ঢাকা, শুক্রবার, ১০ আষাঢ় ১৪২৪, ২৩ জুন ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

মার্কিন নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপ নিয়ে ফের পাল্টাপাল্টি অভিযোগ

কাওসার : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-০৪-২০ ৭:৪৮:০১ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৪-২০ ৭:৪৮:০১ পিএম
রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রে গত বছরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে সহযোগিতার অভিযোগ ওঠে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের বিরুদ্ধে। বুধবার তিনজন মার্কিন কর্মকর্তা রয়টার্সের কাছে এ বিষয়ে অভিযোগ করেছেন। এর আগে আরো চারজন মার্কিন কর্মকর্তা এ অভিযোগ করেছিলেন।

তবে রাশিয়ার পক্ষ থেকে বৃহস্পতিবার এ অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপের অভিযোগ অস্বীকার করে আসলেও লিখিত কোনো বিবৃতি দেওয়া হয়নি দেশটির পক্ষ থেকে। তবে বুধবারের ওই অভিযোগের পর লিখিত বিবৃতি দিয়ে তা অস্বীকার করা হয়েছে।

বুধবার ওই তিনজন মার্কিন কর্মকর্তা রাশিয়ার হস্তক্ষেপের ব্যাপারে দুটি দলিল উপস্থাপন করেছেন। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা সংস্থার দাবি ৮ নভেম্বরের নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপ রয়েছে। মস্কোভিত্তিক রাশিয়ান ইনস্টিটিউট ফর স্ট্রাটেজিক স্টাডিজ ওই দলিলগুলো তৈরি করেছে। ওই ইনস্টিটিউটটি পরিচালনা করেন পুতিনের কার্যালয় দ্বারা নিযুক্ত অবসরপ্রাপ্ত সিনিয়র রাশিয়ান বিদেশি গোয়েন্দা কর্মকর্তারা।

তবে ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেশকভ বলেন, বেনামি উৎসের ওপর ভিত্তি করে এ ধরনের রিপোর্ট তৈরি করা উচিত হয়নি।

রাশিয়ান ইনস্টিটিউটের প্রথম দলিলটি করা হয় গত বছরের জুনের একটি কৌশলপত্র নিয়ে। তাতে নির্দিষ্ট করে কারো ঠিকানা উল্লেখ করা ছিল না। রাশিয়া সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রপাগান্ডা ছড়িয়ে যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকদের বারাক ওবামার প্রশাসনের তুলনায় রাশিয়ার প্রতি ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি ফেরানোর চেষ্টা করেছিল।

ইনস্টিটিউটের দ্বিতীয় দলিলও একইভাবে প্রচার করা হয়েছিল। ডেমোক্রেটিক প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার আশঙ্কা প্রকাশ করে ট্রাম্পকে জেতানোর জন্য হিলারির জনপ্রিয়তা কমানোর চেষ্টা করেছিলেন পুতিন।

বর্তমান এবং সাবেক মার্কিন কর্মকর্তারা নাম প্রকাশ না করার শর্তে রাশিয়ান নথিগুলি সম্পর্কে মুখ খোলেন। তবে যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা সংস্থাগুলো এ বিষয়ে মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে।

বর্তমান ও সাবেক ওই কর্মকর্তারা বলেন, ওবামা প্রশাসনের ক্ষমতার শেষের দিকে এসে রাশিয়া ভুয়া খবর প্রচার করে। হিলারি ক্লিনটনের নির্বাচনী প্রচারণার বিরুদ্ধে সাইবার হামলাও চালান তারা।

তথ্যসূত্র : রয়টার্স অনলাইন।


 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/২০ এপ্রিল ২০১৭/কাওসার/রাসেল পারভেজ

Walton Laptop