ঢাকা, মঙ্গলবার, ৯ কার্তিক ১৪২৪, ২৪ অক্টোবর ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

পা যেন তার হাত

মনিরুল হক ফিরোজ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-০৩-০১ ৬:৫৬:৩৪ এএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৩-০১ ৭:৪৯:৪০ পিএম
আদ্রিয়ানা আইরিন মাসিস হার্নান্দেজ

লাইফস্টাইল ডেস্ক : ম্যাক্সিকোর ৩৯ বছর বয়সী এক নারী যিনি জন্মেছিলেন দুটি হাত ছাড়া, তিনি সম্প্রতি গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে নাম তুলেছেন, পা দিয়ে ১ মিনিটে সর্বোচ্চ সংখ্যক মোমবাতি জ্বালিয়ে।

মেক্সিকোর গুয়াদালাজারা শহরের বাসিন্দা আদ্রিয়ানা আইরিন মাসিস হার্নান্দেজ নামক এই নারী, রেকর্ড প্রচেষ্টার জন্য জনপ্রিয় ইতালির ‘লো শো দেই রেকর্ড’ টিভি অনুষ্ঠানে পুরোনো বিশ্ব রেকর্ডটি ভেঙেছেন।

হার্নান্দেজ ৬০ সেকেন্ডে তার পা দিয়ে ১১টি মোমবাতি জ্বালিয়ে নতুন বিশ্ব রেকর্ড গড়েছেন, ২০১৪ সালে যুক্তরাষ্ট্রের অ্যাশরিতা ফারম্যানের ৭টি মোমবাতির জ্বালানোর রেকর্ডটি ভেঙে দিয়ে।

তবে, হার্নান্দেজের লাইফস্টাইলের দিকে দৃষ্টিপাত করলে নিঃসন্দেহে আপনার মনে হবে এটা শুধু তার অনেক প্রতিভার মধ্যে অন্যতম। কিংবা বলা যায়, পা দিয়ে তার ১১টি মোমবাতি জ্বালানোর ঘটনাটি তার অসামান্য জীবনযাপনের কাছে খুব সামান্যই মনে হবে আপনার।

কেননা মানুষের দৈনন্দিন কাজকর্মের জন্য অত্যাবশ্যকীয় হাত না থাকা সত্ত্বেও, তিনি সব ধরনের হাতের কাজ পা দিয়ে করে স্বাভাবিক জীবনযাপনে অভ্যস্ত।

অসামান্য মনোবলের অধিকারী ও হাতের কাজ পা দিয়ে করায় অত্যন্ত দক্ষ হওয়ায় হার্নান্দেজকে নিয়ে ডকুমেন্টারি প্রচারিত হয়েছে ন্যাশনাল জিওগ্রাফি চ্যানেলে। নিজ দেশে তারকা পর্যায়ের খ্যাতি রয়েছে তার। বিভিন্ন টিভি চ্যানেল তার অবিশ্বাস্য স্বাভাবিক জীবনযাপন করার দক্ষতা নিয়ে অনুষ্ঠান প্রচার করেছে। সাজসজ্জা ও গৃহসজ্জার বিভিন্ন জিনিসপত্র হাতে কিভাবে তৈরি করতে হয়, সেই টিপস টিভি অনুষ্ঠানে তিনি পা দিয়ে তৈরি করে নিয়মিত দেখিয়ে থাকেন।

আইন বিষয়ে গ্র্যাজুয়েট সম্পন্নকারী এই নারী সর্বাধিক বিক্রিত বেশ কিছু বইয়ের লেখিকা এবং দেশ-বিদেশে মানুষদের শারীরিক অক্ষমতার চিন্তা উন্নয়নে নিয়মিত কর্মশালা করিয়ে থাকেন।

ব্যক্তিগত জীবনে তিনি তার পা দিয়েই একমাত্র সন্তানকে লালনপালন, রান্না, লেখালেখি, ফোন ব্যবহার, গাড়ি চালানো, চুল আচরানো এবং মেকআপ নিজেই করে থাকেন।

তার জীবনযাপনে পা দিয়ে অতি দক্ষতার সঙ্গে হাতের সব কাজ করার কিছু ভিডিও এবার দেখে নিন।






তথ্যসূত্র : হাফিংটন পোস্ট



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১ মার্চ ২০১৭/ফিরোজ

Walton
 
   
Marcel