ঢাকা, মঙ্গলবার, ৪ আশ্বিন ১৪২৪, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

‘ভারতের প্রতিরক্ষা চুক্তি হবে আত্মঘাতী’

রেজা পারভেজ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-০৩-১৫ ১২:৩৫:২৭ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৩-২১ ১২:১৩:৫৪ পিএম

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফরে বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে সামরিক চুক্তি হলে সেটি আত্মঘাতী এবং জাতীয় স্বাধীনতাবিরোধী হবে বলে মনে করছে বিএনপি।

দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, ‘বাংলাদেশের নিরাপত্তা যদি ভারতের ওপর নির্ভরশীল হয় এবং ভারতের ইচ্ছা অনুযায়ী যদি প্রতিরক্ষা নীতি গ্রহণ করতে হয়, তাহলে দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব বলে কিছু থাকবে না।’

বুধবার দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি।

রিজভী বলেন, ‘ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের সামরিক চুক্তি হলে তা হবে আত্মঘাতী এবং জাতীয় স্বাধীনতাবিরোধী। এই ধরনের রাষ্ট্রবিরোধী প্রতিরক্ষা চুক্তি হলে এ দেশের জনগণ কোনো দিন মেনে নেবে না, বরং তা প্রতিরোধে সর্বশক্তি দিয়ে এগিয়ে আসবে।’

তিনি বলেন, ‘আমরা আগেই বলেছি, ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের সামরিক চুক্তি হলে দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব হুমকির মুখে পড়বে কি না, তা নিয়ে দেশের মানুষ দুশ্চিন্তাগ্রস্ত হয়ে পড়েছে। প্রতিরক্ষা চুক্তি একটি স্পর্শকাতর বিষয়। এর সঙ্গে দেশের নিরাপত্তা, স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব জড়িত। এই চুক্তির বিষয়ে আজ দেশের মানুষ চরমভাবে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠায় ভুগছে।’

কোনো ধরনের গোপন চুক্তি জনগণ মেনে নেবে না জানিয়ে বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর আসন্ন ভারত সফরে ভারতের প্রধান চাহিদা প্রতিরক্ষা চুক্তি। এ ছাড়াও আরো দুই ডজন চুক্তির কথা শোনা যাচ্ছে। তাই জনগণকে অবহিত না করে কোনো গোপন চুক্তি কেউ মেনে নেবে না, বাস্তবায়নও হতে দেবে না। দাসত্বের শৃঙ্খলে বাঁধার যেকোনো চুক্তি জনগণ, রাজনৈতিক দল ও বিভিন্ন সংগঠন অগ্নিবর্ণ সংগ্রামে প্রতিহত করবে।’

সম্প্রতি ভারতের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা ‘রিসার্চ অ্যান্ড অ্যানালাইসিস উইং (র)’ এর বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেওয়া বক্তব্যকে রহস্যজনক হিসেবে আখ্যায়িত করেন রিজভী।

‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হঠাৎ ভারতবিরোধী বক্তব্য দিয়ে আলোড়ন সৃষ্টি করেছেন। তিনি বলেছেন, ২০০১ সালে ভারতের র এবং যুক্তরাষ্ট্র মিলে বিএনপিকে ক্ষমতায় বসিয়েছিল। হঠাৎ করে তার এই ধরনের উক্তি রহস্যজনক। এটি একটি পাতানো খেলারই অংশ। কেননা ‘র’ কাদের স্বার্থে কাজ করে জনগণ ভালো করেই জানে। তাই হঠাৎ করে তার  ‘র’ এর বিরুদ্ধে বিরোধিতা যে তামাশারই অংশ তাতে জনগণের মধ্যে কোনো সংশয় নেই।’

তিনি বলেন, ‘সাবমেরিন কেনার পর ভারত প্রতিরক্ষা চুক্তির বিষয়ে বেশি করে চাপ প্রয়োগ করছে। ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের অনেক বিষয় অমীমাংসিত থাকলেও প্রতিরক্ষা চুক্তি করার জন্য উঠেপড়ে লেগেছে।’

এ সময় তিনি অভিযোগ করেন, ‘জাতীয়তাবাদী শক্তি এবং বিএনপিকে নিশ্চিহ্ন করতে র’ সব সময় নেতিবাচক ভূমিকা পালন করছে।’ বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের হত্যাকাণ্ডের নেপথ্যে র’ এর ভূমিকা ছিল বলে ভারতের একটি গণমাধ্যমের বরাত দিয়ে জানান তিনি।

মঙ্গলবার লক্ষ্মীপুরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নৌকায় ভোট চেয়ে যে বক্তব্য দিয়েছেন, সেটি কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ভোটারদের প্রভাবিত করার জন্যই করেছেন বলে অভিযোগ করেন রিজভী। তিনি বলেন, ‘এটি সংবিধান এবং নির্বাচনী আচরণের পরিপন্থি।’




রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৫ মার্চ ২০১৭/রেজা/সাইফুল/এএন

Walton Laptop