ঢাকা, রবিবার, ১২ ফাল্গুন ১৪২৫, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

৯ জানুয়ারি থেকে বাণিজ্য মেলা, এবারের গেট মেট্রোরেলের আদলে

হাসান মাহামুদ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-১২-২২ ৫:৫৯:৪৭ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-১২-২৩ ৯:৪৬:৪৯ এএম

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক : ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার ২৪তম আসর উদ্বোধন হবে আগামী ৯ জানুয়ারি। এরই মধ্যে মেলার স্টলের সংখ্যা নির্ণয়সহ বিভিন্ন কাজ সম্পন্ন হয়েছে। এখন এগিয়ে চলছে নির্মাণকাজ।

বাণিজ্য মেলা শুরু হওয়ার কথা ছিল ১ জানুয়ারি থেকে। কিন্তু একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের কারণে এবার ৯ জানুয়ারি মেলা শুরু হবে। মেলা চলবে ৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত।

আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার প্রধান তত্ত্বাবধায়ক সংস্থা রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) কর্মকর্তারা আশা করছেন, নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই যাবতীয় প্রস্তুতি শেষ হবে। তারা বলছেন, মেলাকে ঘিরে এবার গতবারের চেয়ে বিদেশীদের আগ্রহ বেশি। আগামী ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে সব প্রস্তুতি শেষ হবে। দেশী-বিদেশী প্রতিষ্ঠানের স্টল ও প্যাভিলিয়ন মিলিয়ে প্রায় সাড়ে ৫০০ প্রতিষ্ঠান মেলায় অংশ নেবে।

প্রতিবছর প্রধানমন্ত্রী এ মেলার উদ্বোধন করেন। তবে এ বছর জাতীয় সংসদ নির্বাচনের কারণে এখনো বিষয়টি চূড়ান্ত হয়নি। তবে আশা করা হচ্ছে, নতুন প্রধানমন্ত্রীই ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার উদ্বোধন করবেন।

মেলা পরিচালনা কমিটির সদস্য সচিব ইপিবির কর্মকর্তা আব্দুর রউফ রাইজিংবিডিকে বলেন, উন্নয়নের সাহসী প্রতিকৃতি হিসেবে এবার মেট্রোরেলের আদলে বাণিজ্য মেলা প্রধান ফটক সাজানো হচ্ছে। এর মাধ্যমে সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড আরো ‍দৃশ্যমান হবে। গত বছর এই আন্তর্জাতিক মেলার গেট নির্মাণ হয়েছিল পদ্মা সেতুর আদলে।

তিনি বলেন, বাণিজ্য মেলার সব প্রস্তুতি নির্ধারিত সময়ের মধ্যে শেষ হবে। আশা করছি, এবারের বাণিজ্য মেলায় রপ্তানি আদেশ গতবারের চেয়ে বৃদ্ধি পাবে।

ইপিবি সূত্র জানায়, এরই মধ্যে মেলার দুই প্রান্তে সুন্দরবন ইকোপার্ক নির্মাণের কাজ শুরু হয়েছে। মেলায় এবার মা ও শিশু কেন্দ্র, শিশুপার্ক, ই-পার্ক, এটিএম বুথ থাকবে।

এবারের মেলায় স্থান পাবে সংরক্ষিত নারী স্টল ২০টি, প্রিমিয়ার প্যাভিলিয়ন ৬০টি, প্রিমিয়ার মিনি প্যাভিলিয়ন ৩৮টি, সাধারণ প্যাভিলিয়ন ১৮টি, সাধারণ মিনি প্যাভিলিয়িন ২৯টি, প্রিমিয়ার স্টল ৬৭টি, রেস্টুরেন্ট ৩টি, সংরক্ষিত প্যাভিলিয়ন ৯টি, সংরক্ষিত মিনি প্যাভিলিয়ন ৬টি ও বিদেশী প্যাভিলিয়ন ২৬টি।

দেশী-বিদেশী প্রতিষ্ঠানের স্টল ও প্যাভিলিয়ন মিলিয়ে প্রায় সাড়ে ৫০০ প্রতিষ্ঠান অংশ নেবে বাণিজ্য মেলায়। মেলায় এবার এ পর্যন্ত ৪৩টি বিদেশি প্রতিষ্ঠান আবেদন করেছে। গতবারের থেকে এবার বিদেশীদের আগ্রহ অনেক বেশি।

বাণিজ্য মেলায় অংশগ্রহণকারী বিভিন্ন দেশের মধ্যে রয়েছে- ভারত, পাকিস্তান, চীন, ব্রিটেন, দক্ষিণ কোরিয়া, মালয়েশিয়া, ইরান, থাইল্যান্ড, যুক্তরাষ্ট্র, তুরস্ক, সিঙ্গাপুর, ভুটান, নেপাল, মরিশাস, ভিয়েতনাম, মালদ্বীপ, রাশিয়া, আমেরিকা, জার্মানি, সোয়াজিল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া ও হংকং।

প্রসঙ্গত, ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় বিশ্বের বিভিন্ন দেশ ও দেশের প্রতিষ্ঠান মেলায় নিজেদের উৎপাদিত পণ্য প্রদর্শন করে। দেশী ও বিদেশী পণ্য প্রদর্শন, রপ্তানিবাজার অনুসন্ধান এবং দেশী-বিদেশী ক্রেতার সঙ্গে সংযোগ স্থাপনের ক্ষেত্রে এ মেলা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে।

মেলায় অংশগ্রহণের মাধ্যমে শিল্পপণ্য ও ভোগ্যপণ্য উৎপাদনকারীরা একদিকে তাদের উৎপাদিত পণ্যের গুণগত মান, ডিজাইন, প্যাকেজিং ইত্যাদি প্রদর্শন ও বিপণন করতে পারেন। অন্যদিকে, পারস্পরিক সংযোগ স্থাপনসহ অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক বাণিজ্য প্রসারের সুযোগ লাভ করে।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/২২ ডিসেম্বর ২০১৮/হাসান/রফিক

Walton Laptop
 
     
Marcel
Walton AC