ঢাকা, সোমবার, ১ শ্রাবণ ১৪২৫, ১৬ জুলাই ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

এমবাপ্পে : তরুণ চাঁদে কলঙ্ক

শিলু হোসেন : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০৭-১২ ৯:২২:৪৫ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৭-১৩ ৮:১০:০৬ এএম

শিলু হোসেন : ১৯ বছর বয়সী এক দুরন্ত তরুণ রাশিয়া বিশ্বকাপে ফ্রান্সের সেরা তারকা! কৈশোরের ছাপটা তার চোখে-মুখে এখনো স্পষ্ট। হলে কী হবে, তিনিই সেমিফাইনালে উঠে বেলজিয়ামের আতঙ্কে পরিণত হয়েছিলেন! যদিও বেলজিয়ামের বিপক্ষে মাঠে নেমে গোল করতে পারেননি, তবে খেলেছেন দুর্দান্ত। এছাড়া কয়েকদিন আগেই রাউন্ড পর্বে দুই গোল দিয়ে আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ জেতার স্বপ্ন ভেঙে দিয়েছেন এই ফরাসি ফুটবলার। আর্জেন্টিনাকে হারানোর পর থেকে এখন পর্যন্ত তার নামটাই যেন ফুটবলপ্রেমীদের মুখে শোনা যাচ্ছে বারবার।

কিলিয়ান এমবাপ্পে। নামটা উচ্চারণ করলেই কিলিয়ান এমবাপ্পের জায়গায় কেন জানি ‘কিলার এমবাপ্পে’ চলে আসে! মাঠে প্রতিপক্ষের স্বপ্নের মৃত্যু ঘটাতে সে একজন কিলারই বটে! এমবাপ্পের দেশ ফ্রান্সকে দুটি স্মরণীয় ঘটনা উপহার দেয় ১৯৯৮ সাল। এক সেই বছর ব্রাজিলকে ৩-০ গোলে হারিয়ে প্রথমবারের মতো দেশটি বিশ্বকাপ শিরোপা জেতে। দুই সেই বছরেই জন্ম নেন এমবাপ্পে। এই সালটাতে ফ্রান্সের কাছে যেন বরের ভাণ্ডার নিয়ে এসেছিলেন নঈশ্বর! ৬ বছর বয়সে বাবা উইল ফ্রাইডের কাছে ফুটবল খেলার হাতেখড়ি এমবাপ্পের। এরপর তার কোচ হন এন্তোনিও রিকার্ডি। এমবাপ্পে সম্পর্কে সে সময়ে রিকার্ডি বলেন, কী ভয়ঙ্কর গতি তার ভেতরে! প্যারিসে তার মতো অনেক প্রতিভাবান ছেলে দেখেছি। তবে আমার ১৫ বছরের কোচ জীবনে এমন ছেলে কখনো দেখিনি।

এক সময় মোনাকো (এএসএম) ক্লাবে খেলতেন এমবাপ্পে। তার খেলার দ্যুতিতেই প্রথমবারের মতো লীগ-ওয়ান জেতে মোনাকো। বর্তমানে তিনি পিএসজি ক্লাবে খেলছেন। ফ্রান্সের ৪৪টি পেশাদার ক্লাবের আয়োজনে ২০১৬-১৭ মৌসুমে ফ্রেন্স লীগের ২৩তম আসরে প্রথম হ্যাটট্রিক করেন এমবাপ্পে। মাত্র এক মৌসুমেই নজর কাড়া ফুটবল খেলে ফুটবলের ‘ওয়ান সিজন ওয়ান্ডার’ হয়ে গেছেন তিনি। তার এই খেলা দেখেই পূর্বেকার সব রেকর্ড ভেঙে মাত্র ১৯ বছর বয়সী এই ফুটবল তারকাকে ২৭২ মিলিয়ন ইউরো দিয়ে পিএসজি থেকে কিনতে চাচ্ছে রিয়াল মাদ্রিদ। এ নিয়ে  গুঞ্জন তৈরি হয়েছে। এটা আশ্চর্যের বিষয় মনে হলেও সন্দেহ নেই যে, এমবাপ্পে প্রতিভাবান খেলোয়াড়।

