ঢাকা, শুক্রবার, ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১৬ নভেম্বর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

মি টু আন্দোলন এবং নারীর মর্যাদা

মাছুম বিল্লাহ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-১০-২১ ৪:৫০:৩২ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-১১-১৪ ১:৫৪:২৬ পিএম

মাছুম বিল্লাহ : আমেরিকার কথাসাহিত্যিক ফিলিপ রথ বিশ শতকের নেতৃস্থানীয় লেখকদের অন্যতম। তার কথাসাহিত্য  বাস্তবতা ও কল্পনার তফাৎ অনেকাংশে মুছে ফেলেছে। ফিলিপ রথের লেখায় বারবার নানাভাবে এসেছে পুরুষের যৌন আকাঙ্ক্ষার কথা। বর্তমানে নারীদের পুরুষের প্রতি যৌন হয়রানির বিষয়ে যেসব তথ্য প্রকাশ পাচ্ছে সে বিষয়ে ফিলিপ রথের মন্তব্য আজ আর জানার উপায় নেই। কেননা তিনি মারা গেছেন। তবে তিনি বলেছেন: ‘ঔপন্যাসিক হিসেবে পুরুষের যৌন রোষ আমার কাছে একদম অচেনা বিষয় নয়। আমার বেশ কিছু লেখাতে যৌন প্ররোচনায় প্রলুব্ধ পুরুষ মানুষের জীবনের কথা বলা হয়েছে। যৌন সুখের অবিরাম ডাকে সাড়া দেওয়ার মতো মানুষ লজ্জাকর বাসনাতাড়িত হয়ে, আবিষ্ট কামনায় নিঃসংকোচ হয়ে নিষিদ্ধ জিনিসের প্রলোভনে পড়ে থাকে অনেক সময়। বেশ কয়েক দশক ধরে আমি এ রকম আগুনের মতো শক্তির কাছে আবিষ্ট হয়ে থাকা মানুষের ক্ষুদ্র একটা গোষ্ঠীর কথা কল্পনায় আনার চেষ্টা করেছি। আমি শুধু পুরুষের মস্তিষ্কে প্রবেশ করিনি, বরং ওইসব তাড়নায় একগুঁয়ে চাপের বাস্তবতার ভেতরও ঢুকেছি। এ রকম চাপ একটানা চলতে থাকলে মানুষের যৌক্তিক ক্ষমতা লোপ পেয়ে যায়- এ রকম তাড়না মাঝেমধ্যে এমন মারাত্মক রূপ নেয়, মানুষকে তখন উন্মাদের অভিজ্ঞতার ভেতর দিয়ে যেতে হয়। সুতরাং ইদানিং পত্রপত্রিকায় এ রকম তাড়নায় চরম অবস্থার উদাহরণ পড়ার সময় আমি বিস্মিত হই না।’

বলিউডের অভিনেত্রী তনুশ্রী দত্ত নানা পাটেকর এবং বিবেক অগ্নিহোত্রীর বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার অভিযোগ এনেছেন। মামলা করতে গিয়ে দেখেছেন নানা আর বিবেকই তনুশ্রীর বিরুদ্ধে মামলা করে বসে আছেন। বিশজন মেয়ে প্রাক্তন সাংবাদিক, সম্পাদক এবং বর্তমানে প্রতিমন্ত্রী এম জে আকবরের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন। ফলে তিনি ১৭ অক্টোবর আনুষ্ঠানিকভাবে মন্ত্রীত্ব থেকে পদত্যাগ করেছেন কোর্টে নিজে লড়াই করার  জন্য। একে একে অনেক অভিনেত্রী চলচ্চিত্র পরিচালক ও নামকরা নায়কদের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার অভিযোগ তুলছেন। কেউ বলছেন, পরিচালকের সাথে রাত কাটানোর পর সিনেমায় নিতে রাজী হয়েছেন। কেউ বলেছেন, উলঙ্গ হয়ে তাদের সামনে নাচতে হয়েছে। কেউ বলছেন, পরিচালক তাকে কোলে নিয়ে চুলের ঘ্রাণ শুঁকতেন ইত্যাদি ইত্যাদি। কেউ কেউ সত্যি কথাটাই বলেছেন: ‘বলিউডে কোনো র্ধষণ হয় না, এখানে যা কিছু হয় সবই মিউচুয়াল অর্থাৎ দুজনের ইচ্ছেতেই যৌন সম্পর্ক হয়ে থাকে।’ তাহলে এত অভিযোগ কেন? আর বলিউডের নায়িকারা সমাজের দুর্বল ও অবহেলিত নারী নন যে, জোরপূর্বক কিংবা ফুসলিয়ে তাদের সাথে যৌন সম্পর্ক করা হয়েছে। বরং তাদের সাথে যদি যৌন সম্পর্ক হয়েই থাকে অনেক ক্ষেত্রে তাদের স্বার্থের কারণেই হয়েছে। তারা সবাই সমাজের প্রভাবশালী নারী।

