ঢাকা, বুধবার, ৪ মাঘ ১৪২৪, ১৭ জানুয়ারি ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

৬ বছরেই তাকে নিয়ে হইচই

রাশিদা নূর : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-১২-১০ ৭:৫৯:০০ এএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০১-১৩ ৬:১৮:২৪ পিএম

রাশিদা নূর :  বয়স সবে মাত্র ছয়। এই বয়সেই গোটা দুনিয়ায় হইচই ফেলে দিয়েছে রুশ শিশুকন্যা অ্যানাস্তাসিয়া কেনিজেভা অ্যানা। বিশ্বের বাঘা বাঘা সংবাদমাধ্যম ফলাও করে ছাপছে তার খবর। কিন্তু কেন? এক কথায় উত্তর দিলে, নিজের ইনস্টাগ্রামে রেকর্ডসংখ্যক অনুসারী রয়েছে তার। এবং তারাই তাকে ‘বিশ্ব সুন্দরী’র খেতাব দিয়েছেন।

ইংলিশ জনপ্রিয় ট্যাবলয়েড ‘মেট্রো' জানিয়েছে, অ্যানার মা তাকে একটি ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট খুলে দেন। অবিশ্বাস্য ব্যাপার হলো, অ্যাকাউন্ট তৈরি করার পর পরই আড়াই মিলিয়ন অনুসারী যোগ দেয় তার ইনস্টাগ্রামে। ইতোমধ্যে সেটা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫ মিলিয়নেরও অধিক।

বলা যায়, অ্যানাকে এ উচ্চতায় নিয়ে যাওয়া কিংবা তাকে সুন্দরী হিসেবে বিশ্বের সামনে হাজির করার পেছনের কারিগর তার মা। যিনি নিয়মিত মেয়ের মডেলিং অ্যাডভেঞ্চারের ছবিগুলো ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেন।

সামাজিক মাধ্যমে অ্যানার তুমুল জনপ্রিয়তা দেখে ইউরোপের মিডিয়া তাকে নতুন থিলান ব্লনডিউ আখ্যা দিতে শুরু করেছে। কারণ ফরাসি মডেল থিলান ব্লনডিউয়ের মতোই অ্যানার রয়েছে আকর্ষণীয়া নীল চোখ আর বাদামি চুল। ছোটবেলায় দেখতে ঠিক এমনই ছিলেন ফরাসি মডেল থিলান ব্লনডিউ।

অ্যানার জনপ্রিয়তা দেখে হুমড়ি খাচ্ছে বড়সড় প্রতিষ্ঠানও। তাদের লক্ষ্য অ্যানাকে দিয়ে পণ্যের বিজ্ঞাপন করানো। ভক্তরাও তার গুণগানে পঞ্চমুখ। এক ভক্ত বলেই দিয়েছেন, অ্যানা একদিন রাশিয়ান সুপার মডেল ইরিনা শায়েকের আসন দখলে নেবে। অনেকে আবার অ্যানার মাকে কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছেন। তাদের বক্তব্য: ‘শিশুরা সুন্দর হয়, কিন্তু এত কম বয়সে নেট দুনিয়ায় অ্যানাকে আনা ঠিক হয়নি।’ এর আগে তরুণ রাশিয়ান মডেল ক্রিস্টিনা পিমেনোভাকে নিয়েও এমন বিতর্ক উঠেছিল। মাত্র আট বছর বয়সে তাকেও বিশ্বের সবচেয়ে সুন্দরী মেয়ে হিসেবে পরিচয় করিয়ে দেয়া হয়। সে সময় ফেসবুকে ২৫ লাখ ও ইনস্টাগ্রামে প্রায় পাঁচ লাখ অনুসারী ছিল তার। 



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১০ ডিসেম্বর ২০১৭/মারুফ/তারা

Walton
 
   
Marcel