ঢাকা, সোমবার, ৫ আষাঢ় ১৪২৫, ১৮ জুন ২০১৮
Risingbd
ঈদ মোরারক
সর্বশেষ:

নতুন বই পেয়ে আনন্দে উচ্ছ্বসিত শিক্ষার্থীরা

আমিনুর রহমান হৃদয় : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৮-০১-০১ ২:৫১:৩০ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০১-০১ ৪:২৭:৩৩ পিএম

আমিনুর রহমান হৃদয় : বছরের প্রথম দিনে বিনামূল্যে নতুন বই পেয়ে আনন্দে উচ্ছ্বসিত সারাদেশের প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

সোমবার সকাল সাড়ে ৯টা থেকেই সারাদেশে বই উৎসব পালন করা হয়। আর বই উৎসবে শিক্ষার্থীদের পদচারণায় মুখরিত হয়ে উঠেছিল বিদ্যালয়গুলো। নতুন বই হাতে পেয়েই শিক্ষার্থীরা আনন্দ-উল্লাসে মেতে উঠে।

ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ উপজেলার বেশ কয়েকটি বিদ্যালয় ঘুরে দেখা যায়, নতুন বই হাতে পেয়েই শিক্ষার্থীদের কেউ কেউ বইয়ের পাতা উল্টে-পাল্টে দেখতে শুরু করে। আবার অনেককে নতুন বইয়ের ঘ্রাণও নিতে দেখা যায়।

শীত উপেক্ষা করেই সকাল ৯টার দিকে মাকে সঙ্গে নিয়ে বিদ্যালয়ে উপস্থিত হয়েছিল পীরগঞ্জ মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণীর ছাত্র রিফাত হাসান। সে জানায়, নতুন বই নিতে অভিভাবকদের সঙ্গে আনতে বলেছিলেন শিক্ষকরা। তাই মাকেই সঙ্গে নিয়ে নতুন বই নিতে এসেছে। নতুন বই পাওয়ার পর রিফাতে অনুভূতি জানতে চাইলে সে বলে, ‘নতুন বছরে নতুন ক্লাসে নতুন বই পেয়ে সত্যিই খুব ভালো লাগেছ। আজকে থেকেই নতুন ক্লাসের বই পড়া শুরু করে দিব। পরীক্ষায় ভালো ফলাফল করতে হবে।’ তার মতো তানভীর, তমা, রিফা সহ অনেক খুদে শিক্ষার্থীই সকাল সকাল তাদের অভিভাবকদের সঙ্গে নিয়ে বিদ্যালয়ে উপস্থিত হয়েছিল নতুন বই নেওয়ার জন্য।

৪র্থ শ্রেণীর ছাত্র তানভীর আহমেদ বলেন, ‘৩য় শ্রেণীতে আমার রোল ছিল ৯৭ আর এবার ৪র্থ শ্রেণীতে হয়েছে ৬। এবারও মন দিয়ে পড়াশোনা করবো যাতে পরীক্ষায় ভালো ফলাফল করে ৫ম শ্রেণীতে আমার রোল ১ হয়।’

 



ভুবন বাবু নামে আরেক শিক্ষার্থী বলে, ‘বই হাতে পেয়েই প্রথমে একটু নতুন বইয়ের গন্ধ নিলাম। নতুন বইয়ের গন্ধটা খুব ভালো লাগে আমার।’

গতবছরের তুলনায় এবারের বইগুলো অনেক সুন্দর ও রঙিন এমটাই বলছিল শিক্ষার্থী তানিয়া আকতার। সে বলে, ‘নতুন বইগুলো হাতে পেয়েই বইয়ের পাতা উল্টে-পাল্টে দেখলাম। আমাদের ২য় শ্রেণীর বইয়ের ভিতরের ছবিগুলোও রঙিন।’

রিফা লাবিবা নামে এক শিক্ষার্থী বলেন, ‘আমার নতুন বইগুলো আজকেই মলাট লাগিয়ে নিব আম্মুর কাছে। যাতে নতুন বই ছিঁড়ে না যায়। সব সময় যেন আমার বইগুলো নতুন মনে হয়।’

ছেলের সঙ্গে এসেছিলেন অভিভাবক সাজু ইসলাম। তিনি বলেন, ‘বছরের প্রথমদিনে ছেলে নতুন বই পেয়ে খুব খুশি হয়েছে। এই বই উৎসব নিঃসন্দেহে বর্তমান সরকারের একটি ভালো উদ্যোগ।’

অভিভাবক আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, ‘বিনামূল্যে বই দেওয়ার কারণে অনেক দরিদ্র পরিবারের ছেলে-মেয়েরাও এখন পড়াশোনা করছে। স্কুলে আসছে।’



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১ জানুয়ারি ২০১৮/ফিরোজ

Walton Laptop
 
   
Walton AC