ঢাকা, মঙ্গলবার, ৫ আষাঢ় ১৪২৫, ১৯ জুন ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

আমরা আশাবাদী হয়ে উঠছি : মির্জা ফখরুল

মেহেদী হাসান ডালিম : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-১২-৩০ ৫:১৬:৩৮ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০২-১৩ ১২:৫৫:৫২ পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক : বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আগামী নির্বাচন হবে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে। তাই এই নির্বাচনে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া অংশগ্রহণ করবেন। কিন্তু নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে ওনারা (আওয়ামী লীগ) নির্বাচনে আসবেন না।

শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে জাতীয়তাবাদী কৃষক দলের ৩৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, ২০১৮ সাল হবে বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার। ২০১৮ বিএনপির সাল, ২০১৮ তারেক রহমানের সাল।

তিনি আরো বলেন, ‘আমরা আশাবাদী হয়ে উঠছি অনেক কারণে। গতকাল বাংলাদেশের একজন শ্রদ্ধেয় নেতা ড. কামাল হোসেন বলেছেন, এই ভয়াবহ সরকারকে সরাতে হলে জাতীয় ঐক্য দরকার। আমার খুব ভালো লেগেছে, তিনি এতদিনে কথাটা উপলব্ধি করতে পেরেছেন। আমরা তো অনেক আগে থেকেই বলে আসছি, এই ভয়াবহ সরকারকে সরাতে না পারলে বাংলাদেশের অস্তিত্ব থাকবে না।’

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘কথা খুব স্পষ্ট- নির্বাচন তো দিতেই হবে এবং সেই নির্বাচন হতে হবে একটি নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে, নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশনের পরিচালনায়। সকল দলের অংশগ্রহণের মধ্য দিয়ে সুষ্ঠু নির্বাচন হতে হবে।’

‘আওয়ামী লীগ শুধু ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য দেশের সমস্ত অর্জন ধ্বংস করে দিয়ে আজকে একটা একদলীয় শাসনব্যবস্থা চালু করেছে। এটাকে টিকিয়ে রাখার জন্য তাদের লজ্জা শরম বলতে কিছু নাই, বেহায়ার মতো বলছে, সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন হবে। সংবিধান কোন সংবিধান? এ সংবিধান কোনটা? এমন একটা সংবিধান আপনারা সংশোধন করেছেন, যে পার্লামেন্টে করেছেন, সেটা জনগণের নয়,’মির্জা ফখরুল।

বিএনপির এই শীর্ষ নেতা বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সুপরিকল্পিতভাবে বাংলাদেশকে একটা ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করছে। পরিকল্পিতভাবে সংসদ ধ্বংস করেছে, পরিকল্পিতভাবে প্রশাসনকে দলীয়করণ করে অযোগ্য অথর্ব প্রশাসন তৈরি করেছে। যারা ঘুষ আর দুর্নীতি ছাড়া কিছু বোঝে না।’

আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও কৃষক দলের সাধারণ সম্পাদক শামসুজ্জামান দুদু। সঞ্চালনা করেন সংগঠনের সহ-দপ্তর সম্পাদক এস কে সাদী। বক্তব্য রাখেন- কৃষক দলের সহ-সভাপতি ও বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা সৈয়দ মেহেদী আহমেদ রুমী, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, কৃষক দলের সহ-সভাপতি এম এ তাহের, নাজিম উদ্দীন মাস্টার, জ্যেষ্ঠ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তকদির হোসেন মো. জসিম, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মো. আলিম হোসেন, অধ্যক্ষ সেলিম প্রমুখ।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/৩০ ডিসেম্বর ২০১৭/মেহেদী/রফিক

Walton Laptop
 
   
Walton AC