চলচ্চিত্র জগত মানে ঝলমলে দ্যুতিময়। বিলাসবহুল জীবনযাপন, তবে এর বীপরীতে অন্ধকার দিকের কথা আমরা কল্পনা করতাম, বিভিন্ন ধরনের ম্যাগাজিনে হয়তো মাঝেমাঝে কিছুটা প্রকাশিতও হতো। কিন্তু হঠাৎ স্বজনপ্রীতি, কাস্টিং কাউচ থেকে শুরু করে নানা প্রতিকুল ঘটনার কথা শোনা যাচ্ছে। বর্তমানে যৌন হয়রানীর বিষয়ে বেশ সোচ্চার বিশ্ব। শোবিজ অঙ্গনের অভিনয় শিল্পীরাও সোচ্চার। কিন্তু সমস্যা এখানেই। তাদের অনেকেই ভালো অভিনয় করা ছাড়াও অনেককে বিভিন্নভাবে খুশী করেন। তারপর তারাই আবার যৌন নির্যাতনের বিরুদ্ধে সোচ্চার হন। নারী দেহের আকর্ষণ প্রাকৃতিক। সব সময় যে গল্পের প্রয়োজনে এমন নয়, সিনেমা চলার জন্য, ব্যবসা করার জন্য পরিচালক, প্রযোজক নারীদেহ ব্যবহার করেন। এ ঘটনা নতুন নয়। সিনেমায় নায়িকাকে অনেক সময় এ কারণে অশ্লীলভাবে প্রদর্শন করা হয়। আমি মনে করি, নিজেদের নারীদেহের প্রতি চাক্ষুষ যৌনক্ষুধা মেটাবার জন্যও অনেক প্রডিউসার ঐ কাজটি করেন। অনেক নায়িকা নিজেরাও বারবার শরীরের নির্দিষ্ট অংশ প্রদর্শন করেন। কারণ তারা জানেন সব পুরুষ ঐ দিকে তাকাবে, রোমান্স অনুভব করবে। আর তাহলেই তাদের ছবি বেশি চলবে। সাক্ষাৎকারে বাংলাদেশের এক অভিনেত্রী বলেছিলেন, ‘শরীর আমাদের একটি মুলধন, আমাদের শরীরকে আকষর্ণীয় রাখতেই হবে।’ তিনি বোধ করি সত্যি কথাটাই বলেছেন।

জাপানে এখন জন্মহার ক্রমাগত কমছে। তার সঙ্গে কমছে কনডম ও জন্মনিয়ন্ত্রণ বড়ির ব্যবহার। গর্ভপাতের সংখ্যা এবং যৌন রোগের প্রকোপ। এগুলোর কারণ ও ব্যাখ্যা হচ্ছে জাপানীরা আগের চেয়ে কম সেক্স করছে। এক জরিপে দেখা যায়, জাপানের বহু দম্পতি যৌনসম্পর্কবিহীন বিবাহিত জীবন যাপন করছেন। এক তৃতীয়াংশ পুরুষ বলছেন, তারা এত ক্লান্ত থাকেন যে এসব করতে ইচ্ছে করে না। এক চতুর্থাংশ নারী বলছেন, সেক্স তাদের কাছে একটি সমস্যা বলে মনে হয়। আরেক জরিপে দেখা যায়, জাপানে ১ থেকে ৩৪ বছর বয়স্কদের মধ্যে কুমার-কুমারীর সংখ্যা গত এক দশকে অনেক বেড়ে গেছে। প্রায় ৪৫ শতাংশই বলছে তারা কখনো যৌনমিলন করেননি। দক্ষিণ কোরিয়ার নারীরা বাচ্চা চান না। সেখানকার নারীদের গড়ে ১.০৫টি সন্তান হয়। কিন্তু দেশটির জনসংখ্যা স্থিতিশীল রাখতে এ সংখ্যা ২ এর উপর হওয়া দরকার। কিন্তু দেশটিতে বাড়ির উচ্চমূল্য, সন্তান পালনের ব্যয় এবং দীর্ঘ কর্ম ঘণ্টার কারণে চাকরিজীবী নারীরা সন্তান নিতে চান না। বাচ্চা নেওয়ার জন্য সরকার তাদের উৎসাহিত করতে কোটি কোটি ডলার খরচ করছেন।

