ঢাকা, মঙ্গলবার, ৫ আষাঢ় ১৪২৫, ১৯ জুন ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

ভারতের অনুদানে নির্মিত হবে ৩৬ কমিউনিটি ক্লিনিক

আসাদ আল মাহমুদ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-১২-২৮ ৪:১৯:৪২ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-১২-২৮ ৪:১৯:৪২ পিএম

সচিবালয় প্রতিবেদক : বাংলাদেশ ও ভারতের বন্ধুত্বের নিদর্শন হিসেবে ভারত সরকারের অনুদানে বাংলাদেশের পাঁচ জেলায় ৩৬টি কমিউনিটি ক্লিনিক নির্মিত হবে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে সচিবালয়ে পার্টনার ইন পপুলেশন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট (পিপিডি) এবং স্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের (এইচইডি) মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে এ তথ্য জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, প্রতিটি ক্লিনিকের নির্মাণ ব্যয় ধরা হয়েছে ২৫ লাখ টাকা। সে হিসেবে ৩৬টি কমিউনিটি ক্লিনিক নির্মাণের জন্য ভারত সরকার ৯ কোটি টাকা অনুদান দেবে।

তিনি আরো জানান, জামালপুর, শেরপুর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, সুনামগঞ্জ ও হবিগঞ্জ জেলায় এসব ক্লিনিক নির্মাণ করা হবে। ক্লিনিক নির্মাণের জন্য ভারত সরকার ইতোমধ্যে ৪ কোটি ৫০ লাখ টাকা পিপিডিকে দিয়েছে। নির্মিতব্য কমিউনিটি ক্লিনিকগুলোর নকশা এবং ক্লিনিকগুলো নির্মাণের জন্য প্রয়োজণীয় ৫ শতক করে জমির রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন হয়েছে।

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, মানসম্মত স্বাস্থ্য, পরিবার পরিকল্পনা ও পুষ্টিসেবা নিশ্চিত করার মাধ্যমে গ্রামীণ জনগোষ্ঠী, বিশেষ করে দরিদ্র, নাজুক ও সুবিধাবঞ্চিত মানুষের স্বাস্থ্য তথা জীবনমানের উন্নয়নের লক্ষ্যে দেশে কমিউনিটি বেইজড হেলথ কেয়ার প্রকল্প চালু করা হয়েছে। বর্তমান সরকারের লক্ষ্য ২০৩০ সালের মধ্যে দেশের প্রতিটি নাগরিকের জন্য সুস্বাস্থ্য ও কল্যাণ নিশ্চিতসহ মানসম্মত স্বাস্থ্যসেবা টেকসই করার মাধ্যমে স্বাস্থ্যসেবা জনগণের কাছে সহজলভ্য করা।

তিনি আরো বলেন, দেশে ১৮ হাজার কমিউনিটি ক্লিনিক নির্মাণের লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে। ইতোমধ্যে ১৪ হাজার কমিউনিটি ক্লিনিক নির্মাণ করা হয়েছে। দেশের প্রতিটি কমিউনিটি ক্লিনিকে নিরবচ্ছিন্নভাবে ২৭ রকমের ওষুধ ও অস্থায়ী জন্মনিয়ন্ত্রণ সামগ্রী সরবরাহ করা হচ্ছে।

ক্লিনিকগুলোতে নিয়মিতভাবে মা ও নবজাতকের স্বাস্থ্যসেবা, অসুস্থ শিশুর সমন্বিত সেবা, প্রজনন স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনাসেবা, ইডিআই ও এআরআই, পুষ্টি শিক্ষাসহ বেশকিছু কার্যক্রম পরিচালনা করা হয় বলে জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

সভায় জানানো হয়, পিপিডির সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষরের পর এইচইডি ক্লিনিকগুলো নির্মাণের লক্ষ্যে দরপত্র আহ্বান করবে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। ক্লিনিকগুলোর নির্মাণ কাজ চলতি বছরের জুন মাস নাগাদ শেষ হবে।

ভারত সরকারের পক্ষে পার্টনার ইন পপুলেশন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্টের (পিপিডি) প্রকল্প প্রধান ড. নজরুল ইসলাম ও বাংলাদেশের পক্ষে প্রকৌশলী মো. আনোয়ার আলী চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন। এ সময় স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেক উপস্থিত ছিলেন।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/২৮ ডিসেম্বর ২০১৭/আসাদ/রফিক

Walton Laptop
 
   
Walton AC