণ

এমএম আরিফুল ইসলাম : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-০৭-১৫ ৪:৫৩:৫৩ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৭-২৫ ৩:৩৩:২৭ পিএম

নাটোর প্রতিনিধি : অবশেষে নাটোরের উত্তরা গণভবন থেকে অপসারণ করা হয়েছে কুখ্যাত স্বাধীনতাবিরোধী মোনায়েম খানের নামফলক।

শনিবার দুপুরে স্থানীয় সংসদ সদস্য ও জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা মিলে এই নামফলক অপসারণ করেন। এই নামফলক অপসারণের মাধ্যমে কলঙ্কমুক্ত হল উত্তরা গণভবন।

আর দীর্ঘদিন পর হলেও বঙ্গবন্ধুর পাশ থেকে সরিয়ে ফেলা হল কুখ্যাত মোনায়েম খানের নামফলক।

দুপুরে শহরের ভবানীগঞ্জ মোড় থেকে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের করা হয়। সর্বস্তরের মানুষের অংশগ্রহণে র‌্যালিটি উত্তরা গণভবনে গিয়ে শেষ হয়। পরে নাটোর-৪ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস, নাটোর-২ আসনের সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুল, নাটোর-১ আসনের সংসদ সদস্য আবুল কালাম, ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক ড. আজাদুর রহমান, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সাজেদুর রহমান খান, অতিরিক্তি জেলা প্রশাসক ড. চিত্তলেখা নাজনিন।

নাটোর পৌরসভার মেয়র ও জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের আহ্বায়ক উমা চৌধুরি জলি, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার আব্দুর রউফ, গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মশিউর রহমানসহ সর্বস্তরের মানুষ মিলে নামফলক অপসারণ করেন।

এর আগে উত্তরা গণভবন থেকে মোনায়েম খানের নামফলক অপসারণের জন্য গত ২৯ জুন প্রধানমন্ত্রী কার্যালয় থেকে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ে এক চিঠি পাঠানো হয়।ওই চিঠির আলোকেই গত ৪ জুলাই গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব সুরাইয়া বেগম স্বাক্ষরিত এক চিঠি গত ৫ জুলাই নাটোরের গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মশিউর রহমানের কাছে এসে পৌঁছায়। চিঠিতে বলা হয়, নাটোর জেলার উত্তরা গণভবন হতে স্বাধীনতাবিরোধী কুখ্যাত রাজাকার মোনায়েম খানের নামফলক নাটোর জেলা প্রশাসনের সহায়তায় অপসারণ করে তা সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে অবহতি করতে হবে।

এরপর থেকেই নড়েচড়ে বসে নাটোরের গণপূর্ত বিভাগ ও জেলা প্রশাসন। এরই আলোকে শনিবার দুপুরে গণপূর্ত বিভাগ, জেলা প্রশাসন এবং স্থানীয় আওয়ামী লীগ আনুষ্ঠানিকভাবে মোনায়েম খানের নামফলক অপসারণ করে।

এ বিষয়ে নাটোরের গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মশিউর রহমান বলেন, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের নির্দেশে এবং মন্ত্রণালয়ের আদেশের পরিপ্রেক্ষিতে দীর্ঘ দিন পর হলেও গণভবন থেকে মোনায়েম খানের নামফলক অপসারণ করা সম্ভব হয়েছে। এই অপসারণের মাধ্যমে কলঙ্কমুক্ত হল উত্তরা গণবভন।

ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক ড. আতিউর রহমান এক প্রতিক্রিয়ায় বলেন, জেলা প্রশাসক শাহিনা খাতুনের একান্ত প্রচেষ্টায় কুখ্যাত মোনায়েম খানের নামফলক অপসারণ করা সম্ভব হলো। এতে দীর্ঘ দিন পর হলেও আজ নাটোরবাসী কলঙ্কমুক্ত হল।



রাইজিংবিডি/নাটোর/১৫ জুলাই ২০১৭/এম এম আরিফুল ইসলাম/রুহুল

Walton Laptop