ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১১ ডিসেম্বর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

সবচেয়ে বেশি আদর করেন মিশা ভাই : জাহিদ

রাহাত সাইফুল : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০৫-০৫ ২:৩২:০৪ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৫-০৫ ৫:৪১:১৬ পিএম

বিনোদন প্রতিবেদক : গল্পকে শ্বাসরুদ্ধকরভাবে এগিয়ে নেয়াসহ সিনেমায় গতি এনে দেয় একজন খল-অভিনেতা। দর্শকের কাছে গ্রহণযোগ্য সিনেমা তৈরিতে খলনায়কের ভূমিকা অনেক। তাই নায়কের চেয়ে খলনায়কের গুরুত্ব মোটেও কম নয়।

খলনায়কের কাজ হচ্ছে গল্পে ব্যঞ্জনা তৈরি করা। অভিনয়ের প্রয়োজনে এদের চলচ্চিত্রের পর্দায় বিচিত্র রূপ ধারণের পাশাপাশি কঠিন কঠিন কাজ করতে হয়। গোলাম মুস্তাফা, হুমায়ূন ফরিদি, রাজিব, এটিএম শামসুজ্জামান, আহমেদ শরীফ প্রমুখ খল অভিনেতারা পর্দা কাঁপিয়েছেন। পর্দায় তাদের উপস্থিতিই যেন দর্শককে কখনো চিন্তিত করে তুলতো আবার কখনো আশা ভঙ্গের কারণ হয়ে দাঁড়াতো। ঢাকাই চলচ্চিত্রে এখন তা সোনালী অতীত।

বর্তমানে চলচ্চিত্রে খলনায়কের সংকট চলছে। সোনালী যুগের পর্দা কাঁপানো খলনায়কদের অনেকেই এখন চলচ্চিত্র থেকে দূরে রয়েছেন। এদিকে, নতুন করে যোগ্য খলনায়কের আবির্ভাব ঘটছে না। তরুণ প্রজন্মের গুটিকয়েক খল-অভিনেতা দু-একটি চলচ্চিত্রে অভিনয় করে যাচ্ছেন। তাদের তালিকায় রয়েছেন তরুণ প্রজন্মের খল অভিনেতা জাহিদ ইসলাম।

তিনি ২০১৫ সালে শিহাব শাহীন পরিচালিত পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘ছুঁয়ে দিলে মন’ সিনেমায় প্রথম অভিনয়ের সুযোগ পান। সিনেমাটিতে ইরেশ যাকেরের সহকারী খল-অভিনেতার অন্যতম ছিলেন তিনি। এ সিনেমাটি মুক্তির পর শামিম আহমেদ রনীর ‘বসগিরি’, আবদুল মান্নানের ‘রংবাজ’, সাফিউদ্দিন সাফির ‘ব্ল্যাকমানি’, শাহ আলম মন্ডলের ‘আপন মানুষ’, রাজু চৌধুরীর ‘শুটার’, শাহাদৎ হোসেন লিটনের ‘অহংকার’সহ বেশ কিছু সিনেমায় কাজ করেছেন তিনি। এ পর্যন্ত তার অভিনীত ১৭টি চলচ্চিত্রে প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে। এসব সিনেমা মুক্তির পরে নির্মাতারা তাকে নিয়ে আরো বেশকিছু সিনেমার শুটিং ইতিমধ্যেই শুরু করেছেন। এ তালিকায় রয়েছে-‘সুপার হিরো’, ‘ক্যাপ্টেন খান’, ‘প্রেমের বাঁধন’, ‘জানরে’, ‘হারজিৎ’।

সম্প্রতি তিনি ‘বেসামাল’ নামের নতুন একটি সিনেমায় প্রধান খল-অভিনেতা হিসেবে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন। রাহুল রওশন পরিচালিত এই সিনেমার শুটিং গত ২ মে শুরু করা হয়। এতে তাকে একজন কুস্তিগীর হিসেবে দেখা যাবে।

এ প্রসঙ্গে জাহিদ ইসলাম রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘বেসামাল’ সিনেমার মাধ্যমে আমি প্রথমবার প্রধান খল অভিনেতা হিসেবে পর্দায় আসছি। এতে আমি একজন কুস্তিগীর থাকব। এতে দেখা যাবে, আমি গত পাঁচ বছর ধরে কুস্তি খেলায় চ্যাম্পিয়ন হই। একটা সময় হিরো বাপ্পির সঙ্গে কুস্তি প্রতিযোগিতায় হেরে যাই। এ নিয়ে বাপ্পির সঙ্গে শত্রুতা শুরু হয়ে যায়। এরপর ঘটতে থাকে নানা ঘটনা। এভাবেই এর গল্প এগিয়ে যায়।

তিনি আরো বলেন, চলচ্চিত্রকে ভালোবাসি বলেই সিনেমায় কাজ করতে এসেছি। নিজেকে পর্দায় খারাপ মানুষ হিসেবেই উপস্থাপন করতে ভালো লাগে। এ জন্যই সিনেমায় কাজ করে যাচ্ছি। এখানে কাজ করতে এসে অনেকের আদর ও সহযোগিতা পেয়েছি। সবচেয়ে বেশি আদর করেন জনপ্রিয় খল অভিনেতা মিশা সওদাগর ভাই। আমি সবার সাথে একটা সেতুবন্ধন তৈরি করার চেষ্টা করেছি। আগামীতে শ্রদ্ধেয় পরিচালক ও চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট সকলের সহযোগিতা নিয়ে আরো ভালো সিনেমা আপনাদের উপহার দিবো ইনশাআল্লাহ।

জাহিদ ইসলাম অভিনীত ‘পাংকু জামাই’, ‘মনে রেখে’সহ কয়েকটি সিনেমা মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে।




রাইজিংবিডি/ঢাকা/৫ মে ২০১৮/রাহাত/মারুফ

Walton Laptop
 
     
Marcel
Walton AC