ঢাকা, বুধবার, ১২ আষাঢ় ১৪২৬, ২৬ জুন ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

‘প্রোগ্রামে কথা কাটাকাটি হোক, হাত মিলিয়ে ফিরবেন’

আবু বকর ইয়ামিন : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৪-১৫ ৯:৪৮:৫৮ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৪-১৬ ১০:৪৭:৪২ এএম
Walton AC 10% Discount

নিজস্ব প্রতিবেদক : ডাকসু নির্বাচনের প্রার্থীদের প্রতি উদ্দেশ করে ডাকসুর প্রাক্তন ভিপি (সহসভাপতি) তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, ‘আপনারা অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করবেন। প্রোগ্রামের মধ্যে কথা কাটাকাটি হবে, কিন্তু প্রোগ্রাম শেষ হবার আগেই হাতে হাত মিলিয়ে হলে ফিরবেন।’

সোমবার উপাচার্য ভবনে ‘ডাকসু ও হল সংসদ অভিজ্ঞতা শুনি, সমৃদ্ধ হই’ অনুষ্ঠানে ডাকসুর প্রাক্তন নেতাদের ডাকসুর অভিজ্ঞতা বিনিময়ের এক পর্যায়ে তিনি এ কথা বলেন।

বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ধারণ করে অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদী হওয়ার জন্য ডাকসু নেতৃবৃন্দের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তোফায়েল আহমেদ বলেন, ‘নুসরাত হত্যাকাণ্ডের মতো সামাজিক অবক্ষয় রোধেও তাদের বলিষ্ঠ ভূমিকা পালন করতে হবে। ’

এ সময় নুসরাত হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে ডাকসুর কোনো কর্মসূচি না থাকায় দুঃখ প্রকাশ করেন তিনি।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়কে নেতা তৈরির কারখানা হিসেবে বর্ণনা করে তোফায়েল আহমেদ বলেন, ‘বিভিন্ন গণতান্ত্রিক আন্দোলনে ডাকসু গৌরবোজ্জ্বল ভূমিকা পালন করেছে।’

 



‘ছাত্রত্ব শেষ হওয়ার পর একদিনও হলে থাকেননি’ উল্লেখ করে তোফায়েল আহমেদ বলেন, ‘বর্তমান প্রজন্মের শিক্ষার্থীদেরও এই নীতি অনুসরণ করতে হবে। ’ ক্যাম্পাসে শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় রাখার জন্য তিনি সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহ্বান জানান।

আওয়ামী লীগের প্রবীণ এ নেতা বর্ণাঢ্য ছাত্রজীবন ও স্বাধীনতা আন্দোলনের অগ্নিঝরা দিনগুলোর স্মৃতিচারণ করে বলেন, ‘তখন ছাত্র-শিক্ষক সম্পর্ক ছিল অত্যন্ত মধুর।  শিক্ষকগণ ছাত্রদের স্নেহ করতেন, ছাত্ররাও শিক্ষকদের শ্রদ্ধা করতেন।  পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধ ও সম্পর্কের কারণে তখন ছাত্রদের অনেক দাবি সহজেই আদায় হয়ে যেত।  সে সময় বিভিন্ন ছাত্র সংগঠনের মধ্যে সম্প্রীতি ও সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক ছিল। ’ এই ঐতিহ্য অনুসরণ করে বর্তমান ছাত্র সংগঠনগুলোর মধ্যে সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক গড়ে তোলার ওপর তিনি গুরুত্বারোপ করেন।

ঢাবি প্রশাসনকে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনের প্রতি আমি ধন্যবাদ জানাই সমান্য ত্রুটি-বিচ্যুতি হলেও প্রশাসন একটা নির্বাচন করেছে।’

উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও ডাকসুকে একে অপরের পরিপূরক হিসেবে বর্ণনা করে বলেন, ‘এখানে কেউ কারো প্রতিপক্ষ নয়।  শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় রাখতে সবাইকে সমন্বিত ও ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে।’

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. মো. আখতারুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন ডাকসুর প্রাক্তন সাধারণ সম্পাদক মোস্তাক হোসেন, অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ, চিফ রিটার্নিং অফিসার মাহফুজুর রহমান, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর এ কে এম গোলাম রব্বানী, কোষাধ্যক্ষ কামাল উদ্দিন, ডাকসুর কোষাধ্যক্ষ শিবলি-রুবায়েত উল ইসলাম, বিভিন্ন হলের প্রাধ্যক্ষ, ডাকসুর নবনির্বাচিত ভিপি নুরুল হক নুর, জিএস গোলাম রব্বানী, এজিএস সাদ্দাম হোসেনসহ ডাকসু ও হল সংসদের নির্বাচিত প্রতিনিধিরা।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৫ এপ্রিল ২০১৯/ইয়ামিন/সাইফুল

Walton AC
     
Walton AC
Marcel Fridge