ঢাকা, বুধবার, ১১ আশ্বিন ১৪২৫, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

২২ লাখ ৩৭ হাজার যুবককে বিভিন্ন ট্রেডে প্রশিক্ষণ

আসাদ আল মাহমুদ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০৭-০৮ ৮:৩৬:০৩ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৭-১৫ ৮:১৮:২৯ এএম

সংসদ প্রতিবেদক : যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী ড. বীরেন শিকদার জানিয়েছেন, আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন সরকারের আমলে গত ৯ বছরে ২২ লাখ ৩৭ হাজার ৮৬ জন যুবক ও যুব মহিলাকে বিভিন্ন ট্রেডে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। এ সময়ে আত্মকর্মসংস্থানের লক্ষ্যে ৫ লাখ ৮৬ হাজার ৫৯১ জনকে ৮১৬ কোটি ৩৩ লাখ ৬ হাজার টাকা ঋণ দেওয়া হয়েছে।

রোববার জাতীয় সংসদে প্রশ্নোত্তর পর্বে সরকারি দলের সংসদ সদস্য মো. আনোয়ারুল আজীমের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব তথ্য জানান।

যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জানান, যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর বেকার যুবদেরকে দক্ষ মানবসম্পদে পরিণত করতে প্রাতিষ্ঠানিক ও অপ্রাতিষ্ঠানিক ৭৫টি ট্রেডে দেশব্যাপী প্রশিক্ষণ দিচ্ছে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, সরকার যুবগোষ্ঠীকে সম্পৃক্ত করতে ২০০৯-১০ অর্থবছর থেকে ‘ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মসূচি’ বাস্তবায়ন করছে। এ কর্মসূচির আওতায় ২৪ থেকে ৩৫ বছর বয়সী উচ্চ মাধ্যমিক ও তদূর্ধ্ব শিক্ষাগত যোগ্যতাসম্পন্ন বেকার যুবক ও যুব মহিলাকে ১০টি সুনির্দিষ্ট মডিউলে ৩ মাস মেয়াদী মৌলিক প্রশিক্ষণ প্রদানের পর জাতিগঠনমূলক কর্মকাণ্ডে সম্পৃক্তকরণের মাধ্যমে অস্থায়ী কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা হয়। ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মসূচির আওতায় গত বছরের ডিসেম্বর পর্যন্ত ১ লাখ ২৮ হাজার ৮৯৬ জনকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে এবং ১ লাখ ২৬ হাজার ৫৬১ জনকে জাতিগঠনমূলক কর্মকাণ্ডে সম্পৃক্ত করার মাধ্যমে ২ বছরের অস্থায়ী কর্মে নিযুক্ত করা হয়েছে।

তিনি জানান, যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর, জনশক্তি, কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরো এবং এসএ ট্রেডিংয়ের যৌথ উদ্যোগে ‘হাউজকিপিং’ বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেওয়ার ফলে ২০১৪ সাল থেকে ২০১৭ পর্যন্ত মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোতে ১ হাজার ৯৮৪ জন এবং হংকংয়ে ৬১ জন মোট ২ হাজার ৪৫ জনের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে।

তিনি আরো জানান, যুবকদের আত্মনির্ভরশীল হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে আত্মকর্মসংস্থানের জন্য দক্ষতা প্রদানের সঙ্গে সঙ্গে উদ্যোক্তা হিসেবেও গড়ে তোলার বিভিন্ন পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে।

সংসদ সদস্য এম এ আউয়ালের প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী সংসদে জানান, খেলাধুলার উন্নয়নে বর্তমানে ‘উপজেলা পর্যায়ে মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণ- ১ম পর্যায় (১৩১টি)’ শীর্ষক প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। ওই প্রকল্পের সংশ্লিষ্ট সকল উপজেলায় মিনি স্টেডিয়ামসমূহের নামকরণ জাতির পিতার কনিষ্ঠপুত্র শহীদ শেখ রাসেলের নামানুসারে ‘শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম’ করা হবে। ওই প্রকল্পের আওতায় লক্ষ্মীপুর জেলার রামগঞ্জ উপজেলায় একটি মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/৮ জুলাই ২০১৮/আসাদ/রফিক

Walton Laptop
 
     
Walton