ঢাকা, শনিবার, ৮ আশ্বিন ১৪২৪, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

পোড়া মার্কেটে বেচা-বিক্রি শুরু

মাকসুদুর রহমান : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-০২-১৭ ৫:৪২:১৩ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০২-১৭ ৫:৪২:১৩ পিএম
ফাইল ফটো

নিজস্ব প্রতিবেদক : পুরোনো চেহারায় ফিরে যাচ্ছে আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত গুলশান ডিএনসিসি মার্কেট।

ধ্বসে যাওয়া অংশে এবং সামনের খোলা জায়গায় নির্মিত অস্থায়ী দোকানে বেচাকেনা শুরু করেছেন ব্যবসায়ীরা। ক্রেতারাও এসে পছন্দের পণ্যটি কিনে নিয়ে যাচ্ছেন।

সরেজমিন দেখা যায়, বাঁশ এবং তাঁবুর ছাদ দিয়ে কোনো এক ক্যাম্পের মতো মার্কেট গড়ে তোলা হয়েছে। ছোট-ছোট দোকান। এরই মধ্যে নানা ধরনের পণ্য দিয়ে পসরা সাজিয়েছেন ব্যবসায়ীরা।  ক্রেতারাও তাদের পছন্দের পণ্যের দাম জিজ্ঞাসা করে কিনছিলেন। তবে দোকানগুলো অস্থায়ী বলছিলেন ব্যবসায়ীরা।

কসমেটিকস দোকানরদার গোলাম কিবরিয়া বলেন, ‘সবেমাত্র বেচা শুরু হলো। তাও ক্রেতা অনেক কম। আর আগুনে যে ক্ষতি হয়েছে তা পূরণের নয়।’ তবে এ ক্ষতি পুষিয়ে নেওয়ার জন্য তার মতো সবাই নতুন করে সংগ্রাম শুরু করেছেন।

গুলশান-১ এর সুস্মিতা সরোয়ার এসেছিলেন পেসার কুকার কিনতে। কিনে ফিরে যাওয়ার সময় রাইজিংবিডিকে বলছিলেন, ‘মার্কেটটি বন্ধ থাকায় অনেক সমস্যা হয়েছে। এখানের পণ্যের দাম বেশি না। মানও ভাল।’

পাকা ও কাঁচাবাজার মালিক সমিতির চেয়ারম্যান শের মোহাম্মদ বলেন, ‘ব্যবসায়ীদের কথা চিন্তা করে আপাতত এটি করা হয়েছে। এখানেই পরিকল্পিতভাবে মার্কেট গড়ে তোলা হবে। সেক্ষেত্রে সব ব্যবসায়ী দোকান পাবেন। যেখানে ব্যবসায়ীরা ব্যবসা করবেন।’ একই সঙ্গে কোনো ষড়যন্ত্র করে এখান থেকে ব্যবসায়ীদের উচ্ছেদ করা যাবে না বলে তিনি হুঁশিয়ার করেন।

২ জানুয়ারি দিবাগত রাতে ডিএনসিসি মার্কেটের আগুনে ৬৩৪টি দোকানের অধিকাংশই পুড়ে যায়। প্রায় দেড় মাস পর ৩০৬ ব্যবসায়ীকে দোকান বরাদ্দ দেয় উত্তর সিটি করপোরেশন।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৭/মাকসুদ/সাইফুল

Walton Laptop