ঢাকা, শুক্রবার, ৮ আষাঢ় ১৪২৬, ২১ জুন ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

হাইকোর্টে এমপি রানার আবারো জামিন আবেদন

মেহেদী হাসান ডালিম : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৮-১১-১৩ ১২:১৮:২৮ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-১১-১৩ ১:৩৩:৩১ পিএম
Walton AC 10% Discount

নিজস্ব প্রতিবেদক : আওয়ামী লীগ নেতা মুক্তিযোদ্ধা ফারুক আহমেদ হত্যা মামলার আসামি সংসদ সদস্য আমানুর রহমান খান রানা আবারো হাইকোর্টে জামিন আবেদন করেছেন।

মঙ্গলবার বিচারপতি একেএম আসাদুজ্জামান ও বিচারপতি এসএম মুজিবুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চে আবেদনটি শুনানির জন্য কার্য তালিকায় রয়েছে। জামিন আবেদনের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সংশ্লিষ্ট কোর্টের ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ড. বশির উল্লাহ।

এর আাগে একাধিকবার এ মামলায় তিনি হাইকোর্টে জামিন আবেদন করেছিলেন। হাইকোর্ট তার জামিন প্রশ্নে রুল জারি করলেও আপিল বিভাগ সেটি খারিজ করে দেন।

গত বছরের ১৯ অক্টোবর তৎকালীন ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি আবদুল ওয়াহহাব মিঞার নেতৃত্বাধীন চার সদস্যের আপিল বেঞ্চ রুল নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত জামিন স্থগিত করে এ আদেশ দিয়েছিলেন।

ওই বছরের ১৩ এপ্রিল ফারুক আহমেদ হত্যা মামলায় টাঙ্গাইল-৩ আসনের সাংসদ আমানুর রহমান খানের জামিন দিয়েছিলেন হাইকোর্ট। এ সময় কেন আমানুর রহমান খানকে জামিন দেওয়া হবে না, তা জানতে চেয়ে রুলও দিয়েছিল আদালত। হাইকোর্টের এ আদেশের বিরুদ্ধে পরবর্তীতে আপিল করে রাষ্ট্রপক্ষ।

টাঙ্গাইল-৩ (ঘাটাইল) আসনের সংসদ সদস্য আমানুর রহমান খান রানা ও তার তিন ভাইকে ২০১৭ সালের ১৬ জানুয়ারি আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার করা হয়।

জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মুক্তিযোদ্ধা ফারুক আহম্মেদ হত্যাকাণ্ডের মামলায় ২০১৬ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর টাঙ্গাইলের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ প্রথম আদালতে আত্মসমার্পণ করে জামিন আবেদন করেন রানা। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে আদালতের বিচারক আবুল মনসুর মিয়া তার জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। এরপর থেকে তিনি কারাগারে রয়েছেন।

মামলার নথি সূত্রে জানা গেছে, ২০১৩ সালের ১৮ জানুয়ারি রাতে শহরের কলেজপাড়া এলাকার নিজ বাসার কাছ থেকে জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মুক্তিযোদ্ধা ফারুক আহম্মেদের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করা হয়। ঘটনার তিন দিন পর ফারুকের স্ত্রী নাহার আহমেদ বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের আসামি করে টাঙ্গাইল সদর মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন।

এ মামলায় টাঙ্গাইল-৩ (ঘাটাইল) আসনের সংসদ সদস্য আমানুর রহমান খান রানাসহ ১৪ জনকে আসামি করে ২০১৭ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি টাঙ্গাইলের গোয়েন্দা পুলিশ আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়।




রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৩ নভেম্বর ২০১৮/মেহেদী/ইভা

Walton AC
     
Walton AC
Marcel Fridge