ঢাকা, বুধবার, ২ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৭ জুলাই ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

প্রবাসীর স্ত্রীর লাশ উদ্ধার

বিএম ফারুক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৭-০৯-২৫ ৪:২৮:৪১ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৯-২৫ ৪:২৮:৪১ পিএম
প্রবাসীর স্ত্রীর লাশ উদ্ধার
Voice Control HD Smart LED

নিজস্ব প্রতিবেদক, যশোর : যশোরের চৌগাছা উপজেলায় প্রবাসীর স্ত্রীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। শ্বশুর-শাশুড়ির বিরুদ্ধে এ গৃহবধূকে নির্যাতনের পর মুখে বিষ ঢেলে হত্যার অভিযোগ উঠেছে।   

রোববার রাতে উপজেলার বহিলাপোতা গ্রামে স্বামীর বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। আজ সোমবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় নাজমা বেগমের (২৫) মৃত্যু হয়েছে। যৌতুকের দাবিতে শ্বশুর ও শাশুড়ি নির্যাতন করে হত্যা করেছে বলে নিহতের স্বজনরা অভিযোগ করেছেন।

নিহত নাজমা বেগম মালয়েশিয়া প্রবাসী একরামুল হোসেনের স্ত্রী ও একই উপজেলার বল্লভপুর গ্রামের মৃত আজগর আলীর মেয়ে। নাজমা বহিলাপোতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্যও ছিলেন। তার ছয় বছর বয়সী এক ছেলে রয়েছে।

নিহতের মামা সামাউল ইসলাম ও বোন জামাই আরমান আলী জানান, সাত বছর আগে পিতা-মাতাহীন নাজমার বিয়ে হয় বহিলাপোতা গ্রামের আলাউদ্দিনের ছেলে একরামুলের সঙ্গে। বিয়ের পরে সাইকেল, ঘড়িসহ আনুষঙ্গিক জিনিসপত্র দেওয়া হয়। তবুও নাজমার শ্বশুর-শাশুড়ি যৌতুকের জন্য নাজমাকে নির্যাতন করতেন। চলতি বছরের শুরুর দিকে নাজমার স্বামী একরামুল বিদেশ যাওয়ার সময় যৌতুকের টাকা এনে দিতে বলেন। এ সময় নাজমা বাবার বাড়ি যে জমি পেতেন, তা বিক্রি করে তিন লাখ টাকা দিয়ে একরামুলকে বিদেশ পাঠান। এরপরও দুই/তিন মাস আগে নাজমার শ্বশুর ও শাশুড়ি তাকে মারধর করেন।

তারা জানান, সকালে মোবাইল ফোনে খবর পেয়ে হাসপাতালে এসে দেখেন নাজমার মৃত্যু হয়েছে। তাদের অভিযোগ, নাজমার গলায় এবং শরীরে নির্যাতনের দাগ রয়েছে। নাজমার শ্বশুর ও শাশুড়ি নির্যাতনের পর তার মুখে কীটনাশক ঢেলে দিয়েছেন।

তবে নাজমার শ্বশুর আলাউদ্দিন জানান, রাত ১২টার দিকে নাজমা বিষ খায়। রাত ১টায় হাসপাতালে নিয়ে আসেন। সকালে তার মৃত্যু হয়েছে। হত্যার বিষয়ে জিজ্ঞেস করলে তিনি বলেন, ‘আমি যা বলেছি এর বেশি কিছু জানি না।’  

তবে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে দায়িত্বরত আব্দুল হাই জানান, ভোর ৪টা ১৫ মিনিটে নাজমাকে হাসপাতালে আনা হয়।

নিহতের চাচাত ভাই ও সুখপুকুরিয়া ইউপির ৮নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য সাইফুল ইসলাম জানান, মৃতদেহ দেখে আত্মহত্যা মনে হচ্ছে না। তারা এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

চৌগাছা থানার ওসি খন্দকার শামীম উদ্দিন বলেন, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।



রাইজিংবিডি/যশোর/২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭/বি এম ফারুক/বকুল

Walton AC
ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন
       

Walton AC
Marcel Fridge