ঢাকা, রবিবার, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২৬ মে ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

পরিচালক ছাড়াই শুটিং: এবার বিস্মিত নন রাজু

রাহাত সাইফুল : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৫-১৪ ৫:৪৬:৪৩ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৫-১৪ ৫:৫৫:৩৭ পিএম
Walton AC

রাহাত সাইফুল: ঢাকাই চলচ্চিত্রে মন্দা হাওয়া বইছে। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে চলচ্চিত্র নির্মাণ সংখ্যা তলানিতে ঠেকেছে। এরই মধ্যে প্রায়ই শোনা যায়, অনিয়ম, রেষারেষি, অভিযোগ ও পালটা অভিযোগের কথা। ইদানীং পরিচালক ছাড়াই সিনেমার গানের শুটিং হচ্ছে। আবার কখনো শোনা যায়, পরিচালককে বাদ দিয়েই সিনেমার শুটিং হচ্ছে। এসব নিয়ে কখনো কখনো অভিযোগ ওঠে। আবার কখনো কখনো পরিচালকের সম্মতিতে এসব কাজ হয়ে থাকে।

২০১৭ সালে চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতিতে ঢাকাই চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় নির্মাতা জাকির হোসেন রাজু এক প্রযোজকের বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ করেছিলেন। এরপর নড়েচড়ে বসেন চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির নেতারা। বিষয়টি নিয়ে শিল্পী ও প্রযোজককে নিয়ে কয়েক দফায় বৈঠকেও বসেন পরিচালক সমিতির নেতৃবৃন্দ।

লিখিত অভিযোগে জাকির হোসেন রাজু বলেছিলেন, “আমি জাকির হোসেন রাজু, ‘দ্য অভি কথাচিত্র’-এর ব্যানারে ‘ভালো থেকো’ নামে একটি চলচ্চিত্র নির্মাণ করছি। চলচ্চিত্রটির দুটি গান ছাড়া বাকি সব চিত্রায়নের কাজ সম্পন্ন হয়েছে। গান দুটি কীভাবে হবে তা নিয়ে প্রযোজকের সঙ্গে কথা বলতে থাকি। কিন্তু তিনি নীরব থাকেন। গত ১৫ মার্চ একটি পত্রিকায় দেখি ‘ভালো থেকো’ চলচ্চিত্রটির গানের শুটিং হচ্ছে নেপালে। এতে আমি বিস্মিত হই। ফেসবুকেও গান চিত্রায়নের ছবি দেখতে পাই। অথচ ‘ভালা থেকো’ ছবির এই গান কে লিখেছেন, সুর কে করেছেন, গান কারা গাইলেন, চিত্রগ্রহণের কাজ কে করছেন, গান চিত্রায়নে কোরিওগ্রাফি কে করছেন, মেকাপ কে করছেন এর কোনো কিছুই আমি জানি না।’’

তিনি আরো বলেছিলেন, ‘নায়ক-নায়িকারাও আমাকে জানাননি যে, তারা শুটিংয়ে দেশের বাইরে যাচ্ছেন। বিষয়টি আমি বিশ্বাস করতে পারিনি। পরে তাদের ফোন করে দেখি ফোন বন্ধ। তা ছাড়া ফেসবুকে ছবি দেখে বুঝতে পারি তারা শুটিংয়ে অংশ নিয়েছেন। পরিচালককে না জানিয়ে এসব ঘটনা ঘটতে পারে এটা বিশ্বাস করা কষ্টকর। আমি মনে করি, এটা শুধু আমার নয়, সমস্ত পরিচালকের জন্যই অপমানজনক। আশা করি, আপনারা এর সুষ্ঠু সমাধানে দ্রুত উদ্যোগ নিয়ে পরিচালকদের সম্মান রক্ষা করবেন।’

এবারো জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত এই নির্মাতাকে ছাড়াই ‘মনের মত মানুষ পাইলাম না’ সিনেমার দুটি গানের দৃশ্যধারণ করা হবে তুরস্কে। সিনেমাটির শুটিং ইউনিট আজ তুরস্ক যাচ্ছেন। তবে এই দুটি গানের কোরিওগ্রাফি কে করছেন তা এখনো জানেন না পরিচালক জাকির হোসেন রাজু। কিন্তু তাতেও তার কোনো আপত্তি নেই। কারণ তার সম্মতিতেই এই দুটি গানের দৃশ্যধারণ হবে বলে রাইজিংবিডিকে জানান গুণী এই নির্মাতা।

দুটি সিনেমার গানের দৃশ্যধারণে পরিচালক নেই। এই দুটি ঘটনার পার্থক্য জানতে চাইলে জাকির হোসেন রাজু রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘এবার তো আমি সবকিছু বুঝিয়ে দিচ্ছি। এমন কাজ তো আমরা করেই থাকি। যেমন: আমি গেলাম না, আমার সহকারী বুঝে নিয়ে কাজটি শেষ করে। এ ক্ষেত্রে আমার চিন্তাভাবনা কিংবা আমি কী চাচ্ছি তা তারা ভালো করে বুঝে নেয়। কিন্তু যে বিষয়টি আমি জানি না, সেটা হওয়া উচিৎ নয়। কারণ সিনেমার পরিচালক আমি।’

গানের কোরিওগ্রাফার এবং শুটিং প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘শুটিং শুরুর নির্দিষ্ট তারিখ বলতে পারব না। শুটিং ইউনিট আজ তুরস্ক যাচ্ছে। আগামী সাত-দশ দিনের মধ্যে শুটিং হবে। আর কোরিওগ্রাফার কে থাকছেন তার চূড়ান্ত তালিকা এখনো দিতে পারব না। নানাজন নানা দিক থেকে আসবে তাই তালিকা পরে দিতে হবে। তরস্কে আমার প্রতিনিধি যাচ্ছে। তারা সবকিছু আমার কাছ থেকে বুঝে নিয়েছে। আমি মনে করি, কাজটি আমার মনের মতোই হবে। তা ছাড়া এখন অনলাইনের যুগ প্রয়োজন মতো কথাও বলে নিতে পারব।’

২০১৩ সালে ‘মনের মত মানুষ পাইলাম না’ সিনেমার মহরত অনুষ্ঠিত হয়। তখন সিনেমাটি শুটিংয়ের মুখ দেখেনি। তারপর কেটে গেছে দীর্ঘ সময়। অবশেষে গল্পে কিছুটা পরিবর্তন এনে সিনেমাটির শুটিং শুরু করতে যাচ্ছেন পরিচালক রাজু। গত রোববার সন্ধ্যায় রাজধানীর একটি স্টুডিওতে সিনেমাটির দুটি গানের রেকর্ডিং করা হয়। গাজী মাজহারুল আনোয়ার ও জাকির হোসেন রাজুর কথায় গান দুটির সুর ও সংগীত করেছেন শফিক তুহিন। এতে কণ্ঠ দিয়েছেন ক্লোজআপ ওয়ান তারকা খ্যাত সংগীতশিল্পী রাশেদ। সিনেমাটির এ দুটি গানের শুটিংয়ে অংশ নিতে তুরস্ক যাচ্ছেন শাকিব খান ও বুবলী।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৪ মে ২০১৯/রাহাত/শান্ত

Walton AC
     
Walton AC
Marcel Fridge