ঢাকা, রবিবার, ১০ বৈশাখ ১৪২৪, ২৩ এপ্রিল ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

কুসিকে সীমার জয় নিশ্চিতে মাঠে আ.লীগ

নৃপেন রায় : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-০৩-১২ ১০:০৬:৫৩ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৩-১৩ ৮:২০:০৮ এএম

নিজস্ব প্রতিবেদক: বহুল আলোচিত নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (নাসিক) নির্বাচনের মতোই কুমিল্লা সিটি করপোরেশন (কুসিক) নির্বাচনেও জয় পেতে চায় আওয়ামী লীগ। কুসিকে নৌকার প্রার্থী আঞ্জুম সুলতানা সীমার পক্ষে ইতিমধ্যে মাঠে নেমেছেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা।

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মতো কুমিল্লা সিটি করপোরেশনেও দুই প্রভাবশালী পরিবারের দূরত্ব ঘুচিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে দলীয় প্রার্থীর জয় নিশ্চিত করতে চায় আওয়ামী লীগ। দলের একাধিক সূত্র রাইজিংবিডিকে এসব তথ্য জানিয়েছেন।

আওয়ামী লীগের এক নেতা বলেন, কুমিল্লা সিটিতে দুই প্রভাবশালী পরিবারের মধ্যে দূরত্ব আছে। আওয়ামী লীগের মতো সংগঠনে এসব ক্রাইসিস এখন কোনো ফ্যাক্টর নয়। কারণ, তৃণমূল থেকে কেন্দ্র- সবাই আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ। আমরা ইতিমধ্যে এটা প্রমাণ করেছি নাসিক নির্বাচনে। নাসিকেও দুই রাজনৈতিক পরিবারের মধ্যে সাপে-নেউলে সম্পর্ক ছিল। কিন্তু সবাই আওয়ামী লীগের স্বার্থে, নেত্রীর স্বার্থে ঐক্যবদ্ধ হয়ে নৌকার প্রার্থী সেলিনা হায়াৎ আইভীর পক্ষে কাজ করে বিজয় ছিনিয়ে এনেছেন। আমরা এই স্টাইলেই কুসিক নির্বাচনেও সীমার জয় পেতে কাজ করছি। এ কারণে সবকিছু বিবেচনা করে কাজী জাফরউল্লাহকে প্রধান সমন্বয়কের দায়িত্ব দিয়েছেন দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনা।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য কাজী জাফরউল্লাহকে কুসিক নির্বাচনে সীমার পক্ষে নির্বাচন পরিচালনায় প্রধান সমন্বয়কারীর দায়িত্ব দিয়েছে আওয়ামী লীগ। গত বৃহস্পতিবার দলীয় সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। তার সঙ্গে রয়েছেন নাসিক নির্বাচনে কাজ করা দলের ঢাকা বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত সাংগঠনিক সম্পাদক ব্যারিস্টার মুহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। কুসিক নির্বাচনে দলীয় নির্বাচন পরিচালনাকারী দলের সদস্য সচিবের দায়িত্ব পেয়েছেন চট্টগ্রাম বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত সাংগঠনিক সম্পাদক এ কে এম এনামুল হক শামীম। এ ছাড়া কুসিকের ২৭ ওয়ার্ডে আওয়ামী লীগের ২১ কেন্দ্রীয় নেতাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

