ঢাকা, বুধবার, ৮ ফাল্গুন ১৪২৫, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

চিত্রশিল্পী থেকে সেরা মিউজিক ভিডিও নির্মাতা

মামুনুর রশিদ রাজিব : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-১২-১৯ ৩:২৯:২৩ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-১২-১৯ ৩:৩৫:৩০ পিএম

মামুনুর রশিদ রাজিব : মানুষ স্বপ্ন দেখতে ভালোবাসে, ভালোবাসে স্বপ্নের মতো করেই নিজের জীবনটাকে সাজাতে। কিন্তু ক’জন পারে তার সঠিক গন্তব্যে পৌঁছাতে। এমন অনেককে দেখেছি, কালের বিবর্তনে যাদের স্বপ্নগুলো হারিয়ে গেছে মরীচিকার মতো। আবার অনেকে আছেন, যারা শত বাধা উপেক্ষা করে স্বপ্ন রাজ্যে টিকে থাকে স্ব-মহিমায়, স্ব-গৌরবে। আর এমনি একজন স্বপ্নময়ী যুবক, ব্ল্যাক ক্যাট স্টুডিও’র সিইও এবং মিউজিক ভিডিও নির্মাতা চন্দন রায় চৌধুরী। সম্প্রতি তিনি শ্রেষ্ঠ মিউজিক ভিডিও নির্মাতা হিসেবে ‘চ্যানেল আই মিউজিক অ্যাওয়ার্ড ২০১৮’-তে ভূষিত হয়েছেন।

খুলনায় জন্ম নেয়া চন্দন রায় চৌধুরী জীবনের শুরুতেই প্রেমে পড়েAnchor যান চিত্রশিল্পের প্রতি। চিত্রশিল্পের প্রতি তার টান বলা চলে পৈত্রিকভাবেই পাওয়া। কারণ, বাবা তুষার রায় চৌধুরী পেশায় একজন ফটোগ্রাফার ছিলেন। সেই সাদাকালো ক্যামেরার যুগে তিনি ছবি প্রিন্ট করে তাতে নিজ হাতে রঙিন তুলির ছোয়ায় প্রাণবন্ত করে তুলতেন বেশ যত্ন করে। আর এসব দেখে দেখেই এক সময় ছেলে চন্দন রায়ের মনেও জায়গা করে নেয় চিত্রশিল্পের প্রতি প্রবল ভালোবাসা।

বাবার কিছুটা আপত্তি সত্ত্বেও মায়ের প্রেরণায় একসময় চন্দন রায় ভর্তি হন খুলনা আর্ট কলেজে।  চিত্রকর্মে বেশ ভালো করার পরও চন্দনের মনে যেন কিছুটা অপূর্ণতা থেকেই যাচ্ছিল। কিন্তু কি সেই অপূর্ণতা?  এক পর্যায়ে তিনি হয়তো উপলব্ধি করতে পারেন। আর তাইতো তিনি নিজেকে প্রশ্ন করে বসেন, আচ্ছা এই  নিষ্প্রাণ চিত্রকর্মগুলোকে যদি একটু প্রাণ দেয়া যায়, একটু স্বচল করা যায় তবে কেমন হয়?  ঠিক এ ধারণা থেকেই  তিনি শুরু করলেন নিষ্প্রাণ চিত্রকর্মগুলোকে প্রাণ দেয়ার কাজ মিউজিক ভিডিও নির্মাণ এবং পাশাপাশি স্নাতকোত্তর কোর্সে ভর্তি হলেন ঢাকার স্টামফোর্ড ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশের ফিল্ম অ্যান্ড মিডিয়া বিভাগে।  এদিকে ২০০৭ সালের দিকে তিনি নিজেই গড়ে তোলেন মিউজিক স্টুডিও ব্লাক ক্যাট।

যেখান থেকে তিনি একে একে করে ফেলেন-  বড়একা লাগে, আরাধনা, ধোয়া, ফিরে আসো না, এ জীবনে যাকে চেয়েছি’র মতো জনপ্রিয় মিউজিক ভিডিও। সম্প্রতি জীবনের প্রথম বড় ধরনের সম্মাননা ‘চ্যানেল আই মিউজিক অ্যাওয়ার্ড ২০১৮’ এনে দেয়া ‘মন কারিগর’ এর মতো মিউজিক ভিডিও।  সেরা মিউজিক ভিডিও নির্মাতা হিসেবে তিনি এই সম্মাননা পান।

চ্যানেল আই মিউজিক অ্যাওয়ার্ড ২০১৮’র  শ্রেষ্ঠ মিউজিক ভিডিও নির্মাতা হিসেবে সম্মাননা প্রাপ্তির বিষয়ে অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘আমি তখন অনেক ছোট ছিলাম। আমাদের এলাকায় তখন কোনো শহীদ মিনার ছিল না। আমি আর আমার বড় ভাই কোনো এক বছর রাতের গভীরে সবার আড়ালে  ২১শে ফেব্রুয়ারি উপলক্ষে চারুকল্পের মাধ্যমে শহীদ মিনারের কাজ করেছিলাম। সকাল বেলায় যখন সবাই আমাদের করা শহীদ মিনার দেখে ভূয়সী প্রশংসা করে একে একে শ্রদ্ধাভরে মিনারে ফুল দিতে থাকেন।  সেই দৃশ্য আমাকে চিত্রকর্মের প্রতি যেমন প্রবল ভালোবাসা যুগিয়েছিল তেমনি আজকের এই অ্যাওয়ার্ড আমাকে মিউজিক ভিডিও তৈরির কাজকে আরো উন্নত করতে সাহস এবং উৎসাহ জোগাবে। নিঃসন্দেহে এটা আমার জীবনে অনেক বড় একটা অর্জন।’

ভবিষ্যতে ভালো মানের ফিল্ম পরিচালনা করার স্বপ্ন দেখাএই মিউজিক ভিডিও নির্মাতা বিশ্বাস করেন, কাজের প্রতি ভালোবাসা এবং শ্রদ্ধাবোধ কাজে সফলতা এবং স্বার্থকতা বয়ে আনে।

 

 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৯ ডিসেম্বর ২০১৮/ফিরোজ

Walton Laptop
 
     
Marcel
Walton AC