ঢাকা, শুক্রবার, ৩ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৯ জুলাই ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে শেষ আটে ওয়ালটন

ইয়াসিন : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৭-১২-৩০ ৯:১১:২০ এএম     ||     আপডেট: ২০১৭-১২-৩০ ২:৫৪:১৩ পিএম
গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে শেষ আটে ওয়ালটন
Voice Control HD Smart LED

ক্রীড়া প্রতিবেদক: টানা তিন ম্যাচে তিন জয়। দুর্দান্ত ওয়ালটন গ্রুপ। করপোরেট ক্রিকেটের সবথেকে ধারাবাহিক দল গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে মার্সেল সপ্তম টি-টোয়েন্টি করপোরেট ক্রিকেট টুর্নামেন্টের কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছে।

প্রথম দুই ম্যাচ জিতে আগেই কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করে উদয় হাকিমের দল। আজ শেষ ম্যাচটি ছিল শ্রেষ্ঠত্বের লড়াইয়ের। ম্যাচে মার্কেন্টাইল ব্যাংককে ২ উইকেটে হারিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয় করপোরেট ক্রিকেটের বর্তমান রাজারা।

টস হেরে ফিল্ডিং করতে নেমে মার্কেন্টাইল ব্যাংককে ১৫৫ রানে আটকে রাখে ওয়ালটন। জবাবে ১ বল ও ২ উইকেট হাতে রেখে সহজেই জয়ের বন্দরে নোঙর ফেলে শিরোপা প্রত্যাশী দলটি। ব্যাট-বলে দারুণ ক্রিকেট খেলে জয় তুলতে বেগ পেতে হয়নি ওয়ালটন গ্রুপকে।

অলরাউন্ড পারফরম্যান্সে ম্যাচসেরা নির্বাচিত হয়েছেন নুরুল আফসার চৌধুরী। প্রথমে বল হাতে ৪ ওভারে ২৭ রানে ২ উইকেট নেন নুরুল আফসার। পরবর্তীতে ব্যাট হাতে ২৩ রান করে ম্যাচ জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন ডানহাতি এ অলরাউন্ডার। ম্যাচসেরা নির্বাচিত হওয়া নুরুল আফসারকে পুরস্কার তুলে দেন ওয়ালটন গ্রুপের নির্বাহী পরিচালক (পলিসি, এইচআরএম অ্যান্ড এডমিন) এস এম জাহিদ হাসান। 

ওয়ালটনের মতো আগেই টুর্নামেন্টের কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করে মার্কেন্টাইল ব্যাংক। দুই দলের জন্য ম্যাচটি ছিল গ্রুপ সেরা হওয়ার লড়াই। ঢাকা রেসিডেন্সিয়াল মডেল স্কুলের এক নম্বর মাঠে সকাল ৯টায় মাঠে নামে দুই দল।

শুরুতেই বল হাতে ওয়ালটনের বোলাররা ছিল নিয়ন্ত্রিত। ২০ ওভার শেষ করতে পাঁচ বোলার ব্যবহার করেন অধিনায়ক উদয় হাকিম। কাজী ওমর ফারুক বাদে প্রত্যেক বোলার ছিলেন মিতব্যয়ী। সর্বোচ্চ ২টি করে উইকেট পান নুরুল আফসার চৌধুরী, জনি সোম ও কাজী উমর ফারুক। উমর ফারুক ৪৩ রানে ২ উইকেট নিলেও নুরুল আফসার ২৭ রানে এবং জনি সোম ২২ রানে ২টি করে উইকেট নেন। ১টি করে উইকেট পকেটে পুরেন রাহাতুল ইসলাম নাজেল ও সাহেল মিয়া।

মার্কেন্টাইল ব্যাংককের হয়ে সর্বোচ্চ ২৫ রান করেন ওপেনার মোহাইমেনুল। আরেক ওপেনার আকরাম হোসেনের ব্যাট থেকে আসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৩ রান। এছাড়া ফয়েজ আহমেদ ১৭ ও কামরুল রুবেল ১৫ রান করেন।
 


জবাবে ব্যাটিং করতে নেমে সাহেল মিয়ার দুর্দান্ত সূচনায় শুরুতেই এগিয়ে যায় ওয়ালটন। ডানহাতি এ ওপেনার করেন ৩০ রান। তাকে সঙ্গ দেন জনি সোম (১৫)। কিন্তু এক রানের ব্যবধানে দুই ওপেনার সাজঘরে ফিরে গেলে কিছুটা চাপে পড়ে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা।

সেখান থেকে দলকে চাপমুক্ত করেন সাজ্জাদ হোসেন (১৩) ও আব্দুল্লাহ আল মামুন (১৯)। মিডল অর্ডারের এ দুই ব্যাটসম্যান ফিরেন দলীয় ৮৪ ও ৮৭ রানে। সেখান থেকে নুরুল আফসার চৌধুরী দলের হাল ধরেন।

২৩ রান করে দলকে জয়ের স্বাদ দেন তিনি। এছাড়া ১১ রান করেন কাজী ওমর ফারুক চৌধুরী। ৭ রান আসে সাইফুলের ব্যাট থেকে। নুরুল আফসারের সাথে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন ফিরোজ আলম।  

এর আগে টুর্নামেন্টের প্রথম দুই ম্যাচ দাপটের সাথে জিতেছে উদয় হাকিমের নেতৃত্বাধীন ওয়ালটন দল। গত আসরের অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন ওয়ালটন এবারও শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট জিততে চায়। প্রথম ম্যাচে এনার্জিপ্যাক ইঞ্জিনিয়ারিংকে হারানোর পর দ্বিতীয় ম্যাচে এক্সিকিউটিভ কমিটির বিপক্ষে বড় জয় পায় ওয়ালটন।

এসিমস-এর আয়োজন ও ব্যবস্থাপনায় ঢাকা রেসিডেন্সিয়াল মডেল স্কুলের ৩টি ও শ্যামলী মাঠে এবারের টুর্নামেন্টের খেলাগুলো হচ্ছে। মোট ১৬টি দল ৪টি গ্রুপে ভাগ হয়ে টুর্নামেন্টে অংশ নিয়েছে।

গ্রুপপর্বে সবাই সবার সঙ্গে একটি করে ম্যাচ খেলবে। প্রতি গ্রুপের শীর্ষ দুটি দল যাবে কোয়ার্টার ফাইনালে। এরপর হবে সেমিফাইনাল ও ফাইনাল। ফাইনাল হবে ২০১৮ সালের ১৯ জানুয়ারি।

এই টুর্নামেন্টের মিডিয়া পার্টনার দেশের অন্যতম জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল রাইজিংবিডি ডটকম। আর বেভারেজ পার্টনার নেসলে বাংলাদেশ।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/৩০ ডিসেম্বর ২০১৭/ইয়াসিন

Walton AC
ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন
       

Walton AC
Marcel Fridge