ফ্রান্সের ফুটবল দলের ম্যানেজার আর্সেন ওয়েঙ্গার এমবাপ্পেকে ‘বহুমুখী ফুটবল খেলার অধিকারী’ হিসেবে অভিহিত করেছেন। সেই সঙ্গে তুলনা করেছেন ফ্রান্সের সাবেক ফুটবলার থিয়েরি অঁরির সাথে। শুধু নিজেদের লোকই না, এমবাপ্পেকে কিছুটা অন্যভাবে দেখছে অন্যান্য দলের ফুটবল বোদ্ধারাও। বেলজিয়ামের ফুটবল দলের অধিনায়ক হ্যাজার্ড বলেন, তার সাথে সেভাবে মেশা হয়নি তবে কথা হয়েছে কয়েকবার। খুবই বিনয়ী ছেলে সে। তবে এ রকম নীরব ছেলেরাই বিপ্লব ঘটায়। ছোটবেলায় আমার খেলার ভিডিও দেখতো এমবাপ্পে। তা সে নিজেই বলেছে। তবে আমি ততটা বুড়ো নই। কিন্তু ভাগ্যের কী পরিহাস ওর খেলার ভিডিও এখন আমাকে দেখতে হয়। তার প্রতিভার জন্যে  সম্মান জানাই তাকে। অনেকের মতে উঠতি এই ফুটবল তারকা আগামী সময়ে ফুটবল বিশ্ব শাসন করবে। ফুটবল বোদ্ধাদের কেউ কেউ তাকে ফুটবল বিশ্বের পরবর্তী রাজা বলে ঘোষণা দিয়েছেন। ফুটবল খেলায় যে তীক্ষ্ম বিচারবুদ্ধির মিলমিশ প্রয়োজন তার পুরোটাই যেন এমবাপ্পের খেলায় রয়েছে। বিপক্ষ দলের রক্ষণভাগ গুড়িয়ে দিয়ে বল নিয়ে গোলপোস্টে হানা দিতে দক্ষ এমবাপ্পে। এ কারণেই কোয়ার্টার ফাইনালে আর্জেন্টিনার কাছে আতঙ্ক হয়ে উঠেছিলেন তিনি।

বয়সের তুলনায় চ্যালেঞ্জটাও কম নিতে পারেন না এই খেলোয়াড়। অল্প বয়সে ফুটবলের খুঁটিনাটি বশে এনে ফেলেছেন। আর্জেন্টিনার বিপক্ষে কোয়ার্টার ফাইনালে তার খেলা দেখে ১৯৮৬ সালের বিশ্বকাপজয়ী ভালদানোও বলেন, ওর সামনে যে চ্যালেঞ্জ তা ওর প্রতিভার চাইতেও বেশি। রাশিয়া বিশ্বকাপে এ পর্যন্ত তিনটি গোল করেছেন এমবাপ্পে। আগামী ১৫ জুলাই ক্রোয়েশিয়ার সঙ্গে ফাইনালে মুখোমুখী হবে তারা। ১৯৯৮ সালে ফ্রান্সের প্রথম বারের মতো বিশ্বকাপ শিরোপা জেতা এবং এমবাপ্পের জন্মের ঘটনা যদি সত্যিই ঈশ্বরের বর হয়ে থাকে তবে রাশিয়া বিশ্বকাপ ফুটবলের এই বছরটিও ফ্রান্সের জন্যে আরেকটি স্মরণীয় ঘটনা হতে যাচ্ছে। আর সেটা হয়তো এমবাপ্পের গুণেই। তবে এতো প্রশংসার ভেতরেও অনেকে তার সমালোচনা করছেন গত ম্যাচে কয়েকটি ঘটনার কারণে। এ জন্য তাকে হলুদ কার্ডও দেখতে হয়েছে। অভিযোগ ম্যাচের শেষ সময়ে এসে তিনি বল নিয়ে সময় ক্ষেপণ করছিলেন। কারণ ততক্ষণে তাদের জয় নিশ্চিত হয়ে গেছে। অথচ প্রতিপক্ষ বেলজিয়াম গোল শোধ করতে তখন ছিল মরিয়া। যাই হোক, ফাইনালে আরেকটি জয় পেতে এমবাপ্পে যে আরো মরিয়া হবেন সে কথা চোখ বুজে বলা যায়। আর তা হলে ইতিহাসে নাম লেখাবেন এমবাপ্পে।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১২ জুলাই ২০১৮/তারা

Walton Laptop
 
     
Walton