ঢাকা, মঙ্গলবার, ৫ আষাঢ় ১৪২৫, ১৯ জুন ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

‘১ শতাংশ মানুষও দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন চায় না’

রেজা পারভেজ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-১২-৩১ ৯:২২:০৫ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০২-১৩ ১২:৫৩:৩৫ পিএম

জ‌্যেষ্ঠ প্রতিবেদক : দেশের এক শতাংশ মানুষও দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন চায় না বলে দাবি করেছেন বিএনপি নেতা রুহুল কবির রিজভী। এর সত‌্যতা যাচাইয়ে প্রয়োজনে জরিপ চালাতে আওয়ামী লীগের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

রোববার জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে এক অনুষ্ঠানে রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘মানুষ বিশ্বাস করে, একটা অবাধ, সুষ্ঠু নির্বাচন হবে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে। প্রধানমন্ত্রী তার ক্রেডিবিলিটি (বিশ্বাসযোগ‌্যতা) হারিয়েছেন।’

‘এখন তিনি যদি একটা জরিপ করেন, ১ শতাংশও ফল আসবে না যে তার অধীনে মানুষ নির্বাচন চায়। মানুষ চায় তিনি পদত্যাগ করবেন এবং নির্দলীয় সহায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন হবে’, বলেন বিএনপির এই জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব।

ভবিষ‌্যতে আওয়ামী লীগকে ভোট দিতে জনগণের প্রতি প্রধানমন্ত্রী যে আহ্বান জানাচ্ছেন, এর মাধ‌্যমে তিনি হাসির খোরাকে পরিণত হচ্ছেন বলে মন্তব‌্য করেন রুহুল কবির রিজভী।

তিনি বলেন, ‘আপনি (প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা) কীসের ভোট চেয়ে বেড়াচ্ছেন? আপনার ভোট চাওয়া মানুষের কাছে হাসির খোরাক হচ্ছে। কারণ, ভোট চাওয়া, নির্বাচন- এগুলো দেশে তিনি রাখতে চাননি। এগুলো ধ্বংস করে দিয়েছেন। খামোখা এটার দরকার নাই। আপনি যদি মনে করেন আজীবন ক্ষমতায় থাকবেন তাহলে টেলিভিশনে, গণমাধ্যমে ঘোষণা দিয়ে দিলেই হয় যে আপনি আরো ৫ টার্মের জন্য থাকবেন।’

‘রক্তঝরা মতিহার : মৃত্যুঞ্জয়ী রিজভী আহমেদ’ শীর্ষক এই আলোচনা সভার আয়োজন করে ‘রাজশাহী ইউনিভার্সিটি ন্যাশনালিস্ট এক্স স্টুডেন্টস অ্যাসোসিয়েশন’ নামের একটি সংগঠন।

প্রধানমন্ত্রীর ভোট চাওয়াকে তামাশা অভিহিত করে বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘উনি ভোট চাইলে বিশ্ববাসী জানবে যে, বাংলাদেশে সামনে একটা নির্বাচন হবে, সেজন্য প্রধানমন্ত্রী ভোট চেয়ে বেড়াচ্ছেন। উনি তো জনগণকেই ত্যাজ্য করেছেন, তালাক দিয়েছেন। এটা প্রধানমন্ত্রীর তামাশা ছাড়া কিছুই নয়।’

সরকারের মন্ত্রীদের বক্তব্যের সমালোচনা করে রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘শিক্ষামন্ত্রী সহনীয় মাত্রায় দুর্নীতির কথা বলছেন। তাহলে ওবায়দুল কাদের ছাত্রলীগকে বলবেন, তোমরা সহনীয় মাত্রায় নির্যাতন করো, সন্ত্রাস করো? আর অন্য নেতারা বলতে থাকবেন, সহনীয় মাত্রায় দুর্নীতি করো। কেউ বলবে, সহনীয় মাত্রায় অন্যের জমি দখল করো। এটাই তারা প্রতিষ্ঠিত করেছেন।’

আওয়ামী লীগ আবার ক্ষমতায় থাকলে ৭০ টাকা কেজির চাল ১৪০ টাকা এবং পেঁয়াজ ২৫০ টাকা কেজি দরে খেতে হবে বলেও জনগণকে সতর্ক করেন বিএনপির এই নেতা।

আলোচনা সভায় অংশ নিয়ে আওয়ামী লীগের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের সমালোচনা করেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস‌্য ড. আবদুল মঈন খান।

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ নাকি বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল। কীসের রোল মডেল? এই সরকারের গুটিকয়েক মানুষের উন্নয়ন হয়েছে। তারপরও আমরা (রাজনীতিবিদরা) কোন লজ্জায় বলি, বাংলাদেশ বিশ্বের রোল মডেল? এ কথাগুলো আমাদের (বিএনপিকে) বলতে হবে, আর চুপ করে থাকলে চলবে না।’

আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন আয়োজক সংগঠনের সভাপতি অধ্যক্ষ বাহাউদ্দিন বাহার। সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক মল্লিক মো. মোকাম্মেল কবীর। আরো বক্তব্য রাখেন- বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব হাবিব-উন-নবী খান সোহেল, নির্বাহী কমিটির সদস্য অধ্যাপক আমিনুল ইসলাম, ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি রাজিব আহসান।



রাইজিংবিড্ঢিাকা/৩১ ডিসেম্বর ২০১৭/রেজা/রফিক

Walton Laptop
 
   
Walton AC