ঢাকা, শনিবার, ৫ কার্তিক ১৪২৫, ২০ অক্টোবর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

বালি ফিনটেক এজেন্ডায় ১২ নীতিমালা গৃহীত

কেএমএ হাসনাত : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-১০-১২ ১১:০৫:৪৭ এএম     ||     আপডেট: ২০১৮-১০-১২ ১১:০২:৪২ পিএম

কেএমএ হাসনাত, বালি, ইন্দোনেশিয়া থেকে : বিশ্বব্যাংক ও আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ) তাদের সদস্য দেশগুলোতে নিরাপদ আর্থিক বিষয়ক প্রযুক্তিগত পরিষেবা নিশ্চিত করতে ১২টি নীতিমালা বাস্তবায়নের সুপারিশ করেছে।

শুক্রবার আন্তর্জাতিক অর্থলগ্নিকারী সংস্থা দুটির বার্ষিক সম্মেলনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনকে সামনে রেখে এক যৌথ বৈঠকে ঘোষিত ‘বালি ফিনটেক এজেন্ডা’য় এসব নীতিমালা গৃহীত হয়েছে। বৃহস্পতিবার ইন্দোনেশিয়ার পর্যটন নগরী বালিতে ‘বালি ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সেন্টারে (বিআইসিসি) এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

ঘোষিত এজেন্ডায় বলা হয়েছে, অর্থ বিষয়ক প্রযুক্তিগত সুবিধা ব্যাপক ব্যবহারের মাধ্যমে ইন্টারনেট ঝুঁকি মোকাবেলা করে ব্যাংকিং সেবা স্থানান্তরের মাধ্যমে বিশ্বব্যাংক ও আইএমএফের সদস্য দেশগুলো লাভবান হতে পারে। এ লক্ষ্যে উচ্চ পর্যায়ের বিষয়গুলো নিয়ে একটি ‘ফ্রেমওয়ার্ক’ তৈরির প্রস্তাব করা হয়েছে। সদস্য দেশগুলো নিজেদের অভ্যন্তরীণ নীতিমালা প্রণয়ন ও লক্ষ্য নির্ধারণে এ বিষয়গুলো বিবেচনা করতে পারে। এছাড়া ঘোষিত এজেন্ডায় আর্থিক খাতের স্থিতিস্থাপকতা নিশ্চিত করা এবং ঝুঁকিগুলো চিহ্নিত করার পাশাপাশি আন্তর্জাতিক সহযোগিতাকে উৎসাহিত করা হয়েছে।

যৌথ বৈঠকে আইএমএফের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ক্রিস্টিন লাগার্ড বলেন, ‘বিশ্বের প্রায় ১৭০ কোটি পূর্ণ বয়স্ক মানুষ আর্থিক পরিষেবা থেকে বঞ্চিত। ফিনটেকের মাধ্যমে এদের আর্থিক পরিষেবার আওতায় আনা হলে তাদের সামাজিক ও আর্থিক অবস্থায় বড় ধরনের প্রভাব পড়তে পারে।’

বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট জিম ইয়ং কিম বলেন, ‘এসডিজি বাস্তবায়নে নিম্ন আয়ের দেশগুলোকে সহায়তা করার লক্ষ্যে বালি ফিনটেক এজেন্ডায় একটি ফ্রেমওয়ার্ক তৈরির প্রস্তাব করা হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘বৈঠকে সদস্য দেশগুলো অর্থবাজারে গভীরতর প্রবেশের সুযোগ চেয়েছে। আর্থিক পরিষেবা বৃদ্ধি, ঝুঁকি কমিয়ে আনা, আর্থিক স্থিতিশীলতা ও অন্তর্ভূক্তিমূলক অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অর্জনে ফিনটেক সলিউশন ভূমিকা রাখবে।’



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১২ অক্টোবর ২০১৮/হাসনাত/শাহেদ/শাহনেওয়াজ

Walton Laptop
 
     
Walton