ঢাকা, শনিবার, ১০ আষাঢ় ১৪২৪, ২৪ জুন ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

পশুর জন্য কাঁদে তার মন

আসিফ রাতুল : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-০২-২৪ ৮:০৪:৩৭ এএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০২-২৪ ১২:১৪:৫৩ পিএম

আসিফ রাতুল : পাহাড়ের ঢাল বেয়ে নেমে এসেছে উঁচু নিচু ভূমি। জমির সবুজ ঘাস পানির অভাবে মরে গেছে। তবে সবুজের চিহ্ন নিয়ে দাঁড়িয়ে আছে নানা প্রজাতির গাছ। গাছের পাতাগুলো কিছুটা সবুজ। মাঠে ঘুরে বেড়াচ্ছে নানা প্রজাতির বুনো পশু। প্রখর রোদে কিছু গাছের নিচে ছায়া পেতে আশ্রয় নেয় এ সব প্রাণী। খরার কারণে কেনিয়ার বিভিন্ন জায়গায় এমন দৃশ্যপট তৈরি হয়েছে। কেনিয়ার একটি সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত ছবিতে এমন দৃশ্য দেখা যায়।

কেনিয়ার অধিকাংশ জায়গায় খরা প্রবণতা বেড়েছে। এতে মানুষের যেমন ভোগান্তি বেড়েছে তেমনি বন্যপ্রাণীও ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। এই বন্যপ্রাণীদের পানির অভাব পূরণ করছেন প্যাট্রিক কিলাঞ্জো ম্যালুয়া নামের এক ব্যক্তি।

বন্যপ্রাণীদের জন্য দৈনিক ৩ হাজার গ্যালন পানির যোগান দেন প্যাট্রিক। তিনি বলেন, ‘সেখানে কোথাও খাবার পানি নেই। তাই মানুষের দয়ার ওপর পশুদের নির্ভর করতে হচ্ছে। আমরা যদি তাদের সাহায্য না করি তবে তারা মারা যাবে।’

টিসাভোর পশ্চিম ন্যাশনাল পার্কের ধুলাময় রাস্তা দিয়ে কয়েক ঘণ্টা গাড়ি চালিয়ে পানি নিয়ে আসেন প্যাট্রিক। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘গত রাতে আমি ৫ শত মহিষকে পানির গর্তের সামনে  অপেক্ষা করতে দেখেছি। আমি যখন পানি নিয়ে সেখানে যাই  তখন মহিষগুলো আমাদের গাড়ির খুব কাছাকাছি চলে আসে। গর্তে পানি দেয়ার পর পানি পান করতে শুরু করে তারা। এ সময় তারা খুবই উত্তেজিত ছিল।’



পূর্ববর্তী বছরের খুব সামান্য বৃষ্টি এবং জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবের ধারণা নিয়ে স্বদেশে এসেছেন প্যাট্রিক। পানির অভাবে অসংখ্য প্রাণী মরতে দেখেছেন তিনি।

প্যাট্রিক ‘টিসাভো ভলান্টিয়ার্স’ নামে একটি সংরক্ষণ প্রকল্প পরিচালনা করছে। এ ছাড়াও স্থানীয় স্কুলে গিয়ে বন্যপ্রাণী সম্পর্কে শিক্ষার্থীদের সঙ্গেও কথা বলেন তিনি।

বন্যপ্রাণীদের পানি পানের কাজের জন্য ম্যালুয়া যুক্তরাষ্ট্রের তিন নারী এঞ্জিয়া ব্রাউন, চির ক্যালাওয়ে এবং তামি কেলিপ্স থেকে সাহায্য নিয়ে থাকেন। তারা ম্যালুয়ার সঙ্গে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকের মাধ্যমে যুক্ত হয়েছেন।

ম্যালুয়ার তহবিলে সারা বিশ্ব থেকে ৮৫ হাজার মার্কিন ডলার জমা হয়েছে। তাদের লক্ষ্য ছিল ১ লাখ মার্কিন ডলার। এই  অর্থ পানির ট্রাক ভাড়া বাবদ খরচ করা হবে। যার বিনিময়ে  ৪৫ কিলিমিটার দূর থেকে সপ্তাহে ১২ হাজার লিটার পানি আনা যাবে। যদি ম্যালুয়ার অর্থ বেশি হয় তবে পানি সংগ্রহের জন্য একটি ট্রাক কিনতে পারবেন।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭/শান্ত

Walton Laptop