ঢাকা, শুক্রবার, ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ১৭ নভেম্বর ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

ডা. ইকবালের স্ত্রীসহ তিন সন্তানকে হাইকোর্টের জামিন

মেহেদী হাসান ডালিম : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-০৩-১৬ ১২:১৩:৪৮ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৩-১৬ ১২:৫৭:৫৪ পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক :  আওয়ামী লীগের প্রাক্তন সংসদ সদস্য ডা.  এইচ বি এম ইকবালের কারাবন্দি স্ত্রীসহ তিন সন্তানকে ছয় মাসের জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট।

বৃহস্পতিবার বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি বিচারপতি কৃষ্ণা দেবনাথের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

এর আগে গতকাল একই বেঞ্চ ডা. ইকবালের কারাবন্দি স্ত্রীসহ তিন সন্তানের তিন বছরের সাজার বিরুদ্ধে বিলম্বে আপিল করার বিষয়টি মার্জনা করেন।আদালতে ইকবালের পরিবারের পক্ষে ছিলেন সিনিয়র আইনজীবী আবদুল বাসেত মজুমদার। দুদকের পক্ষে ছিলেন খুরশিদ আলম খান।

সম্পত্তির বিবরণী দাখিলের জন্য ২০০৭ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি ইকবাল পরিবারকে নোটিশ দেয় দুদক। পরবর্তীতে একই সালের ২৪ মে  মামলা করে দুদক।

এ মামলায় বিচারিক আদালত ২০০৮ সালের ১১ মার্চ ইকবালকে অবৈধ সম্পদ অর্জনের দায়ে ১০ বছর এবং মিথ্যা সম্পদ বিবরণী দাখিলের কারণে আরো তিন বছরের কারাদণ্ডের পাশাপাশি ৫০ লাখ টাকা জরিমানার আদেশ দেন।

একইসঙ্গে তার স্ত্রী মমতাজ বেগম, দুই ছেলে মোহাম্মদ ইমরান ইকবাল ও মঈন ইকবাল এবং মেয়ে নওরীন ইকবালকে তিন বছর করে কারাদণ্ড দেওয়া হয়।  প্রত্যেককে এক লাখ টাকা করে জরিমানাও করা হয়।

পরে ইকবাল আত্মসমর্পণ করেন, হাইকোর্ট থেকে খালাস পান। তবে তার স্ত্রী, দুই ছেলে ও এক মেয়ে আদালতে কখনো আত্মসমর্পণ করেননি। কিন্তু হাইকোর্টে আবেদন করলে তাদের সাজার কার্যকারিতা স্থগিত করা হয়।

এর বিরুদ্ধে গত বছরের ১৫ নভেম্বর আপিলে আবেদন করেন দুদক। ২৭ নভেম্বর আপিল বিভাগ তাদের সাজার কার্যেকারিতা স্থগিতে হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত করেন। এর ফলে ইকবালের স্ত্রী মমতাজ বেগম, দুই ছেলে মঈনুদ্দিন ইকবাল ও ইমরান ইকবাল এবং মেয়ে নওরিন ইকবালকে নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণ করতে  বলেন।

এ আদেশের পর ইকবালের পরিবার ৮ মার্চ বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণ করলে তাদেরকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। পরদিন তারা হাইকোর্টে আপিল করেন।




রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৬ মার্চ ২০১৭/মেহেদী/ইভা

Walton
 
   
Marcel