কুমিল্লা সিটি করপোরেশনে আওয়ামী লীগের প্রার্থীর পক্ষে কাজ করতে দলটির কেন্দ্রীয় যেসব নেতাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে তারা হলেন- ১ নম্বর ওয়ার্ডে কৃষি ও সমবায়বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী, ২ নম্বর ওয়ার্ডে তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক আফজাল হোসেন, ৩ ও ৪ নম্বর ওয়ার্ডে ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, ৫ ও ৬ নম্বর ওয়ার্ডে বন ও পরিবেশ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, ৭ ও ৮ নম্বর ওয়ার্ডে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার মো. আবদুস সবুর, ৯ নম্বর ওয়ার্ডে যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক হারুনুর রশীদ, ১০ নম্বর ওয়ার্ডে শিক্ষা ও মানবসম্পদ সম্পাদক শামসুন নাহার চাঁপা, ১১ ও ১২ নম্বর ওয়ার্ডে সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, ১৩ নম্বর ওয়ার্ডে স্বাস্থ্য সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা, ১৪ নম্বর ওয়ার্ডে উপপ্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, ১৫ নম্বর ওয়ার্ডে কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য রেমন্ড আরেং, ১৬ নম্বর ওয়ার্ডে অ্যাডভোকেট নজিবুল্লাহ হিরু, ১৭ নম্বর ওয়ার্ডে আমিরুল ইসলাম মিলন, ১৮ নম্বর ওয়ার্ডে গোলাম কবীর রাব্বানী চিনু, ১৯ নম্বর ওয়ার্ডে এ বি এম রিয়াজুল কবীর কাওছার, ২০ নম্বর ওয়ার্ডে পারভীন জামান কল্পনা, ২১ ও ২২ নম্বর ওয়ার্ডে আনোয়ার হোসেন, ২৩ ও ২৪ নম্বর ওয়ার্ডে ইকবাল হোসেন অপু, ২৫ নম্বর ওয়ার্ডে মেরিনা জাহান, ২৬ নম্বর ওয়ার্ডে ড. শাম্মী আহমেদ এবং ২৭ নম্বর ওয়ার্ডে মারুফা আক্তার পপি।

দায়িত্ব বণ্টনের পর থেকেই কেন্দ্রীয় নেতারা কুসিকে ঘরোয়া বৈঠকে নির্বাচনী প্রচার শুরু করেছেন। গত শুক্রবার কেন্দ্রীয় নেতা সুজিত রায় নন্দী দিনব্যাপী কুমিল্লা নগরীর কয়েকটি ওয়ার্ডে গিয়ে প্রচার চালান বলে স্থানীয় সূত্র নিশ্চিত করেছে। এর আগে গত বৃহস্পতিবার রাতে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনের কুমিল্লা কেন্দ্রে আইইবি কুমিল্লা শাখার উদ্যোগে এক সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশের সাধারণ সম্পাদক ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিষয়ক সম্পাদক প্রকৌশলী আব্দুস সবুর। তিনি কুমিল্লা নগরীর উন্নয়নে আওয়ামী লীগের মেয়র পদপ্রার্থী আঞ্জুম সুলতানা সীমাকে নির্বাচিত করার আহ্বান জানান। আওয়ামী লীগের পাশাপাশি সহযোগী সংগঠনের নেতারাও সীমার পক্ষে নির্বাচনী প্রচার শুরু করেছেন।

রোববার দুপুরে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে ১৪ দলের বৈঠক শেষে এক সংবাদ সম্মেলনে কুসিক নির্বাচনে আঞ্জুম সুলতানা সীমাকে ১৪ দলের একক প্রার্থী ঘোষণা করেন জোটের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম। তিনি বলেন, ‘কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আঞ্জুম সুলতানা সীমাকে বিজয়ী করতে আমরা ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করব। সীমার পক্ষে শিগগিরই ১৪ দলীয় জোটের নেতারা প্রচারে অংশ নেবেন।’

আওয়ামী লীগ সূত্র জানায়, স্থানীয় রাজনীতিতে কুমিল্লা-৬ আসনের সংসদ সদস্য আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহারের সঙ্গে প্রাক্তন উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট আফজল খানের বিরোধ আছে। ওই সিটি করপোরেশনে গত নির্বাচনে দলের প্রার্থী আফজল খানের পরাজয়ের জন্য আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহারকে দায়ী করা হয়। বর্তমানে এ দুই নেতার মধ্যকার দ্বন্দ্ব-বিবাদ নতুন করে আলোচনায় আসে আফজল খানের মেয়ে আঞ্জুম সুলতানা সীমাকে কুসিক নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দেওয়ায়।

স্থানীয় সূত্র জানায়, কুসিক নির্বাচনে আরফানুল হক রিফাত মনোনয়ন না পাওয়ায় হতাশ হন আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহারের সমর্থকরা। এ অবস্থায় আঞ্জুম সুলতানা সীমা তার ভাই ডা. আ জ ম খান নোমানকে নিয়ে গত সোমবার আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহারের সঙ্গে দেখা করতে যান। ইতিমধ্যে কেন্দ্রীয় নেতাদের হস্তক্ষেপে সীমার পক্ষে কাজ শুরু করেছেন আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার।

 

 

 

 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/১২ মার্চ ২০১৭/নৃপেন/রফিক

Walton Laptop