ঢাকা, শনিবার, ১ পৌষ ১৪২৫, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

এনামুলের হ্যাটট্রিকের পরও চাপে সিলেট

আবু হোসেন পরাগ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-১১-০৭ ৮:৫৮:৩৮ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-১১-০৭ ৯:০২:৪০ পিএম
হ্যাটট্রিকসহ পাঁচ উইকেট নিয়েছেন এনামুল হক জুনিয়র। ছবি : সাজ্জাদ শাকিল

ক্রীড়া প্রতিবেদক : ওয়ালটন ২০তম জাতীয় ক্রিকেট লিগের শেষ রাউন্ড পরপর দুই দিনে দেখল দুটি হ্যাটট্রিক। আগের দিন মনির হোসেনের পর আজ হ্যাটট্রিক করেছেন এনামুল হক জুনিয়র। তবে তার দল সিলেট ঢাকা বিভাগের বিপক্ষে চাপে আছে।

দ্বিতীয় স্তরের এই ম্যাচের তৃতীয় দিন বুধবার প্রথম ইনিংসে ৩৪৬ রানে অলআউট হয়ে ১০৮ রানের লিড পায় ঢাকা। দিন শেষে দ্বিতীয় ইনিংসে সিলেটের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ১০২ রান। এখনো ৬ রানে পিছিয়ে আছে তারা। প্রথম ইনিংসে তারা করেছিল ২৩৮ রান।

কক্সবাজারের শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামের একাডেমি মাঠে আগের দিনের ৪ উইকেটে ২৩৬ রান নিয়ে তৃতীয় দিনের খেলা শুরু করেছিল ঢাকা।

দিনের প্রথম ওভারেই হ্যাটট্রিক করেন এনামুল। ওভারের শেষ তিন বলে আউট হয়ে ফেরেন তাইবুর রহমান, আব্দুল মজিদ ও নাজমুল হোসেন মিলন। তাইবুর ও নাজমুল হয়েছেন বোল্ড। আগের দিন সেঞ্চুরির পর চোট পেয়ে মাঠ ছাড়া মজিদ ক্যাচ দেন উইকেটের পেছনে।

আগের দিনের স্কোর ২৩৬ রেখেই ঢাকা হারায় ৩ উইকেট! বেশিক্ষণ টিককে পারেননি অধিনায়ক নাদিফ চৌধুরীও (২৮)।

শেষ উইকেটে মোশাররফ হোসেন রুবেল ও শাহাদাত হোসেনের ৫৬ রানের জুটিতে একশ ছাড়ানো লিড পায় ঢাকা। ফিফটি করে শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হওয়ার আগে ১৩৬ বলে ৩ চার ও এক ছক্কায় ৫০ রান করেন মোশাররফ। ৬০ বলে ৫ চারে ৩৪ রানে অপরাজিত ছিলেন শাহাদাত।

৮৭ রানে ৫ উইকেট নেন এনামুল। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে এ নিয়ে ৩৪তম বারের মতো পাঁচ উইকেট নিলেন বাঁহাতি এই স্পিনার। বাংলাদেশের প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে যা আরেক স্পিনার আব্দুর রাজ্জাকের সঙ্গে যৌথভাবে সর্বোচ্চ।

১০৮ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংসে নেমে ২২ রানেই ওপরের দিকের তিন ব্যাটসম্যানকে হারিয়ে চাপে পড়ে সিলেট। এর মধ্যে দুই অঙ্ক ছুঁয়েছেন শুধু ওপেনার শাহনাজ আহমেদ (১২)। আরেক ওপেনার ইমতিয়াজ হোসেন ৮, তিনে নামা জাকির হাসান করেন শূন্য। প্রথম ইনিংসে দলীয় ৪০ রানের মধ্যেই ফিরেছিলেন এই তিনজন।

প্রথম ইনিংসের মতো এবারও দলের বিপদে হাল ধরেন অভিজ্ঞ দুই ব্যাটসম্যান রাজিন সালেহ। তৃতীয় উইকেটে দুজন যোগ করেন ৭৬ রান। কাপালি ১১১ বলে ৩৯ রান করে ফিরলে ভাঙে এ জুটি।

এনামুলকে নিয়ে দিনের বাকি সময়টা কাটিয়ে দেন রাজিন। এই ম্যাচ দিয়েই পেশাদার ক্রিকেটকে বিদায় বলতে যাওয়া রাজিন ১১৫ বলে ৩ চারে ৪০ রানে অপরাজিত আছেন। ২ রানে অপরাজিত এনামুল।

ঢাকার হয়ে এদিন শাহাদাত নেন ২ উইকেট। একটি উইকেট নেন তাইবুর।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/৭ নভেম্বর ২০১৮/পরাগ

Walton Laptop
 
     
Marcel
Walton AC