ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ আশ্বিন ১৪২৪, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

আওয়ামী লীগের অস্তিত্ব থাকবে না : বিএনপি

রেজা পারভেজ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-০৯-০৯ ৭:৪৯:৪২ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৯-০৯ ৭:৪৯:৪২ পিএম

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক : বিএনপি আগামী নির্বাচনে এলে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের অস্তিত্ব থাকবে না বলে মনে করেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

শনিবার বিকেলে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে এক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন। বিএনপির ৩৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে এ আলোচনা সভার আয়োজন করে বিএনপি।

বিএনপিকে সরকার ভয় পায় বলেই কর্মসূচি পালন করতে দেওয়া হয় না দাবি করে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘বিএনপিকে মানববন্ধন করতে দেওয়া হয় না, কোনো কর্মসূচি পালন করতে দেওয়া হয় না। কারণ আওয়ামী লীগ বিএনপিকে ভয় পায়। তারা জানে বিএনপি যদি রাজপথে আসে এবং নির্বাচনে আসে তাহলে তাদের অস্তিত্ব থাকবে না।’

জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠায় নেতা-কর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান বিএনপি মহাসচিব।

‘রোহিঙ্গা ইস্যুতে বিএনপির নোংরা রাজনীতি করছে’ আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের এমন বক্তব্যের জবাবে তিনি বলেন, ‘নোংরা রাজনীতি বিএনপি করছে না। বিএনপি উদারপন্থী একটি রাজনৈতিক দল। এ দলে সাম্প্রদায়িকতার লেশমাত্র নেই। বরং আওয়ামী লীগ দেশ স্বাধীন হওয়ার পর থেকেই নোংরা রাজনীতি শুরু করেছে।’

তিনি বলেন, ‘বিএনপির মানবতার পক্ষে কথা বলছে। লজ্জা হয় আজকে যখন আমাদের সরকার রোহিঙ্গা ইস্যুতে টনক নড়ছে না। তখন আমেরিকা থেকে বিবৃতি দেয়, ইন্দোনেশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও তুরস্ক থেকে ফার্স্ট লেডি বাংলাদেশে চলে আসেন।’  

আওয়ামী লীগ রোহিঙ্গা ইস্যুতে সঠিক সময় সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারছে না বলেও মন্তব্য করেন মির্জা ফখরুল।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘আগামী নির্বাচন নিয়ে ষড়যন্ত্র চলছে। শেখ হাসিনা নানা অজুহাতে বিএনপিকে বাইরে রেখে নির্বাচন করতে চায়।’

সরকারকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, ‘আগামী নির্বাচন ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির মত হবে না, হতে দেওয়া হবে না। নির্বাচন হবে নিরপেক্ষ সরকার ও সহায়ক সরকারের অধীনে। বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া চিকিৎসা শেষে দেশে ফিরে সময় মত সহায়ক সরকারের রূপরেখা দেবেন। সহায়ক সরকারের দাবি আদায় করে বিএনপি নির্বাচনে যাবে।’

দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস বলেন,  ‘আগামী দিনে দেশে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন আদায় করতে না পারলে আমাদের (বিএনপি) অবস্থা রোহিঙ্গাদের চেয়ে করুন পরিণতি হবে। কেননা জিয়াউর রহমান দেশে যদি বাংলাদেশি জাতীয়তাবাদ না নিয়ে আসতে না তাহলে মিয়ানমারের আরাকান রাজ্যের মতো আজ বাংলাদেশেও জাতিগত সংঘাত হতে পারতো।’

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, ড. আব্দুল মঈন খান, ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান, সেলিমা রহমান, ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন, শামসুজ্জামান দুদু, যুগ্ম মহাসচিব হাবিব উন নবী খান সোহেল, ছাত্রদলের সভাপতি রাজীব আহসান প্রমুখ। সভা সঞ্চালনা করেন দলটির প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/৯ সেপ্টেম্বর ২০১৭/রেজা/সাইফ

Walton Laptop