ঢাকা, শুক্রবার, ৬ বৈশাখ ১৪২৬, ১৯ এপ্রিল ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

দুই ম্যাচ নিষিদ্ধ হচ্ছেন পান্ডিয়া ও রাহুল

আমিনুল ইসলাম : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০১-১০ ৭:১৩:১১ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০১-১০ ১০:৪৫:১৬ পিএম

ক্রীড়া ডেস্ক : বলিউডের খ্যাতিমান নির্মাতা করন জোহরের উপস্থাপনায় ‘কফি উইথ করন’ অনুষ্ঠানে নারীদের বিষয়ে মজা করে মন্তব্য করেন হার্দিক পান্ডিয়া ও লোকেশ রাহুল। পরদিন তাদের এই মজা করা মন্তব্য বিভিন্ন পত্রিকায় ‘আপত্তিকর’ হিসেবে উপস্থাপন করা হয়। এমনকী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও তাদের মন্তব্যের ব্যাপক সমালোচনা করা হয়।

বিষয়টি দৃষ্টিগোচর হয় ভারতের ‘কমিটি অব ক্রিকেট অ্যাডমিনিস্ট্রেটর’ (সিওএ) এর প্রধান বিনোদ রায়ের। তাদের এমন মন্তব্য খুবই আহত করেছে তাকে। তাইতো তিনি এই দুই ক্রিকেটারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া নির্দেশ দেন। সেই নির্দেশনা অনুযায়ী বুধবার তাদের দুজনকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়। সেখানে লোকেশ রাহুল ও পান্ডিয়া দুজনেই তাদের এমন মন্তব্যের জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন এবং বিষয়টি যে তারা উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে করেননি এবং কাউকে আঘাত কিংবা সম্মানহানি করার জন্য করেননি বলে উল্লেখ করেন।

কিন্তু সেটাতে মন গলেনি ক্রিকেট অ্যাডমিনিস্ট্রেটর কমিটির। তাই আজ বৃহস্পতিবার পান্ডিয়া ও রাহুলকে দুই ম্যাচের (ওয়ানডে) জন্য নিষিদ্ধ করার সুপারিশ করেছেন বিনোদ রায়। শিগগিরই তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

 



এ বিষয়ে বিনোদ রায় বলেন, ‘কারণ দর্শানোর নোটিশের জবাবে তারা যে ব্যাখ্যা দিয়েছে সেটাতে আমি সন্তুষ্ট হতে পারিনি। তাই আমি তাদের দুজনকে দুই ম্যাচ করে নিষিদ্ধ করার জন্য সুপারিশ করেছি। তারা যে মন্তব্য করেছে সেটা আমি বিভিন্ন পত্রিকায় পড়েছি। খুবই সংবেদনহীন, স্থুল, বোকার মতো মন্তব্য করেছে তারা। কোনো ধরনের ক্ষমা চাওয়াই এটার প্রায়শ্চিত্তের মধ্যে পড়বে না। কোনো কিছু দিয়েই আসলে এটা ঢাকা যাবে না। আমি ক্রিকেট অ্যাডমিনিস্ট্রেটর কমিটির সদস্য ডায়ানা এডুলজিকে বলেছি যে তাদের কী ধরনের শাস্তি দেওয়া যায়। কারণ, আমি ভিডিও ক্লিপ দেখিনি এখনো। তাই আমি মনে করি তাদের দুজনকে দুই ম্যাচ করে নিষিদ্ধ করা উচিত। ডায়ানা যদি রাজি হয় তাহলে এই সুপারিশ ভারতের ক্রিকেট নিয়ন্ত্রণ বোর্ডের লিগ্যাল সেলে পাঠিয়ে দেওয়া হবে।’

এ বিষয়ে ভারতের প্রাক্তন নারী ক্রিকেটার ডায়ানা এডুলজি বলেছেন, ‘এই ধরনের বিষয় নিয়ে কোনো দেরি করা চলবে না। বিসিসিআই এর যথাযথ প্রক্রিয়া ও প্রটোকল অনুযায়ী তাদের বিরুদ্ধে বড় ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এটাই আমার সিদ্ধান্ত।’

দুই ম্যাচের নিষেধাজ্ঞার পাশাপাশি ‘ক্রিকেট’ সংশ্লিষ্টতা ছাড়া অন্য যেকোনো টিভি অনুষ্ঠানে তাদের উপস্থিতির উপরও নিষেধাজ্ঞা আসতে যাচ্ছে।

 



কফি উইথ করন অনুষ্ঠানে শচীন ও বিরাট কোহলির বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে রাহুল ও পান্ডিয়া উভয়ই জানান যে শচীন টেন্ডুলকারের চেয়ে কোহলির ব্যাটিং তাদের কাছে সেরা মনে হয়। শচীনের চেয়ে ভালো ব্যাটসম্যান কোহলি। তাদের এমন মন্তব্য কোটি কোটি শচীন ভক্তদের ক্ষেপিয়ে তুলেছে। তাছাড়া তাদের জীবনে নারীদের আগমণ ও নারী বিষয়ক প্রশ্নে নানারকম ‘আপত্তিকর’ অভিজ্ঞতার বর্ণানা দেন। সেখানে কন্ডম ব্যবহার করা থেকে শুরু করে ভার্জিনিটি হারানোর বিষয়ও বাদ যায়নি। তাদের এমন বেফাঁস মন্তব্য ভালোভাবে নিতে পারছেন না কেউ-ই।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১০ জানুয়ারি ২০১৯/আমিনুল

Walton Laptop
     
Walton AC
Marcel Fridge