ঢাকা, বুধবার, ২৯ কার্তিক ১৪২৫, ১৪ নভেম্বর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

কৃষি শুমারিতে যুক্ত হচ্ছে মৎস খাত

হাসিবুল ইসলাম : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-১০-১০ ৭:৪৮:৩৭ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-১০-১০ ৭:৪৮:৩৭ পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক : আগামী বছরের এপ্রিলে দেশব্যাপী কৃষি খানাসহ সকল খানার কৃষি (শস্য, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ) অবকাঠামোর তথ্য সংগ্রহ করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো (বিবিএস)।

প্রাণিসম্পদ ও মৎস্য খানাসমূহের তালিকা তৈরি করে তালিকা অনুসারে নির্বাচিত খানাসমূহে বিস্তারিত তথ্য সংগ্রহ করা হবে।

গত ২০০৮ সালের কৃষি শুমারিতে সাধারণত ১২৬টি স্থায়ী ও অস্থায়ী ফসলের তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছিলো। বর্তমানে সরকারের কৃষিবান্ধব নানা প্রকল্প ও কর্মসূচি গ্রহণের ফলে ফসলের বৈচিত্র ও পরিমাণ বেড়েছে। এজন্য চলতি অর্থবছরে কৃষি শুমারিতে প্রায় ১৭০টি ফসলের তথ্য সংগ্রহ করা হবে।

এর আগের কৃষি শুমারিতে মৎস্য খাতের পূর্ণাঙ্গ তথ্য সংগ্রহ করা হয়নি। এ বছর এই প্রথম বারের মত শুমারিতে মৎস্য খাতের পূর্ণাঙ্গ তথ্য সংগ্রহ করা হবে।

তাছাড়া খাদ্য নিরাপত্তা সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় তথ্যও শুমারির মাধ্যমে সংগ্রহ করা হবে যা সরকারের পরিকল্পনা প্রণয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

বুধবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে বিবিএস ভবনের অডিটরিয়ামে বিবিএস এবং জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থার যৌথ উদ্যোগে কৃষি শুমারির এক কর্মশালায় প্রকল্প পরিচালক (যুগ্ম-সচিব) জাফর আহম্মদ খান এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের সচিব সৌরেন্দ্র নাথ চক্রবর্তী, বিশেষ অতিথি ছিলেন পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব বিকাশ কিশোর দাস এবং এতে সভাপতিত্ব করেন বিবিএসের মহাপরিচালক ড. কৃষ্ণা গায়েন।

প্রকল্প পরিচালক মূল উপস্থাপনায় বলেন, ‘কৃষি (শস্য, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ) শুমারি-২০১৮ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় এ কার্যক্রমের অংশ হিসেবে প্রথমে প্রতিমূলক জোনাল অপারেশন অনুষ্ঠিত হবে। জোনাল অপারেশনে দেশের সকল সাধারণ খানায় সংক্ষিপ্ত প্রশ্নপত্রের মাধ্যমে তথ্য সংগ্রহ করা হবে।’

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সচিব বলেন, ‘বর্তমান সরকার দেশকে ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত হিসেবে গড়ে তোলার জন্য ব্যাপক উন্নয়ন পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। আপনারা জানেন, সরকারের অঙ্গীকার ‘রূপকল্প-২০২১’ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের আওতায় বিবিএস নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। সরকার, উন্নয়ন সহযোগী সংস্থা, এনজিও, গবেষণা সংস্থা, কৃষি বিষয়ক সংস্থাসমূহ প্রভৃতির পরিকল্পনা প্রণয়ন ও নীতি নির্ধারণের জন্য হালনাগাদ কৃষি বিষয়ক তথ্য-উপাত্ত প্রাপ্তির ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। এ সংক্রান্ত পরিসংখ্যান প্রস্তুত করার জন্য হালনাগাদ কৃষি বিষয়ক কাঠামো ও তথ্য-উপাত্ত প্রস্তুতের পদক্ষেপ হিসেবে বিবিএস ‘কৃষি (শস্য, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ) শুমারি-২০১৮’ প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হবে।’

বিবিএসের মহাপরিচালক ড. কৃষ্ণা গায়েন বলেন, ‘কৃষি অবকাঠামোর বর্তমান চিত্র তুলে ধরার পাশাপাশি সরকার কৃষি ক্ষেত্রে সঠিক পরিকল্পনা প্রণয়নের লক্ষ্যে বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো ‘কৃষি (শস্য, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ) শুমারি ২০১৮’ পরিচালনার উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। তিনি বিবিএসের এই কাযর্ক্রমে সকলের আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করেন।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১০ অক্টোবর ২০১৮/হাসিবুল/শাহনেওয়াজ

Walton Laptop
 
     
Marcel