ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ২৩ নভেম্বর ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বাল্য বিয়ে বন্ধ

নুরুচ্ছাফা মানিক : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-০৭-৩০ ৭:১১:৩৪ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৭-৩০ ৯:৫২:৩৬ পিএম
ফাইল ফটো

খাগড়াছড়ি সংবাদদাতা : খাগড়াছড়ির দীঘিনালা উপজেলায় বাল্য বিয়ে দেওয়ার সময় তা বন্ধ করে দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

রোববার দুপুরে উপজেলার মেরুং ইউনিয়নের ছোট হাজাছড়া গ্রামের বাসিন্দা মো. আকবরের সপ্তম শ্রেণী পড়ুয়া মেয়েকে কবাখালী এলাকার মামার বাড়িতে এনে বিয়ে দেওয়া হচ্ছে- এমন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এবং সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. মাহফুজুর রহমানের ভ্রাম্যমাণ আদালত গিয়ে বিয়ে বন্ধ করে দেন। এ সময় বাল্য বিয়ে দেওয়া ও ভুয়া জন্ম নিবন্ধন সনদ বানানোর দায়ে বাবা আকবরকে আটক করা হয়। পরে মুচলেকা নিয়ে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।  

মো. আকবর জানান, তার মেয়ের বয়স ১৩ বছর। কিন্তু স্কুলে যাওয়া-আসার সময় বিল্লাহ হোসেন নামের এক বখাটে তাকে উত্ত্যক্ত করে। বখাটের বিরুদ্ধে চেয়ারম্যানের কাছে অভিযোগ দিলেও তিনি ব্যবস্থা নেননি। তাই মেয়েকে বিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন।

দীঘিনালা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শেখ মো. শহীদুল ইসলাম জানান, ভুল স্বীকার করে মেয়েকে ১৮ বছর পূর্ণ না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দেবে না- মর্মে মুচলেকা দেওয়ায় মো. আকবরকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। মেয়েটি নির্ভয়ে স্কুলে যেতে পারবে। বখাটেকে গ্রেপ্তার করতে পুলিশকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।



রাইজিংবিডি/খাগড়াছড়ি/৩০ জুলাই ২০১৭/নুরুচ্ছাফা মানিক/বকুল

Walton
 
   
Marcel