ঢাকা, রবিবার, ৮ শ্রাবণ ১৪২৪, ২৩ জুলাই ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

সরকারি কার্যক্রম জানাতে উদ্ভাবনী মেলার আয়োজন হবে

আসাদ আল মাহমুদ : রাইজিংবিডি ডট কম
প্রকাশ: ২০১৭-০৪-২০ ৯:২৭:৩৫ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৪-২১ ৮:৪২:২৭ এএম

নিজস্ব প্রতিবেদক : সরকারি কার্যক্রম জনগণকে জানাতে আরো বড় পরিসরে উদ্ভাবনী মেলার আয়োজন করা হবে বলে জানিয়েছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা প্লাজায় মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ আয়োজিত দিনব্যাপী ‘ইনোভেশন শোকেসিং-২০১৭’ এর সমাপনী অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন মোহাম্মদ শফিউল আলম।

তিনি বলেন, সরকারি কার্যক্রম জনগণকে জানাতে আরো বড় পরিসরে উদ্ভাবনী মেলার আয়োজন করতে হবে। বিভিন্ন উদ্ভাবনী ধারণা বেশি বেশি প্রচার প্রচারণার মাধ্যমে জনগণকে জানাতে হবে যাতে করে তাদের মধ্যেও একটা উদ্ভাবকের জাগরণ সৃষ্টি হয়। স্বীকৃত উদ্ভাবনী ধারনাগুলো মাঠপর্যায়ে অনুসরণ ও বাস্তবায়নের মাধ্যমে আমরা আমাদের লক্ষ্যে পৌঁছাতে সক্ষম হবো।

তিনি আরো বলেন, অন্যের চাহিদা বা বলার জন্য অপেক্ষা না করে নিজেকে উদ্যোগী হতে হবে। নতুন নতুন উদ্ভাবনী ধারণা সেবা দাতা এবং সেবা গ্রহীতা উভয়দিক থেকেই আসতে হবে।

মাঠপর্যায়ে সকল দপ্তরকে উদ্ভাবনী প্রক্রিয়ায় অন্তর্ভুক্ত হতে হবে।

‘ইনোভেশন শোকেসিং’ এ দেশের আটটি বিভাগ, দুটি জেলা চাঁদপুর ও জামালপুর এবং মন্ত্রিপরিষদ বিভাগসহ মোট ১৩টি স্টল প্রদর্শনীতে স্থান পায়। স্টলগুলোতে স্ব স্ব বিভাগ, জেলা ও দপ্তরের উদ্ভাবনী ধারণা তুলে ধরা হয়। উল্লেখযোগ্য উদ্ভাবনীর মধ্যে ছিল অনলাইন টিভির মাধ্যমে জনসচেতনা বৃদ্ধি ও সমস্যা উত্থাপন এবং সমাধানের চিত্র, অনলাইনের মাধ্যমে বিদেশি পর্যটকদের ভ্রমণ সহজীকরণ, সোস্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে সমস্যার উত্থাপন খাল পুনরুদ্ধার ও খনন, অনলাইন ভূমি সেবা, পেনশন কার্যক্রম সহজীকরণ, ইকো ট্যুরিজমসহ নানা বিষয়।

অনুষ্ঠানে বিভিন্ন উদ্ভাবনী ধারণার জন্য তিনজনকে সম্মাননা প্রদান করা হয়। এ ছাড়া ইনোভেশন শোকেসিংয়ে অংশগ্রহণের জন্য সবাইকে সনদপত্র প্রদান করা হয়। 

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিব (সমন্বয় ও সংস্কার) এন এম জিয়াউল আলমের সভাপতিত্বে ‘মাঠপর্যায় উদ্ভাবনী উদ্যোগ পর্যালোচনা ও শোকেসিং’ শীর্ষক মূল আলোচনা পর্বের শুরুতে উন্মুক্ত আলোচনায় আমন্ত্রিত বিভিন্ন বিভাগ, জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের কর্মকর্তারা বিভিন্ন মতামত সমস্যা ও পরামর্শ ব্যক্ত করেন।

বিশেষ অতিথি হিসেবে এসডিজি বিষয়ক প্রধান সমন্বয়ক মো.  আবুল কালাম আজাদ ভূমি মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মেসবাউল আলম, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব সোলতান আহমেদ ও মো. মাকসুদুর রহমান পাটওয়ারী।

উদ্ভাবন কর্মপরিকল্পনার উদ্দেশ্য হল সরকারি দপ্তরে উদ্ভাবনী কার্যক্রমকে সুশৃঙ্খল, নিয়মতান্ত্রিক ও প্রাতিষ্ঠানিকীকরণ এবং এ লক্ষ্যে দায়বদ্ধতা সৃষ্টি এবং সরকারি দপ্তরের কর্মকাণ্ডের স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা প্রতিষ্ঠা এবং ভোগান্তি লাঘব করে নাগরিক সেবা পৌঁছে দেওয়ার মাধ্যমে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত সোনার বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/২০ এপ্রিল ২০১৭/আসাদ/হাসান/সাইফ

Walton Laptop