ঢাকা, সোমবার, ৩ পৌষ ১৪২৫, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

সুপার কম্পিউটার বানাতে সংস্কৃত জানতে হবে!

শাহেদ হোসেন : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০৬-২১ ২:৩৬:১৩ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৬-২১ ২:৩৬:১৩ পিএম

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : সুপার কম্পিউটার বানাতে হলে দক্ষ হতে হবে সংস্কৃতে। এই মত ভারতের কেন্দ্রীয় দক্ষতা উন্নয়ন ও উদ্যোগ দফতরের প্রতিমন্ত্রী অনন্তকুমার হেগড়ের।
বুধবার কলকাতা চেম্বারের এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ও বক্তা ছিলেন ইতিমধ্যেই বার কয়েক বিতর্কিত মন্তব্যে শোরগোল ফেলে দেওয়া হেগড়ে।

যুব সম্প্রদায়ের দক্ষতা বৃদ্ধিতে নিজের মন্ত্রণালয়ের একগুচ্ছ পরিকল্পনার কথা বলার পাশাপাশি এ দিন ‘আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স’-এর মতো আধুনিক প্রযুক্তির পক্ষেও সওয়াল করেন তিনি। একই সঙ্গে সংস্কৃত থেকে শুরু করে আয়ুর্বেদসহ ভারতের ‘প্রাচীন’ ইতিহাস তুলে ধরার কথা বলেন তিনি।

হেগড়ের দাবি, চাকরির লক্ষ্যে সবাই ইংরেজি শেখেন। কিন্তু তার মতে, ‘শুধু ইংরেজি জানলেই হবে না, গণিতজ্ঞ ও বিজ্ঞানীরাই বলছেন সংস্কৃতও জানতে হবে। কম্পিউটারের ‘কোড ল্যাঙ্গুয়েজ’ ও ‘অ্যালগরিদম’-এর ক্ষেত্রে সংস্কৃত জরুরি। সুপার কম্পিউটার তৈরি করতে হলেও তা পড়তেই হবে। বিদেশি বিশ্ববিদ্যালয়েও সংস্কৃত পড়ানো হচ্ছে।’

তিনি আরও জানান,  গ্যালিলিওর অনেক আগেই ভারতে মনে করা হত পৃথিবী সূর্যের চারদিকে ঘোরে এবং ভারতই শূন্যর কথা প্রথম বলে। মন্ত্রীর দাবি, অ্যালোপ্যাথিক ওষুধের চেয়ে আয়ুর্বেদ ভাল।তাই আমেরিকাও তাতে ছাড়পত্র দিয়েছে।

তিনি জানান, ক্যানসারে যতোজনের মৃত্যু হয়, তারচেয়ে বেশি মৃত্যু হয় কেমোথেরাপির মাধ্যমে তার চিকিৎসা করাতে গিয়ে। যদিও এই দাবির ব্যাখ্যা তিনি দেননি।

হেগড়েএ দিন সময়ের সঙ্গে বদলের কথাও বলেছেন। আবারও জানিয়েছেন, ১০০০ বছর আগেকার ইতিহাসে ফিরে যাওয়ার কথা। কারণ তখনই ‘সোনার’ ভারত ছিল।

সূত্র : আনন্দবাজার



রাইজিংবিডি/ঢাকা/২১ জুন ২০১৮/শাহেদ

Walton Laptop
 
     
Marcel
Walton AC