তারপরও জন্মহার বাড়ছে না। তার অর্থ কী? পৃথিবীবাসীরা কি তাহলে ধীরে ধীরে প্রাকৃতিক যৌনকামনা, যৌনকর্ম থেকে সরে আসছে? তাহলে ভবিষ্যত প্রজন্মের কী হবে? নারী পুরুষের সম্পর্কের কী হবে? পৃথিবীর অনেক দেশেই সেক্স রোবটের কারখানা চালু হয়েছে। সেক্স রোবটগুলো শুধু পুতুল নয়, তারা অতি রুপসী রমণীর মতো, নারীর ত্বকের মতোই তাদের কোমল ত্বক, কথাও বলে চমৎকার। পুরুষেরা রোবটের চোখে মুখে ইমোশন দেখতে চেয়েছে, সে ব্যবস্থাও করা হয়েছে। এখন পুরুষেরা চায় বুদ্ধিমতী সেক্স রোবট, যেন তারা তাদের সঙ্গে আলাপ আলোচনা করতে পারে। সেক্স রোবটের ভিতর আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স ঢুকিয়ে দেওয়ার কাজ চলছে। কারখানাগুলোতে এরকম শত শত রোবট বানানো হচ্ছে। সমাজবিদরা বলছেন, ভবিষ্যতে রক্ত মাংসের নারীর পরিবর্তে সেক্স রোবট নিয়েই সুখী জীবনযাপন করবে পুরুষ।

যৌনতা হচ্ছে পৃথিবীর সবচেয়ে পুরনো এবং সার্বজনীন একটি ব্যাপার। সবচেয়ে সার্বজনীন হলেও এ নিয়ে বিভিন্ন দেশে বিভিন্ন সংস্কৃতিতে গড়ে উঠেছে আলাদা আলাদা রীতি, যা কারো কাছে স্বাভাবিক, কিন্তু অন্যের চোখে রীতিমতো আজব। ঐতিহ্যগতভাবে যুক্তরাষ্ট্রের হাওয়াই দ্বীপপুঞ্জের আদিবাসীরা তাদের গোপন অঙ্গের উপাসনা করে এবং আলাদা একটা আদুরে নাম দিয়ে থাকে। তাদের রাজা থেকে সাধারণ মানুষ পর্যন্ত সবারই নিজস্ব একটি মন্ত্র আছে যার মাধ্যমে কাব্যিক ভাষায় খোলামেলাভাবে বিস্তারিত বর্ণনা করা হয়। আমরা বিশ্বের যে কোন দেশের নারীদের অত্যন্ত সম্মানের সাথে দেখতে চাই। তাদেরকে বিজ্ঞাপনের পণ্য বানানো কোনভাবেই সমর্থনযোগ্য নয়। কিন্তু তারাই যদি বিষয়টিতে আগ্রহী হয় তাহলে তো প্রশ্ন থেকে যায়। মনোবিজ্ঞানীরা বলেন, ‘পুরুষরা যৌন বিষয়ে কয়েক মিনিটি পরপর চিন্তা করে।’ পাশ্চাত্যে যে ব্যবস্থা গড়ে উঠেছে তাতে ২১ বছরের আগেই ছেলেমেয়েদের এক থেকে ছয়জনের সঙ্গে যৌন মেলামেশা হয়ে থাকে। আমরা যৌন বিষয়ে পাশ্চাত্যের সভ্যতা দেখতে চাই না। আমরা প্রাকৃতিক যৌনতা চাই, সুস্থ যৌনজীবন চাই, যৌনতাহীন জীবন নয়। তবে তা কোনো অবস্থাতেই কাউকে প্রতারিত করে নয়।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/২১ অক্টোবর ২০১৮/তারা

Walton Laptop
 
     
Marcel
Walton AC