ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৩ কার্তিক ১৪২৫, ১৮ অক্টোবর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

‘রাজস্ব লক্ষ্যমাত্রা অর্জন চ্যালেঞ্জের, তবে সম্ভব’

এম এ রহমান : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০৬-১১ ৮:৫৩:০৯ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৮-০২ ৫:৪৬:৪১ পিএম

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক : আগামী অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে এনবিআরকে দেওয়া রাজস্ব লক্ষ্যমাত্রা অর্জন বিশাল চ্যালেঞ্জের, তবে আদায় সম্ভব বলে মনে করেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া।

সোমবার বিকেলে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউটে এলটিইউ-ভ্যাটের অ্যাপস ও তথ্যচিত্রের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে এ আশা ব্যক্ত করেন তিনি। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের এসডিজিবিষয়ক মুখ্য সমন্বয়ক আবুল কালাম আজাদ।

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের প্রস্তাবিত ২০১৮-১৯ অর্থবছরে বাজেটে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডকে (এনবিআর) ২ লাখ ৯৬ হাজার ২০১ কোটি টাকা আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা দেওয়া হয়েছে। যা জিডিপির ১১.৭ শতাংশ।

অনুষ্ঠানে এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, ‘রাজস্ব অগ্রযাত্রায় যে পথে এগিয়ে যাচ্ছি তার মূল চালিকা শক্তি ভ্যাট। আগামী এক বছরের মধ্যে ভ্যাটকে আমরা সম্পূর্ণ অটোমেশনে নিয়ে যাব। ইলেকট্রনিক ফিসক্যাল ডিভাইস (ইএফডি) প্রবর্তন করব। সেজন্য আমরা টেন্ডার প্রক্রিয়ায় যাচ্ছি। সকল ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানকে ইএফডির আওতায় এনবিআরের মূল সার্ভারের সাথে সংযুক্ত করা হবে।’

তিনি আরো বলেন, গত অর্থবছরের তুলনায় চলতি বছরে রাজস্ব আয়ের প্রবৃদ্ধি হবে ২০ শতাংশ। এটা ২২ থেকে ২৫ শতাংশ হয়ে যেতে পারে। তবে তা নির্ভর করবে জুন মাসের রাজস্ব আদায়ের ওপর।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মুখ্য সমন্বয়ক (এসডিজি) আবুল কালাম আজাদ বলেন, ‘অ্যাপস খুব কঠিন কাজ নয়। কঠিন কাজটা হচ্ছে সাহস। অনেক সময় আমরা স্বচ্ছ হতে চাই না। ঝামেলা বাঁধিয়ে রাখতে পারলে সুবিধা হয়। এলটিইউ-ভ্যাটের অ্যাপসের ফলে ব্যবসায়ীদের খরচ, সময় ও দুর্নীতি কমবে। সরকার যে সব কাজে স্বচ্ছ হতে চায়, এই অ্যাপস তার জ্বলন্ত দৃষ্টান্ত।’

তিনি আশা ব্যক্ত করে বলেন, এলটিইউ-ভ্যাটের মতো সব আয়কর, ভ্যাট অফিস অ্যাপস চালু করলে রাজস্ব আয় আরো বাড়বে।

স্বাগত বক্তব্যে এলটিইউ-ভ্যাটের কমিশনার মতিউর রহমান বলেন, ২০১৭-১৮ অর্থবছরে মোট ভ্যাটের ৫৮ শতাংশ এলটিইউ-ভ্যাট আদায় করেছে। ২০১৪-১৫ অর্থবছরের যা ছিল ৫৪ শতাংশ। বর্তমানে এলটিইউ-ভ্যাটের আওতাধীন ২২৭টি প্রতিষ্ঠান আছে। এসব প্রতিষ্ঠানের অনেক সহযোগী প্রতিষ্ঠান আছে, যেগুলো অন্য ভ্যাট কমিশনারেটের আওতায় আছে। এ ধরনের ৪০টি প্রতিষ্ঠানকে এলটিইউ-ভ্যাটের আওতায় আনলে মোট ভ্যাটের ৮০ শতাংশ আদায় করতে সক্ষম হবে এলটিইউ-ভ্যাট।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন এসিআইয়ের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান এম আনিস উদ দৌলা, ব্রিটিশ আমেরিকান টোব্যাকোর চেয়ারম্যান গোলাম মঈনুদ্দীন, ভ্যাট নীতির সদস্য রেজাউল হাসান, ভ্যাট বাস্তবায়নের সদস্য সুলতান মো. ইকবাল এবং শুল্ক ও ভ্যাট প্রশাসনের সদস্য শাহনাজ পারভীন প্রমুখ।

ভ্যাট অ্যাপস : গুগল প্লে স্টোর থেকে এলটিইউ-ভ্যাট ডাউনলোড করতে হবে। এ অ্যাপসে করদাতারা এলটিইউর কর্মকর্তাদের ছবি-পদবিসহ নাম, ফোন নম্বর ও ই-মেইল আইডি পাবেন। এর মাধ্যমে সহজেই কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা যাবে। এছাড়া ভ্যাট আইন, বিধিমালা, এসআরও ও ফরম পাওয়া যাবে। চাইলে কর্মকর্তাদের নামে অভিযোগও দেওয়া যাবে। এ অ্যাপটিতে দেশের সব ভ্যাট কমিশনারেটেন ঠিকানা ও তার অধীনস্ত বিভাগীয় কার্যালয়ের যাবতীয় তথ্য পাওয়া যাবে। প্রাথমিকভাবে গুগল প্লে স্টোরে অ্যাপটি পাওয়া যাবে। শিগগিরই আইফোনের অ্যাপল স্টোরে পাওয়া যাবে।




রাইজিংবিডি/ঢাকা/১১ জুন ২০১৮/এম এ রহমান/রফিক

Walton Laptop
 
     
Walton